Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/06/Earn-money-by-selling-pictures-online.html

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় | অনলাইনে ছবি বিক্রি করে টাকা আয়

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে টাকা আয় ২০২১ — ফটোগ্রাফি করে অনলাইনে ছবি বিক্রি করার মাধ্যমে অনলাইনে ইনকাম করার জন্য ফটোগ্রাফারদের বর্তমানে অনেক ধরনের সুযোগ আছে। আপনি ফটোগ্রাফির যে কাজটি শখের বশে করছেন, আপনি চাইলেই আপনার শখ মেটানোর পাশপাশি অনলাইনে ছবি বিক্রি করে ভালোমানের টাকা ইনকাম করতে পারবেন। সবথেকে মজার বিষয় হ'ল যে ফটোগ্রাফি করে আয় করার জন্যে আপনার তেমন কোনো অভীজ্ঞতার প্রয়োজন হবে না। আপনার যদি একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা থাকে এবং টুকটাক ফটো এডিটিং এর কাজ জানা থাকে তবে বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেসের মাধ্যমে আপনার তোলা ভালোমানের ছবিগুলো বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয়

মূলত ফটোগ্রাফি হচ্ছে বেশ শখের একটি কাজ। আমাদের প্রায় প্রতিদিন এখন শখের বশে বিভিন্ন রকমের ছবি তুলে সেইগুলো ইনস্ট্রগামে ও ফেসবুক অথবা অন্যান্য সাইটে আপলোড করি। কিন্তু আসলে সেই সাইটগুলো থেকে আমাদের কোনোরকম বেনিফিট হয়না। অথচ আপনার যদি একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা থাকে সেটি ব্যবহার করে নিজের ছবি তোলার পাশাপাশি প্রকৃতির বিভিন্ন ধরনের দৃশ্য সহ আরও বিভিন্ন ধরনের আকর্ষণীয় জিনিসগুলিকে নিয়ে ফটোগ্রাফি করে খুব সহজেই অনলাইনে ছবি বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

আজকের এই আর্টিকেলে আমরা ফটোগ্রাফির মাধ্যমে অনলাইন থেকে টাকা ইনকামের বিস্তারিত বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করবো। যদি আপনি একজন ফটোগ্রাফার হয়ে থাকেন অথবা ছবি তোলা পছন্দ করেন, তবে আপনি কোন ধরনের ছবি তুললে বেশি টাকা আয় করতে পারবেন এবং কোন কোন মার্কেটপ্লেসে ছবি বিক্রি করতে পারবেন, ছবি বিক্রি করার জন্য আপনাকে কি কি করতে হবে ও ছবি বিক্রি করে কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন ইত্যাদি সকল বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

কিভাবে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করবেন | অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয়

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে ইনকাম করার জন্যে আপনাকে কোনো ক্লায়েন্ট বা বায়ার খোজার প্রয়োজন হবে না। আপনার কাছে যদি ভালোমানের ছবি থাকে সেগুলো ঘরে বসে থেকে অনলাইনে বিভিন্ন ছবি শেয়ারিং মার্কেটপ্লেস আছে বা স্টক ইমেজ সাইটগুলিতে আপলোড করে আপনি ছবি বিক্রি করতে পারবেন।

এই ক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমে কোনো একটি অথবা দুটি স্টক ইমেজ মার্কেটপ্লেসগুলোতে ফ্রি একটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে আর সেখানে আপনার ভালোমানের কয়েকটি ছবি সেয়ার করতে হবে। ছবি আপলোড করার পরে ওয়েবসাইট হতে আপনার ছবিগুলির কোয়ালিটি বা গুণগতমান, পিক্সেল এবং ইত্যাদি আনুষাঙ্গিক বিষয়সমূহ যাচাই-বাছাই করার পরে তাদের কাছে যদি ছবি ভালো মনে হয়, তবে তারা আপনার প্রোফাইলটি অনুমোদন দিবে। আর আপনার প্রোফাইলটি অনুমোদন হলেই তখন আপনি আপনার ছবিগুলোকে আপলোড করতে পারবেন।

ছবি আপলোড করার সঙ্গে সঙ্গে মানুষ আপনার ছবি দেখতে অথবা ক্রয় করতে পারবে না। কেননা ছবি আপলোড করার পরে প্রথমে স্টাক ইমেজ ওয়েবসাইট হতে আপনার আপলোড করা প্রতিটি ছবি যাচাই-বাছাই করা হবে। যাচাই করার পরে যদি ছবি ভালো হয়ে থাকে তবে তারা অবশ্যই আপনার ছবি আপ্প্রুভ করে নিবে। অনুমোদন হওয়ার পরে তখন আপনার ছবি সকলে দেখতে পারবে এবং কারও পছন্দ হলে ছবিটি কিনে নিবে। এই ক্ষেত্রে বিক্রয়কৃত ছবি থেকে আপনাকে কমিশন আকারে কিছু টাকা প্রদান করবে। মূলত এইভাবে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে টাকা ইনকাম করা হয়। এই বিষয় নিয়ে নিচে আমরা আরও বিস্তারিত আলোচনা করছি।

আরও পড়ুনঃ অনলাইন থেকে আয় করার সহজ উপায়

কোন ধরনের ছবি তুলবেন | মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয়

ফটোগ্রাফি করার মাধ্যমে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার জন্যে কিছু ক্যাটাগরির ছবি আছে যেগুলোর ডিমান্ড মার্কেটপ্লেসে অনেক বেশি। আপনি সকল রকমের ছবি না তুলে শুধুমাত্র কিছু নির্দিষ্ট ক্যাটাগরির ছবি নিয়ে কাজ করুন। এই ক্ষেত্রে আপনি নিম্নে উল্লেখ করা ক্যাটাগরির ছবি নিয়ে ফটোগ্রাফি করে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

এবস্ট্রাক্ট

এটি হচ্ছে এক রকমের ক্লোজ ফটোগ্রাফি। সাধারণত খুবই ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বিষয় নিয়ে এই ধরনের ফটোগ্রাফাররা কাজ করেন। যেমন- চিত্রের পাতাটি দেখে নিন। এই চিত্রের পাতার মাঝে থাকা শিরা ও উপশিরা পর্যন্ত সবকিছু দেখা যাচ্ছে। খুবই ভালোমানের ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে জুম করে এই ধরনের ছবি তোলা লাগে।

আর্ট - চিত্রাঙ্কন

অনেক ধরমের মিউজিয়ামে গেলে আপনি অনেক সুন্দর সুন্দর হাতে আকা ছবি দেখতে পাবেন। এই ধরনের আর্ট করা ছবি দেখতে খুবই আকর্ষণীয় হয়ে থাকে। এ ধরনের ছবির প্রতি মানুষের আলাদা অন্যরকম একটা ফিলিংস থাকে। আপনি বিভিন্ন রকমের আর্ট করা ছবিগুলি আপনার ক্যামেরায় ফ্রেমে বন্দি করে এই কাজটি করতে পারেন।

ফ্যাশন

ফটোগ্রাফিতে ফ্যাশন ডিজাইন বিষয়টি অনেক জনপ্রিয়। অনলাাইন হোক অথবা অফলাইন উভয় মার্কেটে এই ধরনের ফটোগ্রাফারদের অনেক চাহিদা আছে। বিভিন্ন নামকরা মডেল এবং অভিনয় শিল্পিদের ছবি তোলে সেগুলোকে অনলাইনে সাবমিট করতে পারেন। এছাড়াও বিভিন্ন ফ্যাশন ডিজাইন এর ফটোগ্রাফার হয়েও বিভিন্ন কোম্পানির কাছএ থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

নেচার বা প্রকৃতি

প্রকৃতির প্রতি মানুষের আলাদা একটা টান আছে। এই ধরনের ছবিগুলি অনলাইনে অনেক বেশি পরিমাণে বিক্রি হয়ে থাকে। বিশেষ করে আমাদের দেশ হচ্ছে নদীমাতৃক চিরসবুজের দেশ যার কারণে প্রকৃতি নিয়ে ফটোগ্রাফাররা খুব সহজেই কাজ করতে পারেন। কেননা হাতের কাছে প্রকৃতির দৃশ্য এবং পাখপাখালি পেয়ে যাওয়ার কারণে ছবি তোলার জন্য অনেক বেশি কষ্ট করার প্রয়োজন হয়না।

আরও পড়ুনঃ মোবাইল দিয়ে অনলাইনে আয় করার সহজ উপায়

ট্রাভেল বা ভ্রমন

অনেক আছেন যে তারা ভ্রমন প্রিয় মানুষ তারা এই কাজটি খুবই সহজে করতে পারেন। আপনি দেশ ও বিদেশর বিভিন্ন যায়গাতে ভ্রমন করার সময়ে সুন্দর সুন্দর জায়গা গুলির দৃশ্য আপনার ক্যামেরাতে তুলে রাখতে পারেন। এই ক্ষেত্রে আপনি দর্শণীয় স্থানের ছবিগুলোকে ভালো করে তুলতে পারলে সেই ছবি গুলোকে অনলাইনে সহজেই বিক্রি করতে পারবেন।

ফুড (খাবার)

এটিও খুবই সহজ একটি কাজ। আমরা প্রতিদিন প্রায় বিভিন্ন হোটেল ও রেষ্টুরেন্টে খাওয়ার সময়ে সেলফি তুলে সেটি ফেসবুকে অথবা অন্যান্য সোশ্যাল সাইটে আপলোড করি। আপনি এই ধরনের বিভিন্ন দেশি-বিদেশি আনকমন সব খাবারের ছবি তুলে সেগুলোকে অনলাইনে বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারবেন।

ব্যবসা

বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের লোকজন-কর্মচারীরা কিভাবে কাজ করেন বা তাদের কাজের গুরুত্বপূর্ণ কোনো মহুর্তের ছবিগুলোকে তুলে ছবি বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যেমন- মনে করুন ব্যবসায়িরা কি ধরনের মিটিং করেছেন, তারা কিভাবে কাজ করছে, অফিস ম্যানেজমেন্ট সহ ব্যবসা সংক্রান্ত আরও বিভিন্ন বিষয়ে ফটোগ্রাফি করতে পারেন।

কালচার ও লাইফস্টাইল

বিশ্বের এক একটি দেশের মানুষের এক একেক রকম কালচার, সংস্কৃতি, চলাফেরা এবং জীবন ব্যবস্থাও এক এক রকমের। আপনি দেশ ও দেশের বাহিরে ভ্রমন করে থাকলে বিভিন্ন দেশের মানুষের জীবন-জীবিকা নিয়ে ফটোগ্রাফি করতে পারেন। এই ধরনের ছবিগুলি মানুষ দেখতে ও সংগ্রহ করে রাখতে খুবই পছন্দ করেন।

ভালোবাসা

ভালোবাসা এবং আবেগপূর্ণ ছবিগুলো মানুষকে সবসময় আকৃষ্ট করে থাকে। ছবির মধ্যে মানুষের আবেগ, অনুভূতি এবং ভালোবাসা ফুটে উঠে এমন মুহুর্তের ছবি আপনি তুলতে পারলে সেগুলোকে আপনি খুবই সহজেই অনলাইনে বিক্রি করার মাধ্যমে ভালো অঙ্কের টাকা ইনকাম করতে পারবেন। উল্লেখ্য, রানাপ্লাজা ধসে পড়ার পরে সেই নারী এবং পুরুষের আলিঙ্গনের ছবিটিকে আপনি অনুসরণ করতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ বিজ্ঞাপন দেখে টাকা ইনকাম করুন

বিনোদন

বিনোদন পছন্দ করেন না এমন মানুষ এখন খুব কমসংখ্যক আছে। ফুটপাত থেকে শুরু করে অনেক ভালো ভালো মার্কেটে গেলে আপনি বিভিন্ন বিনোদন মূলক ছবি টানানো দেখতে পারবেন। এই ধরনের ছবিগুলোকে অনলাইন থেকে ক্রয় করার পরে ব্যবসায়িরা প্রিন্ট করে মার্কেটে বিক্রি করে থাকেন। আপনি চাইলে বিনোদনমূলক ছবি নিয়ে ফটোগ্রাফি করে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারেন।

অনলাইনে কারা ছবি কিনে | ফটোগ্রাফি করে ইনকাম

এতক্ষণ পর্যন্ত আমি বিভিন্ন রকমের ছবি নিয়ে আলোচনা করলাম এবং কোন কোন ধরনের ছবিগুলাের মার্কেটপ্লেসে ডিমান্ড বেশি, কিন্তু আপনার মাথায় হয়তো নিশ্চয় এই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে যে, এই সকল ছবি কে বা কারা ক্রয় করে। যেহেতু গুগলে সার্চ করলেই অসংখ্য ছবি পাওয়া যায়, তবে মানুষ সেই ছবি গুলো ব্যবহার না করে আমার ছবি অযথা অনলাইন থেকে কিনবে কেন?

মূলত উন্নতমানের কোম্পানি এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো কখনো অন্যের কোন ছবিকে কমার্শিয়াল কাজে ব্যবহার করেনা। কেননা অন্যের ছবি ব্যবহার করার ফলে প্রতিষ্ঠানের ভ্যালু এমনিতেই কমতে থাকে। মূলত সেই কারণের জন্য উন্নতমানের কোম্পানিগুলি অনলাইন মার্কেটপ্লেস থেকে ভালোমানের ইউনিক ছবি ক্রয় করে তাদের প্রয়জনীয় কাজে ব্যবহার করেন। 

এছাড়াও উন্নত সকল দেশের মানুষ আমাদের দেশের মতো করে যেকোনো ধরনের কপিরাইট ছবি ব্যবহার করতে পারেন না। কেননা উন্নত দেশের কপিরাইট আইন অনেক কঠোর। সামান্য একটি কপিরাইট ছবি ব্যবহার করার জন্যে হতে পারে অনেক টাকা জরিমানা। আমরা গুগল থেকে বিভিন্ন ধরনের ছবি যেই ভাবে ওয়েবসাইট অথবা ব্লগে ব্যবহার করে থাকি ঠিক তেমনটি উন্নত দেশের মানুষগুলো সেটা করতে পারেনা। কেননা ছবির প্রকৃত মালিক ওয়েবসাইট বা ব্লগের বিরুদ্ধে মামলা করলে অনেক টাকা জরিমান দিতে হয়। সেই জন্য উন্নত রাষ্ট্রের মানুষ সরাসরি গুগল থেকে ছবি ব্যবহার না করে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে ছবি ক্রয় করে ব্যবহার করে।

ছবি বিক্রি করে কত টাকা আয় করা যায়

আপনি আপনার ছবিটিকে বিক্রি করে কমিশন অনুযায়ী টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অর্থাৎ আপনার প্রত্যেকটি ছবি যেই দামে বিক্রি করা হবে তার সম্পূর্ণ টাকা আপনি কিন্ত নিজে পাবেন না। আপনি যে সাইটের মাধ্যমে আপনার ছবিটিকে বিক্রি করবেন সেই ওয়েবসাইটে আপনার ছবি বিক্রি করার ৬০ থেকে ৭০% টাকা তারা রেখে দেবে আর আপনাকে বাদ বাকি টাকা দেবে।

মূলত প্রতিটি ওয়েবসাইট এর বিভিন্ন সাবস্ক্রিপশন প্যাকের মাধ্যমে ছবি বিক্রি করে থাকে। প্রতিদিন অথবা মাসিক ছবির সংখ্যার ওপরে প্যাকেজের দাম নির্ধারিত হয়। বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস অর্থাৎ ওয়েবসাইট ভেদে ছবি বিক্রি করার ২০-৭০% পর্যন্ত ছবির মালিককে সম্মানী হিসাবে দেওয়া হয়। তবে যদি একজন বিক্রেতা একটি নির্দিষ্ট ছবি শুধুমাত্র একটি নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে বিক্রি করে থাকেন, তবে আরো বেশি সম্মানী পেতে পারেন, আর যদি একটি মাত্র নির্দিষ্ট ছবিকে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিক্রি করে থাকে, তবে সম্মানীর পরিমাণ কমতে পারে। সম্মানীর পরিমাণ যদি কম হয় আর ছবি বিক্রির পরিমাণ যদি বেশি হয় তাহলে কোনো নির্দিষ্ট মার্কেটপ্লেস থেকে বেশি টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

আরও পড়ুনঃ গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস

হ্যাঁ আরেকটি মজার বিষয় হ'ল আপনার একটি ছবি যতবেশি বিক্রি করা হবে আপনি ঠিক ততবার টাকা পেয়ে যাবেন। আপনার কোন ছবি যদি ১০০ বার বিক্রি হয়, তবে আপনাকে প্রত্যেকটি বিক্রির জন্যে হিসেব করে টাকা দেওয়া হবে। এই ক্ষেত্রে আপনার ছবির মূল্য যদি হয় ৫ ডলার আর ছবিটি যদি ১০০ বার বিক্রি করা হয়, তবে আপনাকে ৩০% করে টাকা প্রদান করা হলে আপনি ৫×৩০%×১০০=১৫০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন। এইভাবে আপনার প্রোফাইলে শত শত থেকে হাজার হাজার ছবি থাকলে আপনি প্রতি মাসে অনেক টাকা ফটোগ্রাফি করার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। 

ছবি কোথায় বিক্রি করবেন | অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করা সাইট

এতক্ষণ শুনলেন অনলাইনে ছবি বিক্রি করে কত টাকা আয় করা যায়। কিন্ত সবথেকে বড় প্রশ্ন হচ্ছে যে এই ছবিগুলো কোন মার্কেটপ্লেসে বিক্রি করবেন। আমি তোহ অনেক ভালোমানের একজন ফটোগ্রাফার, আমার কাছে আছে অনেক ছবি কিন্ত এখন আমি এই ছবিগুলাে কোথায় বিক্রি করবো? সব বলবো একটু ধের্য ধারণ করুন, আজ আমি আপনাকে বিশ্বর জনপ্রিয় সেরা ৫টি মার্কেটিপ্লেস এর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেবো, যে মার্কেটপ্লেসে আপনার ছবিগুলোকে বিক্রি করে ফটোগ্রাফির মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

সাটারস্টক - Shutterstock.Com | অনলাইনে ছবি বিক্রি

সাটারস্টক হ'ল বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় ফটোগ্রাফি মার্কেটপ্লেস। তাদের এই ওয়েবসাইটে প্রতি মাসে প্রায় 85 মিলিয়ন লোক ভিজিট করে থাকে। সাটারস্টক প্রায় ১৫ বছর ধরে ডিজিটাল মার্কেটে ছবি বিক্রি করে আসছে। তাদের স্টকে প্রায় ২০০ মিলিয়নেরও বেশি ছবি, ভিডিও ফুটেজ এবং মিউজিক আছে। অনলাইনে তাদের মিলয়ন মিলিয়ন কাস্টোমার আছে।

আপনি যদি খুব ভালোমানের একজন ফটোগ্রাফার হয়ে থাকেন তবে এই মার্কেটপ্লেসে আপনার ভালোমানের ছবিগুলোকে আপলোড করে প্রতেকমাসে একটি স্মার্ট এমাউন্ট ইনকাম করে নিতে পারবেন। সাটারস্টকের ভাষ্যমতে তারা অনলাইনের মাধ্যমে ছবি বিক্রি করে প্রায় ৫০০ মিলিয়ন এরও বেশি ডলার ইনকাম করে নিয়েছে। মূলত তারা একজন ছবির মালিককে ছবি বিক্রি করার ২০ থেকে ৩০% টাকা পেমেন্ট করে থাকে।

আরও পড়ুনঃ ইন্সটাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার উপায়

ফটোলিয়া - Fotolia.Com | অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করুন

ফটোলিয়া হ'ল অডোবি কোম্পানির একটি ফটোগ্রাফি ওয়েবসাইট। তারা মূলত ২০১৯ সালে ফটো মার্কেটপ্লেসটি লঞ্চ করে। এই সাইটটি নামকরা কোম্পানি এডোবির হওয়ার কারণে খুব অল্প সময়ে পুরো বিশ্বে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। সবথেকে মজার বিষয়টি হচ্ছে ফটোলিয়া এখনো নতুন হওয়ার ফলে খুব সহজেই ফটো আপলোড করার অনুমোদন পাওয়া যায়।

প্রত্যেকমাসে ফটোলিয়া ওয়েবসাইটে প্রায় ৪৫ মিলিয়ন লোক ভিজিট করে থাকে। এই ওয়েবসাইটের ছবিগুলো বেশ ভালোমানের হয়ে থাকে ও এখানে ছবি বিক্রি করলে বেশ ভালো অঙ্কের দাম পাওয়া যায়। আমার মনে হয় জনপ্রিয়তার দিক থেকে এই ওয়েবসাইটটি খুব অল্প সময়ের মধ্যে সাটারস্টক ওয়েবসাইটকে ছাড়িয়ে যাবে। কাজেই আপনি চাইলে এই ওয়েবসাইটে আপনার ছবিগুলোকে বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

গেটি ইমেইজ - GettyImages.Com

গেটি ইমেজ ওয়েবসাইটের ছবির দাম অনেক হয়ে থাকে। আপনি এই ওয়েবসাইটে আপনার প্রোফাইল অনুমোদন করে ছবি বিক্রি করতে পারলে এখান থেকে অনেক বেশি পরিমানে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইটের প্রায় ৫০ মিলিয়নেরও বেশি মাসিক ভিজিটর আছে। মূলত এই ওয়েবসাইটে প্রাকৃতিক এবং ইমোশন ধরনের ছবির অনেক বেশি ডিমান্ড হয়। এই ওয়েবসাইট থেকে একজন ছবির মালিককে ছবি বিক্রি করার ২০% কমিশন পেমেন্ট করে থাকে। কমিশন স্বল্প হওয়া সত্বেও ছবির দাম বেশি হওয়ার ফলে গেমি ইমেইজ থেকে বেশি টাকা করা সম্ভব হয়।

আইস্টক ফটো - iStockPhoto.Com

আইস্টক ফটো হ'ল আরেকটি স্টক ফটো শেয়ারিং মার্কেটপ্লেস। এটা আসলে গেটি ইমেজের একটি অংশ। গেটি ইমেজ কোম্পানি নিজে এই ওয়েবসাইটকে পরিচালনা করে। তবে এখানে গেটি ইমেজের চাইতে খুব সহজেই প্রোফাইল অনুমোদন করা সম্ভব হয়ে থাকে। প্রথমে আপনাকে তারা তিনটি ইমেজ আপলোড করার জন্য অপশন দিবে। পরবর্তীতে আপনার ছবির গুণগত মান ভালো হলে আনলিমিটেড ছবি আপলোড করে তারা বিক্রি করার সুযোগ দেবে। সাধারণত আইস্টক ফটো ২০ থেকে ৪৫% পর্যন্ত কমিশন ফটো মালিককে পরিশোধ করে থাকে।

আরও পড়ুনঃ মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করুন 2021

ড্রিমসটাইম - Dreamstime.Com

ফটোগ্রাফি মার্কেটপ্লেস হিসেবে ড্রিমসটাইমের অনেক জনপ্রিয়তা আছে। প্রত্যেকমাসে এই ওয়েবসাইটে প্রায় ২০ মিলিয়নেরও বেশি ভিজিটর আছে। ড্রিমসটাইম ওয়েবসাইটের ভাষ্যমতে তারা প্রতিমাসে প্রায় এখান থেকে ১ মিলিয়ন ছবি বিক্রি করেন। তাদের অধিকাংশ ছবি ইউরোপ এবং আমেরিকায় বিক্রি হয়ে থাকে। সাধারণত ড্রিমসটাইম ওয়েবসাইটর ছবির মালিককে ছবি বিক্রি করার ৩০ থেকে ৪৫% পর্যন্ত কমিশন পেমেন্ট করে। এছাড়াও এখানে সহজেই প্রোফাইল অনুমোদন পাওয়া যায়।

কিভাবে স্টক প্রফাইল Approve করবেন?

এতক্ষণ আমরা বিস্তারিত জানলাম কোন কোন মার্কেটপ্লেস গুলোতে ছবি আপলোড করে ফটোগ্রাফি করার মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় করা যায়। কিন্তু বিষয়টি মূলত এমন না যে, আপনি ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুললেন এবং সেই ছবিগুলোকে আপলোড করার পরেই টাকা ইনকাম করা শুরু করে দিলেন। উপরোক্ত ৫টি মার্কেটপ্লেস গুলোর মাঝে যেকোনো মার্কেটপ্লেসে ছবি আপলোড করার জন্যে প্রথমেই আপনাকে একটি ফ্রি আকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে বা প্রোফাইল অনুমোদন করে নিতে হবে। 

প্রোফাইল অনুমোদন করার জন্যে আপনাকে অবশ্যই অবশ্যই ভালোমানের ছবিগুলোকে আপলোড করে নিতে হবে। আপনার ছবির গুণগত মান এবং ছবির পিক্সেল ভালোমানের হলে তারা অবশ্যই আপনার প্রোফাইলটিকে অনুমোদন করবে। অনুমোদন হওয়ার পরেই আপনি ছবি আপলোড করে নিতে পারবেন। আপনার ছবি আপলোড করার পরে প্রতিটি ছবি তারা রিভিউ করে দেখবে। রিভিউ করার পরে যদি ছবি ভালো হয় তাহলে ছবিটি অনুমোদন করবে ও ছবি বিক্রি করা হলে আপনি সেখান থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

মূলত ছবির কোয়ালিটি ভালো না হলে অথবা ছবিতে কোনো ধরনের কপিরাইট মেটারিয়াল থাকলে এই ওয়েবসাইটে প্রোফাইল অনুমোদন হয়না। আপনি যদি একজন ভালোমানের ফটোগ্রাফার হয়ে থাকেন তবে প্রোফাইল অনুমোদন করা আপনার জন্যে খুব একটা কঠিন কাজ হবেনা। প্রথমবার যদি প্রদাইল অনুমোদন না হয় তবে কিছুদিন পরে আরও ভালোমানের ছবি আপলোড করার ফলে তারা অবশ্যই আপনার ছবিটি অনুমোদন করবে। তবে নরমাল ছবি ব্যবহার করে কখনো আপনি প্রোফাইল অনুমোদন করিয়ে নিতে পারবেন না।

আরও পড়ুনঃ ব্লগার থেকে টাকা আয় করার উপায়

শেষ কথা

ফটোগ্রাফিকে সখ হিসেবে নিয়ে যেকেউ যদি খুব বেশি পরিমাণে ছবি তোলে থাকেন, তবে উপরোক্ত মার্কেটপ্লেসগুলো থেকে আপনি অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করতে পারবেন। সেই সঙ্গে যদি আপনি একজন প্রফেশনালমানের ফটোগ্রাফার হয়ে থাকেন তবে অনলাইন ছাড়াও বিভিন্ন মাধ্যম থেকে ফটোগ্রাফি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া