Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/02/astaghfirullah-meaning-in-bengali.html

আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি

আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি — ক্ষমা প্রার্থনায় তওবা কিংবা ইস্তেগফারের কােনো বিকল্প নেই। মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমা প্রার্থনায় কুরআন-সুন্নাহতে অনেক দোয়া এবং ইসতেগফার আছে। তবে খুবই সহজে পড়া যায় এবং ব্যাপক প্রচলিত দোয়ার মাধ্যমেও ক্ষমা প্রার্থনা করা যায়। এমন ১টি দোয়া আপনাদের সামনে আমরা তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। উক্ত দোয়ার মাধ্যমে মুমিন মুসলমান আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করবেন। 

আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি

আস্তাগফিরুল্লাহ শব্দটির সঙ্গে কমবেশি অনেকেই পরিচিত। কিন্তু হ্যাঁ আমাদের মাঝে এখন পর্যন্ত অনেকেই আছেন যারা এই আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি সেটা সম্পর্কে সঠিক জানিনা। আজকের এই পোস্টে আমরা আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি এবং আস্তাগফিরুল্লাহ পড়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানবো। প্রিয় পাঠ চলুন আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি সেটা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যগুলো ধারাবাহিক ভাবে জেনে নিই।

আরো পড়ুনঃ কিভাবে বুঝব দোয়া কবুল হয়েছে

আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি

- أَستَغْفِرُ اللهَ

উচ্চারণঃ ‘আস্তাগফিরুল্লাহ।’ অর্থঃ আমি আল্লাহর ক্ষমা প্রার্থনা করছি। অর্থাৎ আস্তাগফিরুল্লাহ শব্দটির অর্থ হচ্ছে আমি মহান আল্লাহর ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আস্তাগফিরুল্লাহ পড়ার নিয়মঃ প্রতি ওয়াক্ত ফরজ নামাজের সালাম ফেরানোর পর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এই ইস্তেগফারটি ৩ বার পড়তেন।' (মিশকাত)। 

আর সবসময় আমাদের বেশি বেশি আস্তাগফিরুল্লাহ পাঠ করা উচিত। বেশি বেশি যারা ইস্তেগফার পড়লে তার ৫টি লাভ হয়। যে সবসময় ইস্তেগফারের সাথে লেগে থাকে সেই ব্যক্তি ৫টি জিনিস পায় জীবনে ১। সব ধরনের বিপদ আপদ থেকে মুক্তি পাওয়া যায় ২। যে ব্যক্তি সবসময় ইস্তেগফারের সাথে আঠার মতো লেগে থাকবে আল্লাহ তায়ালা সেই ব্যক্তি দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি দিবে তার কোনো টেনশন থাকবে না সুবাহানাল্লাহ। 

৩। এমন জায়গা থেকে আল্লাহ তায়ালা আপনাকে রিজিকের ব্যবস্থা করবেন আপনি কল্পনাই করতে পারবেন না ৪। যতক্ষণ একজন ব্যক্তি ইস্তেগফারের সঙ্গে আঠার মতো লেগে থাকবেন মহান আল্লাহ তায়ালার কোনো শাস্তি আপনার উপরে আসবে না ৫। সবসময় ইস্তেগফার পড়লে দোয়া করলে মহান আল্লাহ তায়ালা সেই দোয়া কবুল করে নেন। তাই সবসময় বেশি বেশি পড়বেন আস্তাগফিরুল্লাহ।

আরো পড়ুনঃ তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ার নিয়ম

আস্তাগফিরুল্লাহ পড়ার উপকারিতা

আমরা কোনো না কোনোভাবে নিজের অজান্তেই অথবা ইচ্ছাকৃতভাবে অনেক ভূল ও পাপের কাজ করে থাকেন। আর আমাদের করা এই সকল ভুল এবং পাপগুলো ক্ষমা করার জন্য কিংবা শোধরানোর জন্য অবশ্যই আমাদেরকে মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করার দরকার। আমাদের দ্বারা হওয়া ইচ্ছাকৃত কিংবা অনিচ্ছাকৃত ভূল বা পাপগুলো মাফ চাওয়ার জন্যে মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত। আর এই ক্ষমা চাওয়ার মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালা আমাদের করা ভূল ও পাপগুলোকে ক্ষমা করে দেন। 

সুতরাং, মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করার গুরুত্ব এবং উপকারিতা অনেক বেশি। কারণ আখিরাতের জীবনে আমাদের পাপগুলোর শাস্তি হবে। তাই পরকালের শাস্তি থেকে বাঁচার জন্য আল্লাহর তায়ালার কাছ থেকে আগে মাপ বা ক্ষমা চেয়ে নিতে হবে। 

আস্তাগফিরুল্লাহ পড়ার নিয়ম

আস্তাগফিরুল্লাহ পড়ার নিয়মঃ দিনের যেকোনো ইবাদত-বন্দেগি তথা ক্ষমা প্রার্থনার সময় এভাবে তওবাহ বা ইসতেগফার করা। হাদিসে আসছে- এভাবে তওবাহ বা ইসতেগফার করলে আল্লাহ তায়ালা তাকে ক্ষমা করে দিবেন, যদিও সে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে পলায়নকারী হয়। (আবু দাউদ, তিরমিজি, মিশকাত)

শেষ কথা

উপরোক্ত আলোচনায় আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি সেটা সম্পর্কে সহজ ভাবে বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে।আস্তাগফিরুল্লাহ দোয়াটি কিভাবে পাঠ করবেন এবং আস্তাগফিরুল্লাহ পড়ার উপকারিতা কি কি সেই সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য দেওয়া হয়েছে। আমাদের সকলেরই জীবনে কোনো না কোনো পাপ থাকে আর এই পাপগুলোকে মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমা চেয়ে মাফ করিয়ে নেওয়ার জন্য বা মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে থেকে ক্ষমা প্রার্থনার জন্য আস্তাগফিরুল্লাহ দোয়া পাঠ করা দরকার হয়ে পড়ে। 

আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ কি পোস্টটি সম্পর্কিত যদি আপনার কোনো প্রশ্ন করার থাকে কিংবা আমাদেরকে দেওয়ার মতো আপনার কোনো উপদেশ অথবা পরামর্শ থাকে তাহলে সেটি অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্ট বক্সে লিখে জানিয়ে দিন। আমরা আপনার করা প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো আজ। ইনশাআল্লাহ

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?