Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/02/Earn-money-on-mobile-with-Android-app.html

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করুন 2021 | Android Apps দিয়ে টাকা আয় করুন

আপনি কি মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার চিন্তাভাবনা করছেন। বর্তমান সময়ে সকলেই আন্ড্রয়েড ফোন ব্যাবহার করে থাকেন। আর এই মোবাইল ফোন দিয়ে অনেক ছাত্র-ছাত্রী, যুবক-যুবতী সকল বয়সের মানুষ চায় মোবাইল ফোন দিয়ে টাকা ইনকাম করতে। আন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে অনেক এই বিভিন্ন ধরনের আন্ড্রইয়েড অ্যাপস (Android Apps) এর মাধ্যমে টাকা আয় করার পন্থা খুঁজছেন। 
তো আপনি যদি মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করতে চান তাহলে আমরা আপনাকে এই পোস্ট এর মাধ্যমে কয়েকটি আন্ড্রইয়েড অ্যাপস Android Apps এর সাথে পরিচিত করে দিবো যা দিয়ে আপনি গেম, ভিডিও ইত্যাদি কাজ করে মাসিক ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 
পেজ সূচিপত্র 
আমরা আজকের এই পোস্টে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার সবচেয়ে ভালোমানের ৭ টি এন্ড্রেয়েড এপস দেখাবো। Android Apps দিয়ে টাকা আয়। আর এই ৫ টি এপস এর মধ্যে বাংলাদেশি ২টি এপস দেখাবো যেখানে আপনি কাজ করে সঠিক ভাবে পেমেন্ট নিতে পারবেন। যে ৭ টি এন্ড্রয়েড অ্যাপ দেখাবো সেগুলি সঠিক ভাবে স্থায়িততার সাথে সবসময় সেবা প্রদান করে থাকে এবং পেমেন্ট করে থাকে। 

৭টি টাকা আয় করার সেরা অ্যাপসঃ মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার সেরা ৭টি Android Apps 
আমরা আপনাকে যে Android Apps দিয়ে টাকা আয় করার সেরা ৭ টি এপস দেখাবো। সেসব অ্যাপস আপনি ঘরে বসে টাকা আর্নিং করতে পারবেন। এই অ্যাপ ব্যাবহার করে সকল বয়সের মানুষ টাকা পয়সা ইনকাম করতে পারবেন। আপনি যদি ল্যাপটপ, কম্পিউটার ইত্যাদি ব্যাবহার করতে না জানেন তাহলে এই অ্যাপস দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। অনেক এই আছেন যাদের ল্যাপটপ, কম্পিউটার বা ডেক্সটপ নেই। তারা চাইলে এসব এপস ব্যাবহার করে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। 
তবে হ্যাঁ এসব Android Apps দিয়ে টাকা আয় করার জন্য আপনার মোবাইল ফোন অবশ্যই ইন্টারনেট থাকতে হবে। এসব আন্ড্রয়েড অ্যাপস দিয়ে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনার মোবাইল ফোন উচ্চ গতির ডাটা সংযোগ থাকতে হবে। আর এই কাজ করার জন্য আপনার ডিভাইস বা মোবাইল ফোন অনেক ভালোমানের হলে আপনার জন্য কাজ করতে অনেক সহজ ও সুবিধা হয়ে যেতো। 

আমরা আপনাকে যে ৫টি আন্ড্রয়েড অ্যাপস দেখাবো সেসবে কাজ করার জন্য আপনাকে ইংরেজিতে দক্ষ্যতা থাকতে হবে আর বাংলাদেশি যে অ্যাপসটি আপনাকে দেখাবো সেখানে ইংলিশ না জেনেও কাজ করতে পারবেন। এই অ্যাপস গুলোতে ইংরেজিতে দক্ষ্যতার কারন এই জন্য থাকতে হবে কারন এইসব অ্যাপস এ সকল প্রকার কাজ ইংলিশে সম্পূর্ণ করতে হবে। তো চলুন আর বেশি কথা না বলে চলুন তাহলে দেখে নেই টাকা আয় করার সেরা এন্ড্রয়েড অ্যাপস। 

Android Apps দিয়ে মোবাইল এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়
১.অ্যাপস দিয়ে টাকা ইনকাম | এপস দিয়ে টাকা ইনকাম
২.টাকা আয় করার এপসঃ টাকা আয় করার অ্যাপস 
৩.মোবাইল দিয়ে টাকা আয় ২০২১ | Mobile দিয়ে টাকা আয় 2021
৪.আন্ড্রয়েড অ্যাপ দিয়ে টাকা আয় ২০২১ | Android Apps দিয়ে টাকা আয় 2021
৫.টাকা ইনকাম করার এপ্স|টাকা ইনকাম করার Apps
৬.মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার সফটওয়্যার | মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার Software 
৭.মোবাইলে টাকা আয় ২০২১ | মোবাইলে টাকা আয় 2021 
এই রকম নানা ধরনের কি-ওয়ার্ড লিখে আপনি হয়তো গুগলে অনেক বার সার্চ করছেন কিন্তু যে ফলাফল আপনি পেয়েছেন তার বেশির ভাগ গুলোই ফেক। আর আপনি এই ফেক জানার পর মনে মনে ভাবছেন যে আসলেই "মোবাইল দিয়ে অনলাইনে টাকা আয়" করা যায় না। কিন্তু আমি আপনাকে যে মোবাইল অ্যাপস দেখাবো তা ব্যাবহার করে অবশ্যই আয় করতে পারবেন আর এটা যদি না সত্যি হয় তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাবেন।

১. Playment
Playment হচ্ছে বর্তমান সময়ের মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার জনপ্রিয় অ্যাপস। Playment Apps হচ্ছে একটি ইন্ডিয়ান অ্যাপস। এই অ্যাপসটি শুধু ভারতের জনগন ব্যাবহার করে টাকা আয় করতে পারে। এই অ্যাপ থেকে ইনকাম করার জন্য আপনাকে তেমন কোন কাজ করতে হবে না। এই Playment Apps টি আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। 

Playment Apps গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করার পর আপনার ফোনে ইন্সটল করে নেয়ার পর আপনাকে একটি অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে হবে। এছাড়া আপনি এটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যাবহার করার ফলে খুব সহজে Playment Apps অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। পরবর্তীতে আপনাকে একটি সচল ফোন নাম্বার দিয়ে ভেরিফিকেশন এর মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই ও একটিভ করে নিতে হবে। 

আপনার এই অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করার পর আপনাকে কিছু কিছু টাস্ক দিবে এবং তা পুরন করে করতে হবে বা কমপ্লিট করতে হবে। এই Playment Apps এর টাস্ক কমপ্লিট করার পর আপনার অ্যাকাউন্টে টাকা জমা হতে থাকবে। 

২. Meesho
বর্তমান সময়ে Meesho অনেক বেশি জনপ্রিয় একটি আন্ড্রয়েড অ্যাপস। Meesho Apps হচ্ছে এক ধরনের রিসেলিং অ্যাপস। এই Meesho App এর মাধ্যমে বিভিন্ন কোম্পানির প্রোডাক্ট যেমন; জামা-কাপড়, ব্যাগ, জুতা ইত্যাদি আরও নানা রকম প্রোডাক্ট রয়েছে এই Meesho App এর মধ্যে। 

এই অ্যাপটির কাজ হচ্ছে এক ধরনের অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মতো কাজ করে। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এই জন্য বললাম কারন, মিশো অ্যাপ Meesho App এর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রোডাক্ট দেখাবে এবং সেই প্রোডাক্ট গুলি আপনাকে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করার পর সেখান থেকে কেউ একটি প্রোডাক্ট ক্রয় করলে তাকে এখান থেকে কমিশন দেয়া হবে। আর এই সাইট থেকে এইভাবে মোবাইল দিয়ে আয় করা যায়। 

এছাড়া এই ওয়েবসাইট থেকে আপনি আরও অনেক ভাবে টাকা আয় করতে পারবেন। তো এখন এই প্রশ্ন আপনার মনে আসতে পারে যে কিভাবে Meesho App থেকে বেশি টাকা আয় করবেন। চলুন তাহলে জেনে নেই। আপনি মিশো কোন একটি প্রোডাক্ট ১০০ টাকায় কিনে ১৫০ টাকা বিক্রি করতে পারবেন।আর এখান থেকে আপনি ৫০ টাকা লাভ করতে পারবেন। আর হ্যাঁ এই প্রফিট করার জন্য আপনাকে প্রোডাক্ট বাড়ি গিয়ে পেীছে বা পার্সেল করে দিতে হবে না। 
আপনি যে প্রোডাক্ট বিক্রি করবেন সেটি Meesho মিশোকে প্রাইস ট্যাগ দিয়ে দিবেন এবং সেই প্রাইস অনুযায়ী ক্রেতা দেখতে পারবে। আর সেই প্রাইস ট্যাগ দেয়া অনুযায়ী ক্রেতা পেমেন্ট করবে। পরে Meesho মিশো থেকে লাভ এর অংশ আপনার অ্যাকাউন্টে দিয়ে দিবে। 
৩. Champ Cash - Earn Money Mobile
আপনি যদি মোবাইল দিয়ে Android App এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে চান তাহলে আপনি Champ Cash ব্যাবহার করতে পারেন। এই Champ Cash এর নানা রকম সুবিধা রয়েছে। আপনি Android App থেকে টাকা নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সরাসরি নিতে চাইলে তাহলে আপনি এই Champ Cash Android App ব্যাবহার করতে পারেন। 

এর কারন হচ্ছে আপনি এই Champ Cash এর মাধ্যমে যে টাকা আয় করবেন তা সরাসরি আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ট্র্যান্সফার করে নিতে পারবেন। Champ Cash টাকা আয় করার জন্য ভালো একটি অ্যাপ। অ্যাপে আপনি সাইন আপ এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন। একবার সাইন আপ করার ফলে আপনার অ্যাকাউন্টে ১ ডলার যোগ হয়ে যাবে। 
এর মানে একটি Android App ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিলেই আপনি পেয়ে যাবেন ১ ডলার। কি মজার বিষয় না বিনা পরিশ্রমে ১ ডলার আয় করা কত সহজ। Champ Cash এর মাধ্যমে আপনি আরও নানা উপায়ে টাকা আয় করতে পারবেন। তার মধ্যে হলো Champ Cash app এ বিভিন্ন Friend invite করতে হবে এবং Income Junction, সার্ভে পূরন করা ইত্যাদি আরও অনেক কাজ করে এই Champ Cash করে টাকা আয় করা যায়। 

তো আপনি দেখলেন তো যে কত সহজে এই Champ Cash Android App এর মাধ্যমে কত সহজে টাকা আয় করা যায়। এই Champ Cash এ আপনি যত বেশি কাজ করবেন আর তত বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 
৪. Google Opinion Rewards
Google Opinion Rewards হচ্ছে গুগল এর একটি নিজস্ব প্রোডাক্ট। এটি Google Opinion Rewards গুগল এর তৈরি একটি খুব সুন্দর একটি অ্যাপ। এই অ্যাপ দিয়ে মোবাইল এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করার জন্য এটি পুরো বিশ্বে খুব জনপ্রিয় একটি অ্যাপ। তবে এই অ্যাপ এর সবচেয়ে বড় একটা সমস্যা হচ্ছে এটি দিয়ে যে টাকা আয় করা যায় তা ক্যাশ করা যায় না। তবে আপনি এই Google Opinion Rewards অ্যাপস থেকে যে টাকা আয় করবেন তা দিয়ে গুগল প্লে স্টোর থেকে বিভিন্ন পেইড অ্যাপ রয়েছে সেগুলি কিনতে পারবেন। 
এই Google Opinion Rewards অ্যাপ ব্যাবহার করার জন্য বা টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে গুগল থেকে ডাউনলোড করে নিয়ে আপনার মোবাইলে ইন্সটল করে নিতে হবে এবং আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট দিয়ে Google Opinion Rewards অ্যাপ এর মধ্যে সাইন আপ করে নিতে হবে। 

Google Opinion Rewards অ্যাকাউন্টে সাইন আপ করার পর গুগল আপনাকে প্রতি সপ্তাহে ২০ থেকে ৩০ টি প্রশ্ন করবে এবং সেগুলির মতামত আপনাকে দিতে হবে। আর হ্যাঁ এসব প্রশ্ন আপনাকে সঠিকভাবে উত্তর প্রদান করতে হবে আর একটি করে প্রশ্ন এর জন্য Google Opinion Rewards আপনাকে ১০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত প্রদান করবে। Google Opinion Rewards এটি সম্পূর্ণ গুগল এর একটি প্রোডাক্ট তাই এটি চোখ বন্ধ করে বিশ্বাস করা যায়।
 
৫. Google Pay (GPAY)
Google Pay এটি একটি জনপ্রিয় অ্যাপ। Google Pay হচ্ছে গুগল এর একটি সেবা। Google Pay অনলাইনে কেনাকাটা করার জন্য সেরা একটি আন্ড্রয়েড অ্যাপ। আপনি অনলাইন থেকে যখন সকল ধরনের প্রোডাক্ট ক্রয় ও বিক্রয় করবেন তার জন্য পেমেন্ট করার জন্য এই সুবিধাটি তৈরি করা হয়েছে। বর্তমান সময়ে এই অ্যাপটি অনলাইনে কেনাকাটা করার জন্য বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। Google Pay আমাদের পাশের প্রতিবেশী দেশ ভারতে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। 
এই Google Pay App থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনাকে এই অ্যাপ ব্যাবহার করে অনলাইন থেকে কেনাকাটা করতে হবে। আপনি এই Google Pay ব্যাবহার করে যতবেশি কেনাকাটা করবেন আপনার কেনাকাটার লেনদেন এর উপর ভিত্তি করে ১০০% হারে আপনার অ্যাকাউন্টে টাকা জমা হতে থাকবে। আর এইভাবে Google Pay আপনাকে পেমেন্ট করতে হবে।
 
আপনি যদি Google Pay ব্যাবহার করে ১০০ টাকার কেনাকাটা করেন সেখান থেকে Google Pay আপনাকে ৫ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত পেমেন্ট করে থাকবে। এছাড়া বিভিন্ন ছুটির দিনে কেনাকাটা করার ফলে এবং বিল পরিশোধ করার ফলে Google Pay আপনাকে আরও বেশি হারে পেমেন্ট করে থাকে।
৬. Swagbucks - Earn Money Android App
Swagbucks অ্যাপ এর মাধ্যমে মোবাইল দিয়ে আয় করা বর্তমান সময় বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। Swagbucks App এর মাধ্যমে টাকা আয় করার অনেক পদ্ধতি রয়েছে। এই Swagbucks অ্যাপ দিয়ে আপনি খুব ভালো মানের টাকা আয় করতে পারবেন এমনকি এই টাকা PayPal, Bank Transfer এর মাধ্যমে উত্তোলন করতে পারবেন। 

এই Swagbucks দুটি ভার্সনে আপনি ব্যাবহার করতে পারবেন। তার মধ্যে একটি হচ্ছে ওয়েব ভার্সন এবং আন্ড্রয়েড ভার্সন। আপনি চাইলে এই দুটি ভার্সন দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। এই অ্যাপস দিয়ে টাকা আয় করার জন্য তারা আপনাকে বিভিন্ন প্রশ্ন করবে এবং সেগুলোর সঠিক উত্তর দিতে হবে এছাড়া বিভিন্ন রকম টাস্ক সম্পূর্ণ করতে হবে। এসব টাস্ক এবং প্রশ্ন সঠিক ভাবে পুরন করার ফলে তারা আপনার অ্যাকাউন্ট এ টাকা প্রদান করবে বা টাকা জমা হবে। এই কাজ গুলি ছাড়া এই অ্যাপস এ আর বেশি কাজ নাই। এই পদ্ধতি অনুসরন করে আপনি মাসে খুব ভালো মানের টাকা আয় করতে পারবেন।
৭. Pocket Money
পকেট মানি Pocket Money আন্ড্রয়েড অ্যাপ টাকা আয় করার জন্য বেশ জনপ্রিয়। Pocket Money Android Apps এটি দিয়ে আনলিমিটেড মোবাইল টাকা রির্চাজ এবং Wallet Cash ইনকাম করতে পারবেন। এই Pocket Money অ্যাপ দিয়ে আপনার মোবাইল বিল, শপিং, মুভি টিকেট বিল ইত্যাদি সম্পূর্ণ ফ্রিতে করতে পারবেন এই Pocket Money অ্যাপ দিয়ে আয় করা টাকা দিয়ে। 

Pocket Money তে টাকা আয় করার নিয়ম উপরোক্ত অ্যাপ গুলির মতোই। এই Pocket Money অ্যাপ দিয়ে ভিডিও দেখে, গেম খেলে, অ্যাপ ডাউনলোড করে, অ্যাপ রেফার করে, Pocket Money এর থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। 
বাংলাদেশি আন্ড্রয়েড অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম | Bangladesi App Diye Taka Income
বর্তমান সময় আপনি বাংলাদেশি অ্যাপ ব্যাবহার করে টাকা আয় করতে পারবেন। বাংলাদেশি Android App দিয়ে টাকা আয়। বর্তমান সময় বাংলাদেশি Android App দিয়ে টাকা ইনকাম করার অনেক নির্ভরযোগ্য ও জনপ্রিয় অনেক অ্যাপস চালু রয়েছে। আর এসব বাংলাদেশি অ্যাপ ব্যাবহার করে খুব অল্প পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন। তো চলুন তাহলে দেখে নেই বাংলাদেশে টাকা আয় করার জনপ্রিয় Android Apps গুলি; 

১. রকেট/Rocket
২ বিকাশ/Bkash
৩. নগদ/Nagad
৪. NexusPay/নেক্সাসপে 
৫. GPAY/জিপে 
৬. Bkash Agent/বিকাশ এজেন্ট 
আরও পড়ুনঃ Samsung Galaxy S20 FE 5G Review 
এই উপরোক্ত অ্যাপ গুলি বাদে বাংলাদেশে আরও অনেক অ্যাপ আছে। যা দিয়ে অনেক বেশি কম টাকা আয় করা সম্ভব। এই অ্যাপ গুলি থেকে টাকা ইনকাম করা খুব সহজ। কেননা এই অ্যাপ থেকে টাকা আয় করার জন্য অনেক বেশি পরিশ্রম ও অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হয় না। সামান্য কিছু স্টেপ অনুসরণ করলেই খুব সহজেই টাকা আয় করা যায়। তো চলুন তাহলে দেখে নেই কিভাবে বাংলাদেশি অ্যাপ দিয়ে টাকা আয় করবেন। 
৮.বিকাশ অ্যাপ | Bkash App দিয়ে টাকা ইনকাম
বর্তমানে বাংলাদেশে বিকাশ অ্যাপ এর ব্যাবহার অনেক বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বর্তমান সময়ের ডিজিটাল লেনদেন বেশির কাজ বিকাশ অ্যাপ অনেক বেশি সহজ করে দিয়েছে। আর এই বিকাশ অ্যাপকে বাংলাদেশ এর ডিজিটাল ওয়ালেট হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। এই বিকাশ অ্যাপ আপনি টাকা পয়সা লেনদেন করার বাদে এই রেফার করে টাকা আয় করতে পারবেন। প্রতি রেফারে আপনাকে বিকাশ দিবে ৫০ টাকা। 

আপনি প্রথমে গুগল প্লে স্টোর থেকে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে হবে। এবং তা আপনার ফোন ইন্সটল করে নিতে হবে আর সেখানে একটি অ্যাকাউন্ট খুলে সেটিংস থেকে রেফার আইডি লিঙ্ক আকারে আপনি অন্যজন কে দেয়ার পর তিনি যদি আপনার লিঙ্ক থেকে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করে। তাহলে বিকাশ আপনার অ্যাকাউন্ট এ টাকা প্রদান করবে। 

শেষ কথাঃ আন্ড্রয়েড অ্যাপ দিয়ে টাকা আয় করার আর্টিকেলটি পড়ে আপনি অবশ্যই অবাক হচ্ছেন। আপনি মনে মনে ভেবেছেন যে এই সামান্য কয়েকটা টাকা আয় করার জন্য এতো পরিশ্রম কেন করবেন, বরং এই অ্যাপ গুলোতে কাজ করার কোন মানে হয় না। হ্যাঁ আপনি সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বরং আমি আপনার মতামত এর সাথে একমত পোষণ করছি। 

এই আন্ড্রয়েড অ্যাপ Android App দিয়ে কেউ কাজ করে কখনও ভালোমানের টাকা আয় করতে পারে না। আপনি যদি অনলাইন থেকে ভালো মানের টাকা আয় করতে চান তাহলে ইউটিউব, ডিজিটাল মার্কেটিং, ব্লগিং ইত্যাদি কাজ করে অনেক ভালোমানের কাজ টাকা আয় করতে পারবেন। 

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

1 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

  1. জ্বী ভাই ঠিক বলছেন,অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করা time waste ছাড়া আর কিছু না

    ReplyDelete

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া