Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/04/kivabe-free-website-banabo.html

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায় - ফ্রি ওয়েবসাইট বানানোর জনপ্রিয় ৫ টি মাধ্যম — অনলাইনে নিজের একটি ওয়েবসাইট থাকা মানে একটি সম্পদ থাকা। অনেক সময়ে আমরা ভাবি হয়ত ওয়েবসাইটে বানাতে অনেক পরিমাণ টাকা খরচ হয়। কিন্ত আপনি চাইলে একদম ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারবেন। ল্যাপটপ কিংবা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অনেক মাধ্যমে ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারবেন। ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিশ অনুযায়ী কনটেন্ট দিয়ে এডসেন্স বা অন্য যেকোনো এডস ব্যাবহার করে ফ্রি ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। 

kivabe free website banabo

পেজ সূচীপত্রঃ কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

অনলাইনে টাকা খরচ না করেই আপনি চাইলে আপনার কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠান এর জন্য একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারবেন। কোনো প্রকার বাড়তি খরচের ঝামেলা হবেনা। ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার অনেক গুলো প্লাটফর্ম বর্তমানে পাওয়া যায়। সব গুলোর মধ্যে হতে বাছাইকৃত জনপ্রিয়তার শীর্ষ স্থান দখল করা ৫ টি প্লাটফর্ম নিয়ে আজকের আর্টিকেল। নিচের দেওয়া যেকোনো একটি প্লাটফর্ম ব্যাবহার করার মাধ্যমে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। প্রিয় পাঠক চলুন তাহলে জেনে নিই কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়?

আরো পড়ুনঃ বাংলাদেশের সেরা হোস্টিং কোম্পানি

ফ্রি ওয়েবসাইট বানানোর ৫ টি জনপ্রিয় মাধ্যম

১। Blogger দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য Blogger (https://www.blogger.com) অন্যতম। যারা ওয়েবসাইট তৈরির বিষয় নিয়ে তেমন কিছু জানেন না কিংবা বুঝেন না তাদের জন্য সেরা মাধ্যম। ব্লগার থেকে কোডিং দক্ষতা ছাড়াই তৈরি করতে পারবেন ভালোমানের একটি ফ্রি ওয়েবসাইট।

গুগল এর নিজস্ব প্লাটফর্ম হলো ব্লগার। নতুন যারা ওয়েবসাইট বানাতে যাচ্ছেন শেখার জন্য বা খরচ করতে চাচ্ছেন না আপনাদের জন্য ব্লগার এর বিকল্প নেই। ব্লগারে আপনি বিভিন্ন ধরনের সাইট তৈরি করতে পারবেন যেমন- প্রতিষ্ঠানিক, ব্যবসায়ীক, শপিং সাইট, ব্লগ সাইট, ডাউনলোডার সাইট ইত্যাদি আরো অনেক ধরণ ইচ্ছা অনুযায়ী বানাতে পারবেন। 

ব্লগার আপনাকে দিবে সারাজীবন ফ্রি একটি সাবডোমেইম ও হোষ্টিং। আপনাকে আলাদা করে হোষ্টিং এর পিছে টাকা ঢালতে হবেনা। আপনার কোডিং দক্ষতা না থাকলেও পেয়ে যাবেন ব্লগার থেকে ডিফল্ট অনেক গুলো থিম। প্রয়োজনে অন্য সকল ওয়েবসাইট থেকেও ফ্রি থিম বা পেইড থিম ব্যাবহার কর‍তে পারবেন। কাষ্টমাইজেশন ও অনেক সহজ। 

সকল কিছুর জন্য সেটিংস পেয়ে যাবেন কোনো ঝামেলা ছাড়া এবং সব কিছু বুঝতে পারবেন সহজেই। ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চাইলে ব্যবহার করতে পারেন Blogger.com। ব্লগার দিয়ে তৈরি করা সাইটেও গুগল এডসেন্স প্রদান করে। তাই যারা ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করে এডসেন্স থেকে আয় করতে চান আপনাদের সুবিধার একটি প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে blogger।

আরো পড়ুনঃ ফ্রি ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স ইন বাংলাদেশ

২। Wordpress দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

ফ্রি ওয়েবসাইট বানানোর জন্য wordpress অন্যতম ভালো একটি মাধ্যম। অনেকেই জানেন হয়তো Wordpress ওয়েবসাইট তৈরি করতে হলে টাকার প্রয়োজন হয়। আসলে wordpress দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়। Wordpress এ আপনি যদি সাবডোমেইন বাদ দিয়ে কোনো টপ লেভেল ডোমেইন নাম (. Com/.net/. in/. Xyz) যোগ করতে চান সেক্ষেত্রে আপনি Wordpress এর ফ্রি ওয়েবসাইট প্লানের আওতাভুক্ত হবেন না। আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস থেকে মাসিক চার্জ প্রদান করতে হবে।

কোনো প্রকার টপ লেভেল ডোমেইন ছাড়াও সাবডোমেইনের মাধ্যমে আপনার নিজস্ব একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন সারাজীবনের জন্য। আপনার যদি কোনো প্রকার কোডিং দক্ষতা না থাকে তাহলে ওয়ার্ডপ্রেসে ওয়েবসাইটের জন্য আপনি পেয়ে যাবেন শত শত টেম্পলেট। যেগুলো ব্যবহার করে আপনার ফ্রি ওয়েবসাইটকে সুন্দর করে কোডিং ছাড়া সাজাতে পারবেন। 

ফ্রি ওয়েবসাইট বানানোর জন্য আপনার জন্য ভালো মাধ্যম হিসেবে কাজ করবে ওয়ার্ডপ্রেস। ওয়েবসাইট তৈরি করতে বাড়তি ঝামেলার প্রয়োজন পড়ে না। Wordpress এ সাইন আপ করে ক্রিয়েট সাইট থেকে তৈরি করে নিন সারাজীবনের জন্য একটি ফ্রি ওয়েবসাইট।

আরো পড়ুনঃ গুগলে ওয়েবসাইট র‍্যাংক করার উপায়

৩। Weebly দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

যারা অনলাইনে একটি ফ্রি শপিং ওয়েবসাইট বানাতে চান তাদের জন্য সবচেয়ে ভালো মাধ্যমে www.weebly.com। weebly থেকে সাধারণত ব্লগ ও শপিং ওয়েবসাইট ফ্রিতে বানানো যায়। Weebly এর দেওয়া সাবডোমেইনে ব্যবহার করতে পারবেন সারা জীবনের জন্য ফ্রি সুবিধা। সাইটের ডিজাইন করার জন্য খুব বেশী সমস্যা পোহাতে হবে না। আপনি আপনার কম্পিউটার মাউস ব্যবহার করে ড্রাগ করে এক একটা লেয়ারকে নির্দিষ্ট করে ডিজাইন কর‍তে পারবেন।

যারা ডিজাইন নিয়ে চিহ্নিত বা কখনো করেননি তারা চাইলে weebly থেকে ফ্রি ওয়েবসাইট ব্যবহার করে সহজে ডিজাইন করতে পারবেন। তবে ফ্রি সাইট ব্যবহার করতে হলে আপনাকে তাদের কিছু নিয়ম মেনে নিতে হবে। তাদের দেওয়া এডস গুলো আপনার সাইটে ব্যবহার করবে। হোস্টিং হিসেবে মাত্র ৫০০ মেগাবাইট ডাটা প্রদান করা হবে এর বেশী ব্যবহার কর‍তে হলে আপনাকে টাকা ব্যয় করতে হবে।

৪। Wix দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

www.wix.com বর্তমান সময়ে নতুন ওয়েবসাইট তৈরি কারীদের জন্য জনপ্রিয় ফ্রি ওয়েবসাইট বানানোর প্লাটফর্ম। wix এ ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো একদম পানির মতো সহজ। আপনারা যারা একদম নতুন ওয়েবসাইট সম্পর্কে অবগত কম তারা চাইলে নিশ্চিন্তে wix থেকে ফ্রি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন। মোবাইল বা ল্যাপটপ যেকোনো মাধ্যমে বানাতে পারবেন।

wix এ ডিজাইন করার জন্য ড্রাগ এন্ড ড্রপ ব্যবহার করতে পারবেন। লেয়ার গুলো সিলেক্ট করে মাউস ধরে রেখে দিলেই হবে দরকার পড়বেনা আলাদা কোনো ওয়েবসাইট ডিজাইন করার দক্ষতা। wix যেকোনো সাইট ফ্রিতে বানানো যায় যেমন- ব্লগ, শপিং, এফিলিয়েট, ডাউনলোড ইত্যাদি সকল ধরণের নিশ তৈরি করতে পারবেন একদম ফ্রিতে। সাইটে রয়েছে শত শত টেম্পলেট আপনি চাইলে আপনার পছন্দ মতো যেকোনো একটি টেম্পলেট ব্যাবহার করে আরো সুন্দর লুক দিতে পারবেন আপনার ফ্রি ওয়েবসাইটে।

আরো পড়ুনঃ ব্লগারদের জন্য ২৫টি প্রয়োজনীয় ব্লগিং টুলস

৫। Webnode দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানান

যারা অনলাইনে সাধারন কোনো কাজের জন্য ফ্রি ওয়েবসাইট বানাতে চান তাদের জন্য www.webnode.com অন্যতম ভালো একটি মাধ্যম হিসেবে কাজ করবে। ডিজাইন এর প্রতি সময় ব্যায় করার চিন্তা থাকবে না। সাধারন কিছু লেখালেখি রাখার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে। তবে যারা ডিজাইন করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য খুব একটা ভালো হবে না। 

আপনার তৈরি করা ফ্রি ওয়েবসাইটটিকে সাবডোমেইনের মাধ্যমে ব্যাবহার করতে হবে। হতাশার বিষয় হচ্ছে আপনাকে মাত্র ১০০ মেগাবাইট ফ্রি হোষ্টিং দেওয়া হবে। সেটা আপনি মুহুর্তেই শেষ করে ফেলতে পারবেন। তবে যারা সিম্পল কাজের জন্য জরুরি ফ্রি ওয়েবসাইট বানাতে চান তাদের জন্য সুবিধাজনক ভাবে কাজ করবে।

ওয়েবসাইট কিভাবে কাজ করে

ওয়েবসাইট মূলত প্রচারের কাজে ব্যবহার করা হয়। যেকোনো একটি বিষয়কে আপনি যদি কোনো দেশভিত্তিক বা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে চান আপনার ওয়েবসাইট প্রয়োজন হবে। ধরুন, আপনি ব্লগ লিখতে পারেন, আপনার কোনো ব্যাবসায়ীক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। আপনার সকল কিছুর প্রসার বৃদ্ধি করার জন্য ওয়েবসাইট সহায়তা করে। আপনি চাইলে অনলাইনে থেকে আয় করতে পারবেন একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে।

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায় কিংবা ফ্রি ওয়েবসাইট বানানোর জনপ্রিয় ৫ টি মাধ্যম শেয়ার করলাম আজকের আর্টিকেলে। আপনারা আপনাদের প্রয়োজন অনুযায়ী যেকোনো সাইট থেকে কোনো সীমাবদ্ধতা ছাড়া ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?