Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/12/best-way-to-increase-followers-on-instagram-free.html

ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বাড়ানোর উপায়

ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বাড়ানোর উপায় - ইনস্টাগ্রাম অটো ফলোয়ার — বর্তমানে ফেসবুকের পর সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রাম। দিন দিন ইনস্টাগ্রামের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিমাসে ১ বিলিয়নেরও বেশি মানুষ ইনস্টাগ্রামের অ্যাক্টিভ থাকে। মূলত ইনস্টাগ্রাম হচ্ছে ফটো এবং ভিডিও শেয়ার করার অন্যতম সেরা প্ল্যাটফরম। আপনি Facebook প্রোফাইল বা ইমেলের মাধ্যমে Instagram এ একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

এই ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খোলার পরে আসে বায়ো, প্রোফাইল পিকচারের প্রসঙ্গ। আপনি ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করতে পারেন ঠিক যেমন আমরা Facebook এ করি, তবে সাধারণত ইনস্টাগ্রামে ছবির গুণমান অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ার চেয়ে ভালো। এখানে সবাই মডেলিং বা প্রফেশনাল লুকে ছবি দিতে পছন্দ করে। আমি বলছি না আপনি স্বাভাবিক ভঙ্গিতে ছবি তুলতে পারবেন না, অবশ্যই আপনি পারেন, তবে ট্রেন্ড হল একটু স্টাইলিশ ছবি দেওয়া যাতে সবাই এটি পছন্দ করে।

আপনি এখানে ফেসবুক মেসেঞ্জারের মতো মেসেজিংও করতে পারেন। ছবিতে লাইক, কমেন্ট সব অপশন আছে। আমরা সকলেই ইনস্টাগ্রাম সম্পর্কে জানলাম, এখন আমরা জানব কীভাবে ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বাড়ানো যায়। প্রিয় পাঠক, দেরি না করে আলোচনা শুরু করা যাক।

যারা ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করেন কিন্তু জানেন না কীভাবে ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার বাড়ানো যায়, তাদের জন্য এই আর্টিকেলটি বেশ কার্যকর। আধুনিক যুগ সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ। আজকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছাড়া মানুষের সামাজিক জীবন বজায় রাখা সম্ভব নয়। আর ফলোয়ারদের সোশ্যাল মিডিয়ায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ স্ট্যাটাস আছে।

বলে রাখা ভালো নিরাপত্তার জন্য ইনস্টাগ্রামে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করুন। যদি আপনি এটি চালু করেন, তাহলে যদি কেউ পাসওয়ার্ড জেনে যায়, তাহলে কোড নাম্বার ছাড়া অর্থাৎ আপনার ফোন বা ইমেইল সেই ব্যক্তির কাছে না থাকলে, তবে সেই ব্যাক্তি অ্যাকাউন্টে লগইন করতে পারবে না। আর মাঝে মাঝে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করলে আপনার অ্যাকাউন্ট নিরাপদ থাকবে। প্রিয় পাঠক ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বাড়ানোর উপায় সম্পর্কে জানার আগে চলুন জেনে নেই ইনস্টাগ্রাম কি?

পেজ সুচিপত্রঃ

ইনস্টাগ্রাম কি?

যদি আপনি ইনস্টাগ্রামের নামটি দেখেন আর আপনি ইনস্টাগ্রামকে কিছুটা বোঝার চেষ্টা করেন তবে আপনি ইনস্টাগ্রামের অর্থ বুঝতে পারবেন। ইনস্টাগ্রাম বেসিক্যালি ২টি শব্দ মিলে তৈরি করা হয়েছে যেমনঃ Instant+Camera মিলে Instagram। আপনারা ইনস্টাগ্রামকে ফটো শেয়ার করা বুঝতে পারেন।

ইনস্টাগ্রাম হচ্ছে একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অনলাইন এপ্লিকেশন। এই এপ্লিকেশনের মাধ্যমে আপনারা সম্পূর্ণ বিনামুল্য ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করতে পারবেন। ইন্সটাগ্রাম অ্যাপ্লিকেশান আপনারা এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন, অ্যাপল এবং উইন্ডোজ ফোনে ব্যবহার করতে পারবেন। ইনস্টাগ্রাম সেরা সোশ্যাল মিডিয়া সাইট তাদের ব্যবহারকারীদের ছবি এবং শর্ট ভিডিও আপলোড করার পাশাপাশি ছবি ও ভিডিওতে অনেক ধরনের ফিল্টার প্রদান করে। যাতে করে শেয়ার করা ছবি এবং ভিডিও আকর্ষণীয় হয়।

ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করার পাশাপাশি আপনারা ইনস্টাগ্রামে লাইভে আসতে পারেন এবং ইন্সটাগ্রামে আপনি story দিতে পারবেন। বেশি সময় ধরে ভিডিওর জন্যে IGTV এর ব্যবহার করতে পারবেন। এই ধরনের আরো অনেক ধরনের ফিচারস ইনস্টাগ্রামে রয়েছে। যেসকল ফিচারস আপনারা ব্যবহার করতে জানতে পারবেন। 

2010 সালের 6 অক্টোবর ইনস্টাগ্রাম অ্যাপ লঞ্চ করা হয়। ইনস্টাগ্রাম Kevin Systrom, Mike Krieger বানিয়েছিলেন যদিওবা পরবর্তী ২০১২ সালে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া সাইট Facebook ইনস্টাগ্রামকে কিনে নেয়। আর বর্তমানে ফেসবুক হচ্ছে ইনস্টাগ্রামের Owner।

ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পর আপনাকে অন্য ইনস্টাগ্রাম ইউজারদেরকে অনুসরণ করতে হবে এবং অন্য ইনস্টাগ্রাম ইউজাররা আপনাকে অনুসরণ করবে। এছাড়া অন্যান্য সকল সোশ্যাল মিডিয়া সাইট গুলোর মতোই আপনারা ইনস্টাগ্রামে লাইক, কমেন্ট,শেয়ার করতে পারবেন এবং পোস্টটিকে Bookmark করতে পারবেন। 

পাশাপাশি আপনার কোনো ফলোয়ার্সের সঙ্গে প্রাইভেট লেভেলে আপনি ভিডিও কল, চ্যাট করতে পারবেন। ইনস্টাগ্রাম জনপ্রিয় এই সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টগুলোকে আপনারা অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যেমনঃ ফেসবুক, লিংকডিন, টুইটার ইত্যাদি জায়গাতে শেয়ার করতে পারবেন। 

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক সিকিউরিটি টিপস | ফেসবুক আইডি সিকিউরিটি টিপস

কিভাবে Instagram ব্যবহার করবেন?

ইনস্টাগ্রাম একটি খুব জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম যা আপনি আপনার দৈনন্দিন কাজে ব্যবহার করতে পারেন, এছাড়াও এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে আপনি বিশ্বের সামনে নিজেকে ব্র্যান্ড করতে পারেন। আপনি যদি আপনার তোলা ছবিটি বিশ্বের সামনে উপস্থাপন করতে চান তবে এটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করার মাধ্যমে খুবই সহজে করতে পারবেন। 

ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করার আগে, আপনার ফোনে কীভাবে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করবেন তা আপনার জানা উচিত। আপনার ফোনে Instagram ইনস্টল করতে, আপনাকে আপনার মোবাইলের গুগল প্লে স্টোর বা অ্যাপল স্টোরে যেতে হবে। এর পরে আপনাকে সেখানে ইনস্টাগ্রাম অ্যাপ্লিকেশন সার্চ করতে হবে।

Instagram সার্চ করার পরে, এটি আপনার ফোনে ইনস্টল করুন। Instagram ইনস্টল করার পরে, এই অ্যাপ্লিকেশনটিতে আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন। এরপরে আপনি সহজেই এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করতে পারেন। এই অ্যাপ্লিকেশনটি ইনস্টল করার পরে আপনি এটি সহজেই ব্যবহার করতে পারেন। লাইক, ফটো শেয়ার করা, কমেন্ট করা, রিশেয়ার করা মানে আবার শেয়ার করা ইত্যাদি। ইনস্টাগ্রাম একটি ভাল অ্যাপ্লিকেশন যার উপর আপনি সহজেই কাজ করতে পারেন।

সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের জীবনের একটি বড় অংশ হয়ে উঠেছে। অনেকের কাছে এই সোশ্যাল মিডিয়াও আয়ের একটা বড় উৎস। 4 জনপ্রিয় ইন্সটা এবং গ্রামীণ ব্যবসায়িক ধারণা সামাজিক জীবন মানে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার ইত্যাদির মতো সামাজিক মিডিয়া অ্যাকাউন্ট। ইনস্টাগ্রাম সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।

আপনি কি আপনার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার বাড়াতে চান? আপনি যদি কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করেন তাহলে ইনস্টাগ্রামে আপনার ফলোয়ার বাড়বে। চলুন দেখে নেই উপায়গুলো। কীভাবে ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বাড়ানো যায় দেখে নিনঃ

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক স্ট্যাটাস | ফেসবুক স্ট্যাটাস বাংলা | ফেসবুক স্ট্যাটাস রোমান্টিক

ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বাড়ানোর উপায়

১. অসাধারণ স্টাইলিশ ফটো

ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বাড়াতে আপনার পোস্টগুলি অনন্য এবং সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে। যার কারণে ফলোয়াররা আপনার Instagram পোস্টের বিষয়বস্তু দ্বারা বিরক্ত হবেনা। তবে, আপনি যদি ধারাবাহিকভাবে এবং একটি অনন্য উপায়ে পোস্ট করেন তবে আপনি ফলোয়ারদের কাছ থেকে ফিডব্যাক পাবেন।

উদাহরণস্বরূপ, যদি আপনার একটি কুকুর থাকে এবং আপনি প্রতিদিন আপনার Instagram প্রোফাইলে সেই কুকুরটির একটি ছবি পোস্ট করেন, তাহলে লোকেরা আপনার সামঞ্জস্য দেখতে পাবে এবং তাই মনে করবে। আপনার প্রোফাইল কুকুরের উপর নির্মিত এবং আপনি যদি এই কুকুরের জীবন সম্পর্কে জানাতে চান তবে যারা এই সম্পর্কে জানতে ইচ্ছুক তারা আপনাকে অনুসরণ করবে।

আপনি ইনস্টাগ্রামে যে ছবিটি পোস্ট করতে যাচ্ছেন তা খুব স্টাইলিশ হওয়া উচিত, যা সবাই মনে রাখতে পারে। এবং আপনি যদি স্টাইলিশভাবে ছবি তোলার বিরুদ্ধাচরণ করেন, তবে অসাধারণ ভঙ্গিতে ছবি তুলুন যা অন্যদের থেকে আলাদা। একটি ঐতিহ্যবাহী ছবি দেখলে অনেকেই আপনাকে অনুসরণ করবে না। তাই স্টাইলিশ এবং ভঙ্গি সঙ্গে সৃজনশীল হতে।

উদ্দেশ্য ফলোয়ার বাড়ানো, তাই আপনাকে কিছুটা কষ্ট করতে হবে। তবে বিষয়টি খুব কঠিন নয় এবং বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে অনেক সাধারণ জিনিসকে অসাধারণ করে তোলা যায়। আপনি যেমন নদীর ধারে বসে আছেন, রড নিয়ে মাছ ধরছেন, হাতে এক কাপ গরম চা! এটা শুনতে কি পাঠকের কাছে হাস্যকর মনে হয়? হ্যাঁ আর এটা আমার কাছে এত বাজে মনে হচ্ছে এটা আমার জন্যও নয়। এটি একটি উদাহরণ ছিল, আপনি চাইলে যেকোনো অসাধারণ ছবি পোস্ট করতে পারেন। এতে আপনার ফলোয়ার অনেক বেড়ে যাবে।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক আইডি থেকে মোবাইল নাম্বার বের করার নিয়ম

২. ইনস্টাগ্রাম এনগেজমেন্ট গ্রুপে যোগ দিন

ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার বাড়াতে অনেক কাজ করতে হয়। যাইহোক, ফলোয়ার বাড়াতে আপনি সহজেই ইনস্টাগ্রাম এনগেজমেন্ট গ্রুপে যোগ দিতে পারেন। ইনস্টাগ্রামে বিভিন্ন ধরণের এনগেজমেন্ট গ্রুপ রয়েছে, যেমন ভ্রমণ, ফ্যাশন, সৌন্দর্য ইত্যাদি। এই এনগেজমেন্ট গ্রুপগুলির প্রচুর ফলোয়ার রয়েছে যারা প্রায়শই বিভিন্ন পোস্ট পছন্দ করে এবং শেয়ার করে। এই গ্রুপগুলিতে যোগদান করে, এক থেকে দুই সপ্তাহের মধ্যে সহজেই ফলোয়ার বাড়ানো যায়।

কিন্তু, ফলোয়ার বাড়ানোর জন্য আপনাকে ফলোয়ার বিনিময় অনুসরণ করতে হবে। আপনি যদি তাদের অ্যাকাউন্ট অনুসরণ করেন তবেই লোকেরা আপনার অ্যাকাউন্ট অনুসরণ করবে। আপনি যদি ইনস্টাগ্রামের ফলোয়ার বাড়াতে চান তবে আপনাকে এই এনগেজমেন্ট গ্রুপের ফলোয়ারদের পেজটি ফলো করতে হবে, তারা আপনার পেজটি অনুসরণ করবে। ইনস্টাগ্রাম এনগেজমেন্ট গ্রুপগুলি অল্প সময়ের মধ্যে ফলোয়ার অর্জনের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে তবে দীর্ঘ সময়ের জন্য নয়।

৩. ইনস্টাগ্রামে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন

ছবির ক্যাপশনে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন। হ্যাশট্যাগ হল আরও বেশি লোকের প্রোফাইলে পৌঁছানোর কৌশল। আপনি যত বেশি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করবেন, ছবির ভিউ তত বেশি হবে এবং লাইক ও কমেন্টের ফলোয়ার তত বেশি হবে। আপনি প্রতি ছবিতে 15-20টি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করতে পারেন। যাইহোক, ছবি এবং ছোট বাক্য বা শব্দের সাথে মিলে যায় এমন হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন। হ্যাশট্যাগটি খুব দীর্ঘ বাক্য হলে, এটি সার্চে প্রদর্শিত হবে না। তাই ফলোয়ার বাড়াতে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন।

এখন সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা একটি লাইফস্টাইল হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইনস্টাগ্রামে আপনি প্রতিদিন হাজার হাজার হ্যাশট্যাগ দেখতে পারেন। ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার পাওয়ার আরেকটি উপায় হল যতটা সম্ভব হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা। ধরুন আপনি ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করেছেন এবং আপনি আপনার প্রথম মন্তব্যে 20টি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেছেন, তারপর লোকেরা যখনই আপনার পোস্টটি দেখবে তখনই হ্যাশট্যাগটি দেখতে পাবে।

এবং যদি আপনি সেই হ্যাশট্যাগগুলি পছন্দ করেন তবে আপনার অনুসরণকারীরা তাদের বন্ধুদের সেই হ্যাশট্যাগে ট্যাগ করবে এবং আপনার হ্যাশট্যাগগুলি জনপ্রিয় হওয়ার সাথে সাথে আপনার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে বৃদ্ধি পাবে। বিশেষ করে আপনার প্রথম কমেন্টে আপনি যে হ্যাশট্যাগগুলি লিখেছেন তা মনে রাখবেন। এখানে কিছু জনপ্রিয় ইনস্টাগ্রাম হ্যাশট্যাগ ওয়েবসাইট রয়েছেঃ best-hashtags.com, ingramer.com, tagsfinder.com, hashtagify.me।

আরও পড়ুনঃ টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম

৪. ছবির ক্যাপশন ব্যবহার করুন

প্রতিটি ছবিতে ক্যাপশন যোগ করুন, এটা আবশ্যক। আপনার চিন্তা, ব্যক্তিত্ব, রুচি সবই প্রকাশ পায় আপনার ক্যাপশনের মাধ্যমে। তাই খুব অসাধারণ একটি ক্যাপশন যোগ করুন। অনেক লোক অন্যের ক্যাপশন বা খুব সাধারণ ক্যাপশন কপি করে পেস্ট করে, এটি অন্যদের আপনার সম্পর্কে গড় ধারণা দেয়।

ক্যাপশন কপি করলে আপনার ফলোয়ার বাড়বে না। এর জন্য আপনাকে নিজের সম্পর্কে কিছু লিখতে হবে, বা ছবির সাথে মেলে এমন কিছু লিখতে হবে, কোনো ভুল না করেই। মনে রাখবেন যে আপনি কী লিখছেন এবং কীভাবে লিখছেন তা সবাই লক্ষ্য করে। তাই ঠিক লিখুন।

৫. ইনস্টাগ্রামে অন্যদের পোস্টগুলি পুনরায় পোস্ট করুন

আপনি ইনস্টাগ্রামে অন্যদের পোস্ট পুনরায় পোস্ট করে আপনার নিজের ফলোয়ার বাড়াতে পারেন। প্রতিদিন বিভিন্ন গ্রুপ বা পেজে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও বা পোস্ট শেয়ার করা হয়। আপনি যদি সেখান থেকে আপনার প্রোফাইলে একটি পোস্ট বা ভিডিও পুনরায় পোস্ট করেন, আপনি সহজেই কিছু ফলোয়ার বাড়াতে পারেন। 

উদাহরণস্বরূপ, ধরা যাক আপনি অন্য কারো পোস্ট পছন্দ করেছেন। আপনি আপনার প্রোফাইল থেকে সেই ভিডিও বা পোস্টটি পুনরায় পোস্ট করেছেন এবং আপনার প্রোফাইলে প্রধান পোস্টের একটি লিঙ্ক রেখেছেন৷

সুতরাং, লোকেরা যখন আপনার পোস্টটি দেখবে, তারা মূল পোস্ট দেখতে আপনার প্রফাইলে আসবে এবং কিছু লোক আপনার প্রোফাইল ফলো করবে। তাই রি-পোস্ট করে আপনি আপনার ফলোয়ার বাড়াতে পারেন। উল্লেখযোগ্যভাবে, Instagram এখন তার নীতি পরিবর্তন করেছে এবং এখন পুনরায় পোস্ট করার অনুমতি প্রয়োজন।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক ডাউনলোড করব কিভাবে | ফেসবুক ডাউনলোড সফটওয়্যার

৬. ব্লগ অ্যাক্সেস

আপনার যদি ব্যক্তিগত বা ব্যবসায়িক ব্লগ থাকে, আপনি সেই ওয়েবসাইটে আপনার Instagram ফটো পোস্ট করতে পারেন। আপনি ইনস্টাগ্রাম থেকে আপনার ওয়েবসাইটে ফটো আপলোড করলে, আপনার ওয়েবসাইটের ফলোয়াররা সেই ফটোগুলি দেখতে সক্ষম হবে। ফলস্বরূপ, তারা আপনাকে ইনস্টাগ্রামে অনুসরণ করবে।

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি আপনার Instagram প্রোফাইলের মাধ্যমে খাবারের ব্যবসা করেন এবং আপনি আপনার ফলোয়ার বাড়ানোর জন্য আপনার খাবারের ফটোগুলি আপনার ব্যক্তিগত ব্লগে আপলোড করেন, তাহলে আপনার ব্লগ পৃষ্ঠার ফলোয়াররা যদি আপনার খাবারের ছবি পছন্দ করে তাহলে আপনাকে ইনস্টাগ্রামে অনুসরণ করবে।

৭. প্রতিযোগীদের ফলো করুন

আপনি যদি ইনস্টাগ্রামে ব্যবসা করেন, আপনার অবশ্যই সেই ব্যবসায় প্রতিযোগী থাকতে হবে। আপনি আপনার ফলোয়ার বাড়ানোর জন্য প্রতিযোগীদের ফলোয়ারদের অনুসরণ করতে পারেন। ধরা যাক একটি প্রতিযোগিতায় আপনার 10,000 ফলোয়ার আছে, কিন্তু সব ফলোয়ার আপনার পণ্য পছন্দ করবে এমন কোনো গ্যারান্টি নেই। তাই আপনি যদি সব ফলোয়ারকে ফলো করেন তাহলে কিছু ফলোয়ার আপনার গ্রাহক হয়ে যাবে। 

ফলোয়ারদের গ্রাহক হওয়ার জন্য কিছু করতে হবেঃ মনে রাখবেন, আপনি যখন একজন ফলোয়ারের পোস্টে কমেন্ট করবেন, তখন আপনার ব্যবসায়িক মনোভাব প্রকাশ করবেন না। সব ফলোয়ারদের সেইম কমেন্ট করবেন না, কোনো ফলোয়ার আপনার পোস্টে কোনো প্রশ্ন করলে তাকে উত্তর দিতে হবে, আপনি পোস্ট নমুনা হিসাবে প্রতিযোগীদের নিতে পারেন।

৮. লোকেশন ট্যাগ ব্যবহার করে

লোকেশন ট্যাগের সাহায্যে, আপনি যে এলাকা বা শহরে আছেন তা আপনার ছবি বা ভিডিও থেকে সহজেই প্রকাশ করা হয়। লোকেশন ট্যাগ ব্যবহার করে আপনি আপনার কাছের এলাকার মানুষের কাল সম্পর্কে জানতে পারবেন। আপনি যদি ইনস্টাগ্রামে ব্যবসা করেন এবং আপনি একজন স্থানীয় ব্যবসায়ী হন, তাহলে লোকেশন ট্যাগ ব্যবহার করে আপনি সহজেই আপনার এলাকার লোকজনকে আপনার গ্রাহক করতে পারেন। এছাড়াও আপনি আপনার Instagram গল্পে লোকেশন ট্যাগ ব্যবহার করতে পারেন এবং আপনার Instagram ফলোয়ার বাড়াতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুকে বেশি লাইক পাওয়ার উপায়

৯. ভালভাবে BIO লিখুন

আপনার অ্যাকাউন্ট বায়োতে নিজের সম্পর্কে লিখুন, আপনি কী করেন, আপনি কী পছন্দ করেন। যাতে কেউ আপনার প্রোফাইল ভিজিট করলে তার কাছে আপনার সম্পর্কে ভালো তথ্য থাকে। এখানে এমন কিছু লিখবেন না যা একটি খারাপ ইমেজ তৈরি করে, যেমন অনেকে তাদের ফেসবুক বায়োতে লেখেন "আমি একটি খারাপ ছেলে!" মন যা চায় তাই করি, দূরে থাক! যেমন এটি একটি বায়ো।

আপনি আপনার বায়োতে যা খুশি লিখতে পারেন, এটা আপনার ব্যাপার। কিন্তু আপনি যখন ফলোয়ার বাড়াতে চান, তখন আপনাকে নিজের সম্পর্কে কিছু দিতে হবে যাতে অন্যরা আপনার সম্পর্কে খারাপ কিছু না ভাবে। কিন্তু তার মানে এই নয় যে আপনি মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন, আপনি বই পড়েননি, কিন্তু আপনি একজন বইপ্রেমী, আপনি হয়তো লিখেছেন যে আপনি একজন অভিনেতা, কিন্তু আপনি অভিনয় করেন না। আপনার গুণাবলী সম্পর্কে চিন্তা করুন এবং তাদের বায়োতে উপস্থাপন করুন। গুণমান যাই হোক না কেন, একটি সুন্দর উপস্থাপনা আপনার ফলোয়ার বাড়াবে।

১০. গল্প আপডেট করুন

ফেসবুকের মত প্রতিদিন গল্প আপডেট করুন। প্রতিদিন কমপক্ষে 1-2টি গল্প দিন। যাতে সবাই আপনার দৈনন্দিন কাজ এবং জীবনযাত্রা সম্পর্কে জানতে পারে। এতে আপনার প্রতি মানুষের আগ্রহ বাড়বে এবং আপনার ফলোয়ারও বাড়বে।

১০. ইনস্টাগ্রাম রিল তৈরি করা

আপনি Instagram এ একটি ভিডিও রিল আপলোড করতে পারেন। এখানে বিভিন্ন বিষয়ের উপর ভিডিও রিল দিন, আপনি প্রভাবশালীদের ভিডিও রিল দিতে পারেন, সামাজিক কার্যকলাপ, দরকারী বিষয় বা আপনার যেকোন কার্যকলাপ। কিন্তু এটা অদ্ভুত, কুৎসিত হতে হবে না. আপনার ভিডিও ভালো লাগলে আপনার ফলোয়ার দিন দিন বাড়তে থাকবে।

১২. অন্যদের পোস্টের উত্তর দিন

যারা আপনাকে অনুসরণ করে তাদের পোস্টে লাইক এবং কমেন্ট করুন। আপনি যদি আপনার পোস্টে কমেন্ট করেন, অনুগ্রহ করে মতামত দিন। এবং আপনি যদি অনেক লোককে অনুসরণ করেন তবে সম্পর্ক ভাল থাকবে এবং আপনার ফলোয়ার বাড়তে থাকবে।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক পেজের প্রচার ও প্রসার বাড়ানোর উপায়

কীভাবে ইনস্টাগ্রাম অ্যাপে ফলোয়ার বাড়ানো যায় - ইনস্টাগ্রাম অটো ফলোয়ার

অনেকেই জানেন না যে কীভাবে ইনস্টাগ্রামে অটো ফলোয়ার পাওয়া যায় বা কীভাবে বিনামূল্যে প্রতিদিন ইনস্টাগ্রামে 1000 ফলোয়ার পাওয়া যায়। আর না জানার কারণে অনেকেই মাসের পর মাস অতিবাহিত করেও ফলোয়ারের সংখ্যা বাড়াতে পারছেন না।

যে কারণে কিছু সময় ইনস্টাগ্রাম চালানোর পর অনেকেই চলে গেছেন। তবে হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই। আজকের বিস্তারিত আর্টিকেলে, আমি আপনার ইনস্টাগ্রাম থেকে বিনামূল্যে ফলোয়ার পেতে সেরা কিছু ওয়েবসাইট শেয়ার করব। যেখান থেকে আপনি সহজেই প্রতিদিন কমপক্ষে 500 থেকে 1000 হাজার ফলোয়ার পেতে পারেন।

ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার পাওয়ার দুটি প্রধান উপায় রয়েছে। প্রথমে আপনাকে টাকা দিয়ে বা খরচ করে অ্যাকাউন্ট প্রচার করতে হবে। এর ফলে আপনার অ্যাকাউন্ট লাখ লাখ মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে। এবং আরেকটি বিনামূল্যে উপায়. কিন্তু আজ আমি আলোচনা করব কিভাবে বিনামূল্যে ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার পাওয়া যায়।

ইনস্টাগ্রাম বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া। বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় সব দেশের মানুষই ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করে। বর্তমানে বিশ্বে এক বিলিয়নেরও বেশি ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী রয়েছে। 2020 সাল থেকে, ব্যবহারকারীর সংখ্যা খুব উচ্চ হারে বাড়ছে। কিন্তু যাদের নতুন ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট আছে তারা কয়েক মাসে এক হাজার ফলোয়ার বাড়াতে পারবেন না।

কারণ ইনস্টাগ্রাম মূলত সেলিব্রিটি বা পরিচিতদের জন্য। এ কারণে মানুষ তাকে আগে থেকেই চেনে। তাই তাদের অনুগামীদের নিয়ে চিন্তা করার দরকার নেই। ইনস্টাগ্রামের মতো ফেসবুকে লাইক এবং ফলোয়ার পাওয়া এতটা সহজ নয়। এর কারণ হলো, আজকাল প্রায় সবারই ফেসবুকে একটি বা দুটি অ্যাকাউন্ট রয়েছে। তাই ফেসবুকে খুব দ্রুত পরিচিত হতে পারেন।

তবে নিয়মিত পোস্ট, ভিডিও, ছবি আপলোড করলে ফলোয়ার বাড়বে। এর জন্য অনেক ধৈর্যের প্রয়োজন। যাইহোক, বেশিরভাগই এই ঝামেলা করতে চান না। তাই আজ আমি আপনাকে তিনটি সেরা ওয়েবসাইটের সাথে পরিচয় করিয়ে দেব যেখান থেকে আপনি প্রতিদিন ইনস্টাগ্রামে হাজার হাজার ফ্রী ফলোয়ার পাবেন এবং এটি 100% নিশ্চিত উপায়। তো চলুন দেখে নেওয়া যাকঃ ১। Like4like.ogr ২। Kingdomlikes.com ৩। Followfast.com

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক আইডি ভেরিফাই করার নিয়ম | ফেসবুক ভেরিফাই করার নিয়ম ২০২১

1. Like4like

ইনস্টাগ্রামে প্রতিদিন হাজার হাজার লাইক পাওয়ার সেরা ওয়েবসাইটগুলির মধ্যে একটি হল Like4Like। Like4Like এর সাথে কাজ করে, আপনি প্রতিদিন কমপক্ষে 500-1000 ফলোয়ার পেতে পারেন। এটি এমন একটি সাইট যা 100% বিশ্বস্ত। অনেক বাংলাদেশি এই সাইটে কাজ করে। সবচেয়ে সুবিধাজনক বিষয় হল এখান থেকে ফলোয়ার পেতে আপনার Instagram ID দিয়ে লগ ইন করার দরকার নেই।

Like4Like এ কিভাবে কাজ করবেন?

আপনি যদি Like4like নিয়ে কাজ করতে চান, তাহলে আপনাকে প্রথমে একটি ই-মেইল, পাসওয়ার্ড এবং একটি ব্যবহারকারীর নাম দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের পর, আপনার মেইলে একটি ভেরিফিকেশন মেইল পাঠানো হবে। তারপর আপনাকে মেইলটি যাচাই করতে হবে। আপনি যদি মেইল ভেরিফিকেশন করেন, তাহলে আপনি সাথে সাথে 40টি ফ্রি ক্রেডিট পাবেন। তারপর ই-মেইল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করুন।

আপনি কি করতে পারেন?

Like4Like এ, আপনি অনেক উপায়ে কাজ করে আয় করতে পারেন। যেমন ফেসবুক পেজ লাইক, ফেসবুক ফলো, ইউটিউব লাইক, ইউটিউব সাবস্ক্রাইব, ইউটিউব ভিউ, ইনস্টাগ্রাম লাইক, ইনস্টাগ্রাম ফলো, টুইটার লাইক, টুইটার ফলো, Pinterest ফলো, Pinterest সেভ এবং আরও অনেক কিছু।

প্রতিটি লাইক, ফলো, সাবস্ক্রাইব করার জন্য আপনি সর্বোচ্চ 1 থেকে 20টি ক্রেডিট পেতে পারেন। এইভাবে, যখন আপনার ক্রেডিট জমা হয়, আপনাকে আপনার Instagram ব্যবহারকারীর নাম সহ একটি ফলোয়ার পেতে হবে।

এটি করতে প্রথমে Add and Manage Pages এ ক্লিক করুন। তারপর Follow Instagram এ ক্লিক করুন। Instagram ফলোতে ক্লিক করার পরে আপনাকে আপনার Instagram ব্যবহারকারীর নাম পেস্ট করতে হবে। তারপর আপনাকে বেছে নিতে হবে আপনি প্রতিটি অনুসরণের জন্য কত ক্রেডিট দিতে চান। সাধারণত 2 দিলে ভালো হয়। আপনি চাইলে বাড়িতে আরও দিতে পারেন। তারপর শীঘ্রই আপনার Instagram অ্যাকাউন্ট চেক করুন। দেখবেন ফলোয়ার খুব দ্রুত বাড়ছে। এবং এরাই 100% আসল ফলোয়ার। যাইহোক, কখনও কখনও কিছু মানুষ আনফলো করতে পারেন কিন্তু সামান্য।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক ফেক আইডি চেনার উপায় | ফেসবুকে ফেক আইডি চেনার সহজ উপায়

2. Kingdomlikes.com

Kingdom Likes.com হল বিনামূল্যে ইনস্টাগ্রামে লাইক এবং ফলোয়ার বাড়ানোর জন্য আরেকটি দুর্দান্ত সাইট। এটি একটি নির্ভরযোগ্য সাইট। এখান থেকে কাজ করে আপনি সহজেই প্রতিদিন 500-1000 লাইক পেতে পারেন।

কিংডম লাইক নিয়ে কিভাবে কাজ করবেন?

কাজ করতে চাইলে অন্য আট থেকে দশটি সাইটের মতো নিবন্ধন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের পর মেইল ভেরিফিকেশন করতে হবে। মেইল ভেরিফিকেশনের পর আপনি কাজ শুরু করতে পারেন। আপনি এই সাইটে আপনার আগের সাইটের মত কাজ করতে পারেন যেমন facebook page like, facebook follow, youtube like, youtube subscribe, youtube view, instagram like, instagram follow, twitter like, twitter follow, pintrest follow, pintrest save ইত্যাদি।

আপনি প্রতিটি লাইক অনুসরণ করার জন্য 8-20 পর্যন্ত কয়েন উপার্জন করতে পারেন। এখন আপনার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার পেতে আপনাকে বাম পাশে ADD PAGE এ ক্লিক করতে হবে। তারপরে আপনাকে Instagram এ আপনার ব্যবহারকারীর নাম প্রদান করতে হবে। ব্যবহারকারীর নাম পেস্ট করার পরে, আপনাকে প্রতিটি লাইকের জন্য কতগুলি কয়েন দিতে চান তা নির্বাচন করতে হবে? সাধারণত 10 যথেষ্ট। তারপর প্রতিটি অনুসরণের জন্য আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে 10টি কয়েন কেটে নেওয়া হবে।

3. Followfast.com

followfast.com থেকে আপনি সহজেই ইনস্টাগ্রামে লাইক ও ফলো করতে পারেন। যদিও মজার ব্যাপার হল আপনি এই সাইট থেকেও ইনকাম করতে পারবেন। ইনকাম করতে হলে আপনাকে প্রচুর কয়েন আয় করতে হবে। আপনি যখন প্রচুর কয়েন উপার্জন করেন, তখন আপনি সেই কয়েনগুলিকে ডলারে রূপান্তর করতে পারেন। তারা সাধারণত প্রতি সপ্তাহে অর্থ প্রদান করে।

আপনাকে প্রথমে নিবন্ধন করতে হবে। তারপর মেইলে একটি ভেরিফিকেশন মেইল পাঠানো হবে। আপনি এটি স্প্যামে খুঁজে পেতে পারেন। তারপর মেইলে ক্লিক করে ভেরিফাই করতে হবে। এখান থেকে আপনি আগের সাইটগুলোর মতই সব কাজ করতে পারবেন। কিন্তু এখানে আপনি প্রতিটি ফেসবুক পেজ লাইক করার জন্য 30-50 কয়েন পাবেন। এছাড়াও, আপনি অন্যান্য কাজের জন্য 10-50 পর্যন্ত কয়েন পাবেন।

আপনার ইনস্টাগ্রামে লাইক পেতে প্রথমে অ্যাড বা ম্যানেজ সাইট এ ক্লিক করুন এবং পেস্ট করুন। তারপর আপনাকে কয়েনটি নির্বাচন করতে হবে। 29টি কয়েন দিলে ভালো হয়। তাই আপনার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ফলোয়ার খুব তাড়াতাড়ি বাড়বে।

আরও পড়ুনঃ ইউটিউব থেকে আয় কি হালাল

অবশেষে

তাই আশা করি আপনি যদি এই টিপসগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করেন তাহলে খুব অল্প সময়ের মধ্যে আপনার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার বাড়বে। এই পদ্ধতিগুলি ছাড়াও, আরও অনেক পদ্ধতি রয়েছে যা ব্যবহার করে আপনি আপনার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার বাড়াতে পারেন।

ইনস্টাগ্রাম খুবই জনপ্রিয় একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, দিন দিন ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়ছে, কিন্তু ফেসবুকের মতো নয়, বা ভিডিওর জন্য টিক টক তৈরি করতে পছন্দ করা লোকেদের থেকে অনেক পিছিয়ে রয়েছে। তবে আপনি চাইলে ইনস্টাগ্রামে টিক টকের মতো মজার ভিডিও বানাতে পারেন। 

ইনস্টাগ্রাম বর্তমানে এমন নতুন ফিচার আপডেট করছে। এবং Instagram এর নিরাপত্তাও ভাল তাই আপনি আপনার দৈনন্দিন জীবন সবার সাথে শেয়ার করতে Instagram ব্যবহার করতে পারেন। আর আপনি যদি ফলোয়ার বাড়াতে চান তাহলে উপরের কৌশলগুলো অনুসরণ করুন। আপনি অবশ্যই ভালো ফল পাবেন।

আমরা আশা করি আপনি পোস্টটি থেকে ইনস্টাগ্রাম থেকে দরকারী তথ্য খুঁজে পেয়েছেন। ইনস্টাগ্রামে আপনার ফলোয়ার বাড়ানোর বিষয়ে আপনার যদি কোনও কমেন্ট বা প্রশ্ন থাকে তবে আপনি মন্তব্য করে আমাদের জানাতে পারেন। আমরা আপনার মতামতকে গুরুত্ব সহকারে নেব এবং দ্রুত সাড়া দেওয়ার চেষ্টা করব। আজকের মত এখানেই শেষ করছি।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক পেজ থেকে আয় করার উপায় | ফেসবুক পেজ থেকে টাকা ইনকাম করার নিয়ম

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?