Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/02/salatut-tasbih-namajer-niyom.html

সালাতুত তাসবিহ নামাজের নিয়ম

সালাতুত তাসবিহ নামাজের নিয়ম — সালাতুত তাসবিহ হচ্ছে অত্যন্ত ফযিলতপূর্ণ একটি ইবাদত। সালাতুত তাসবিহ কিন্ত তাসবিহের নামাজ নামেও পরিচিত। সালাতুত তাসবিহ নামাজে ৩০০ বার তাসবিহ পাঠ করা হয়ে থাকে। আর তাসবিহ বলতে ‘সুবাহানাল্লাহ ওয়াল হামদুলিল্লাহ ওয়ালা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার’ এই শব্দগুলোকে বোঝানো হয়েছে। যে নামাজে এসকল তাসবিহ পাঠ করা হয় তাই হচ্ছে সালাতুত তাসবিহ।

সালাতুত তাসবিহ নামাজের নিয়ম

হাদীস শরীফে এই ‘সালাতুত তাসবিহ’ নামাজের অনেক ফজিলত বর্ণিত করা রয়েছে। সালাতুত তাসবি নামাজ আদায় করলে পূর্বের গুনাহ কিংবা পাপ মোচন হয় এবং অনেক বেশি সওয়াব পাওয়া যায়। সালাতুত তাসবিহ আদায় করা বাধ্যতামূলক ৫ ওয়াক্ত নামাজের মতো নয়। আমাদের প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) তার অনুসারীদেরকে সালাতুত তাসবি নামাজ আদায় করতে উৎসাহিত করেছেন। মুসলমানরা যেন জীবনে একবার হলেও এই সালাতুত তাসবি নামাজ আদায় করে সেই বিষয়ে প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) গুরুত্ব আরোপ করেছেন।

সালাতুত তাসবি নামাজ সম্ভব হলে দৈনিক ১ বার, তা নাহলে সপ্তাহে ১ বার, তা নাহলে মাসে ১ বার, যদি তাও সম্ভব না হয় তাহলে বছরে ১ বার এই নামাজ আদায় করা উচিত। আর যদি বছরে ১ বার পড়া না সম্ভব না হয় তবে জীবনে ১ বার হলেও সালাতুত তাসবি নামাজ আদায় করবেন। বিখ্যাত ওলামায়ে কেরামগণদের মতে, যেকানো বিপদ-আপদে ও চিন্তার অবসানের জন্যে সালাতুত তাসবিহ নামাজের চেয়ে কার্যকর নামাজ আর নাই। প্রিয় পাঠক চলুন তাহলে জেনে নিই সালাতুত তাসবিহ নামাজের নিয়ম সম্পর্কেঃ

আরো পড়ুনঃ শবে কদরের নামাজের নিয়ম

সালাতুত তাসবিহ নামাজের নিয়ম

সালাতুত তাসবিহ নামাজ ৪ রাকাত। প্রতি রাকাতে সূরা ফাতিহা পাঠ করার পরে, যেকোনো সুরা পড়তে পারেন। তবে হ্যাঁ সালাতুত তাসবি নামাজের বিশেষত্ব হলো এই যে, প্রতি রাকাতে ৭৫ বার করে ৪ রাকাতে মোট ৩০০ বার তাসবিহ পাঠ করতে হবে। তাসবিহঃ (اَكْبرُ سُبْحاَنَ الله وَالْحَمدُ للهِ وَلآَ اِلَهَ اِلاَّاللهُ وَاللهُ)।উচ্চারণঃ সুবহানাল্লাহি ওয়াল হামদু লিল্লাহি ওয়া লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার।

প্রথম রাকাতে সানা পাঠ করার পড়ার পরে উক্ত তাসবিহটি ১৫ বার পড়ে নিতে হবে। এরপর স্বাভাবিক নিয়মে সূরা ফাতিহা এবং অন্য আরেকটি সূরা অথবা কমপক্ষে ৩ আয়াত পাঠ করার পড়ার পরে তাসবিহটি ১০ বার পড়ে নিতে হবে। তাপর রুকুতে গিয়ে রুকুর তাসবিহ পড়ার পরে তাসবিহটি ১০ বার পড়ে নিতে হবে। এরপরে রুকু থেকে দাড়িয়ে গিয়ে “রাব্বানা লাকাল হামদ” পড়ার পরে তাসবিহটি ১০ বার পড়ে নিতে হবে।

এরপরে আবার সিজদায় গিয়ে সিজদার তাসবিহ পরে তাসবিহটি ১০ বার পড়ে নিতে হবে। প্রথম সিজদা থেকে বসে উক্ত তাসবিহটি ১০ বার পড়ে নিতে হবে। এরপরে আবার সিজদায় গিয়ে সিজদার তাসবিহ পরে তাসবিহটি ১০ বার পড়তে হবে। তারপর একইভাবে দ্বিতীয় রাকাত পড়তে হবে (সুরা ফাতিহা পড়ার আগে তাসবিহটি ১৫ বার পড়তে হবে।)

অতঃপর ২য় রাকাতের ২য় সিজদার পরে “আত্তহিয়্যাত” পাঠ করার পরে সালাম না ফিরিয়েই, ২য় রাকাতের মতো ৩য় ও ৪র্থ রাকাত একই প্রক্রিয়া শেষ করে নিতে হবে। (তাসবিহটি ১৫ বার পড়ে স্বাভাবিক নিয়মে সুরা ফাতিহা এবং অন্য আরেকটি সূরা পড়তে হবে)।

কোনো ১ স্থানে উক্ত তাসবিহ পড়তে সম্পূর্ণ ভূলে গেলে কিংবা ভূলে নির্দিষ্ট সংখ্যার থেকে কম পড়ে ফেললে পরবর্তী যে রুকনেই স্মরণ আসুক সেখানে তথাকার সংখ্যার সঙ্গে এই ভুলে যাওয়া সংখ্যাগুলোও আদায় করতে হবে। আর এই সালাতুত তাসবিহ নামাজে কোনো কারণে সাজদায়ে সাহু ওয়াজিব হলে সেই সাজদা ও তার মধ্যকার বৈঠকে উক্ত তাসবিহ পাঠ করতে হবেনা। তাসবিহের সংখ্যা মনে রাখার জন্যে আঙ্গুলের কর গণনা করা যাবেনা, তবে হ্যাঁ আঙ্গুল চেপে মনে রাখা যেতে পারে।

প্রিয় পাঠক সালাতুত তাসবিহ নামাজের নিয়ম আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার কাছে ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন। আর সালাতুত তাসবিহ নামাজের নিয়ম সম্পর্কে আরো কোনো তথ্য জানার থাকলে অবশ্যই সেটাও আমাদেরকে জানাবেন। আল্লাহ হাফেজ

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?