Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/09/kivabe-location-track-korbo.html

কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়

কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় - প্রিয় পাঠক, আপনারা অনেকেই জানতে চেয়েছেন কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় এই বিষয়টি বিস্তারিত ভাবে জানার। আমাদের মোবাইল ফোনে অচেনা নাম্বার থেকে বিভিন্ন ধরনের কল আসে। যা আমাদের অনেকেরই চিন্তিত করে তোলে। এছাড়াও আমাদের ফোন হারিয়ে গেলে লোকেশন ট্র্যাক করার প্রয়োজন হয়ে পড়ে।

সূচীপত্রঃ কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়

আপনি কি জানেন এখন ফোন হারিয়ে গেলে অথবা চুরি হয়ে গেলে খুব সহজেই লোকেশন ট্র্যাক করে ফোনের সন্ধান পাওয়া যায়। আজকের পোস্টের মাধ্যমে আমরা আপনাদের জানানোর চেষ্টা করব "কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়" "কিভাবে লোকেশন মোবাইল দিয়ে ট্র্যাক করব" "কিভাবে মোবাইল লোকেশন বের করব"।

এছাড়াও আরো জানাব পুলিশ কিভাবে হারিয়ে যাওয়া ফোনের লোকেশন ট্র্যাক করে। তাই কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় এই বিষয়ে যদি আপনার জানার আগ্রহ থাকে তবে আপনি মনোযোগ সহকারে আজকের পোস্টটি পড়ুন। চলুন তাহলে জেনে নিই কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যঃ

কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়

আপনার হাতে থাকা মোবাইল যদি কোনো কারণে হারিয়ে যায় অথবা চুরি হয়ে বা অপরিচিত নাম্বারে আপনার মোবাইল ফোনে অযথা কল আসে এবং তাতে আপনি ডিস্টার্ব হোন এসব সমাধানের জন্য আপনাকে পরিচিত ব্যক্তির লোকেশন ট্র্যাক করতে হবে। আপনি যদি এই ধরনের কোন সমস্যায় পড়ে থাকেন তবে আপনি আমাদের আজকের পোস্ট পড়ে জেনে নিন কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় তার সকল সমাধান।

আরো পড়ুনঃ অন্যের কল লিস্ট বের করা সফটওয়্যার

কিভাবে মোবাইল দিয়ে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়

আপনি কি জানেন? মোবাইল দিয়ে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়। মোবাইলে অনেক ধরনের মোবাইল লোকেশন ট্র্যাক করার অ্যাপ আছে। যা ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই শনাক্ত করতে পারবেন অপরিচিত লোকদের। 

কে কে আপনাকে ডিস্টার্ব করে তা আপনি জানতে পারবেন। এছাড়াও জানতে পারবেন কোথা থেকে সে আপনাকে ফোন দিচ্ছে। তাহলে চলুন দেখে নেই অ্যাপ দিয়ে লোকেশন ট্র্যাক করার সেরা অ্যাপসগুলো।

find my kids - লোকেশন ট্র্যাকার

এই অ্যাপস টা তৈরি করা হয়েছে বাচ্চাদের লোকেশন ট্র্যাক করার জন্য। অনেক বাচ্চা আছে তারা বিভিন্ন জায়গায় যায় স্কুলে, ভ্রমণে ইত্যাদি। আপনি যদি বাচ্চার অভিভাবক হয়ে থাকেন তাহলে এই অ্যাপ দিয়ে আপনার বাচ্চা লোকেশন ট্র্যাক করতে পারেবন। 

এছাড়াও আপনার বাচ্চা কোন জায়গায় হারিয়ে গেলে তা তৎক্ষণাৎ খুজে পেতে Find my Kids লোকেশন ট্র্যাকার অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারেন। গুগল প্লেস্টোরে এবং অ্যাপ স্টোর থেকে এই লোকেশন ট্র্যাক করার অ্যাপটি ইন্সটল করতে পারবেন। 

ট্রুকলার অ্যাপ দিয়ে লোকেশন ট্র্যাক

ট্রুকলার অ্যাপ দিয়ে জানতে পারবেন কোন কোন অপরিচিত নাম্বার থেকে আপনাকে অযথা কল দিয়ে ডিস্টার্ব করা হচ্ছে। আর আপনি যদি তার সঠিক লোকেশন সম্পর্কে জানতে চান তাহলে তার মোবাইলে IMEI নাম্বার সংগ্রহ করে পুলিশের কাছে দিতে হবে। তাহলে তারা সঠিক পদক্ষেপ নিতে পারবে। কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় আশাকরি এই অ্যাপটি ব্যবহার করে সহজেই লোকেশন ট্র্যাক করতে পারবেন।

ফাইন্ড মাই ডিভাইস

গুগলের লোকেশন ট্র্যাক করার জন্য সেরা মোবাইল অ্যাপস হচ্ছে ফাইন্ড মাই ডিভাইস - find my device google। আপনার মোবাইলের ফাইন্ড মাই ডিভাইস থেকেও অন্যের লোকেশন অর্থাৎ সঠিক অবস্থান সম্পর্কে আপনি ধারণা নিতে পারবেন। সেজন্য আপনাকে গুগোল প্লেস্টোর অথবা অ্যাপ স্টোর থেকে মোবাইল অ্যাপটি ইন্সটল করে নিতে হবে।

যদিও ডিফল্টভাবে অনেকের মোবাইলে ইন্সটল করা থাকে। ফাইন্ড মাই ডিভাইস - find my device দিয়ে লোকেশন ট্র্যাক করার জন্য জিপিএস অন থাকা লাগবে। যদি কোনো কারণে আপনার ফোনটি চুরি হয়ে যায় তাহলে আপনি সহজেই লোকেশন ট্র্যাক করার মাধ্যমে ফোনের অবস্থান জানতে পারবেন এবং কে আপনার ফোন চুরি করেছে এটাও জানতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ মোবাইল আসক্তি থেকে মুক্তির উপায়

কিভাবে পুলিশ লোকেশন ট্র্যাক করে

পুলিশ কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করে তা জানতে পারবেন আমাদের আজকের পোস্টের এই অংশে। আমাদের দেশের পুলিশ বাহিনি যেকোনো ফোনের ট্র্যাকিং করেতে পারবেন। কারণ পুলিশকে ট্র্যাকিং করার সরকার থেকে বৈধতা দেওয়া হয়েছে। 

পুলিশ হারিয়ে যাওয়া বা চুরি হয়ে যাওয়া ফোন ফোনের ট্র্যাকিং করার জন্য সেল অপারেটর এর সাহায্য নিয়ে থাকে। আর সেল অপারেটরগুলো নির্দ্বিধায় পুলিশকে সাহায্য করে। পুলিশ অপরাধীর নাম্বার ট্র্যাক করে তার লোকেশন বের করে এবং সে এই মুহূর্তে কোথায় অবস্থান করছে।

এবং কার কার সাথে কথা বলছে তা জেনে নিয়ে অপরাধীকে শনাক্ত করেন। যদি অপরাধী তার নাম দিয়ে সিমটি ক্রয় করে তাহলে আসল ব্যবহারকারী নাম ও ঠিকানা সম্পর্কে জানা যায়। 

আর যদি কোন অপরাধী চুরি হয়ে যাওয়া অথবা হারিয়ে যাওয়া ফোন থেকে সিম কার্ড-টি খুলে ফেলে দেয় তাহলেও অপরাধকে শনাক্ত করা সম্ভব। কিভাবে পুলিশ লোকেশন ট্র্যাক করে অপরাধীকে যাচাই করে তা দেখুনঃ-

পুলিশের কাছে থাকা ফোন নাম্বার থেকে উক্ত ফোনের IMEI নাম্বার বের করতে হয়। IMEI হলো মোবাইল ফোনের যাচাইকরণ তথ্য। আমাদের সকলর ফোনে IMEI নাম্বার আছে। এরপর পুলিশ এই ফোনের লোকেশন ট্র্যাক করবে। আপনি এবার চুরি হয়ে যাওয়া ফোন থেকে যেখানেই ফোন করেন না না তা পুলিশ ট্র্যাকিং করতে পারবে। 

তারপর পুলিশ ভিন্ন ভিন্ন মোবাইল অপারেটরে অপরাধীর ব্যবহৃত ফোনের IMEI নম্বর জানিয়ে জিজ্ঞাসা করে এই IMEI এর ফোন তাদের অপারেটরে ব্যবহার করা হচ্ছে কি না। এরপর অপারেটরেরা পুলিশকে সকল সঠিক তথ্য দেন এবং কোন নাম্বার থেকে কথা বলছে সেই নাম্বারটি ও দেয় এবং পুলিশ তার নাম্বার এবং তার লোকেশন ট্র্যাকিং করে অপরাধীকে শনাক্ত করে।

অনেকেই ভাবছে যদি ফোনটি অ্যারোপ্লেন মোডে "Airplane Mode" থাকে তাহলে পুলিশ কিভাবে তার লোকেশন ট্র্যাক করবে। প্রতিটি মোবাইলে ২ টি দিক থাকে একটি হলো নেটওয়ার্ক এর সাথে কানেক্টেড এবং অপরটি হচ্ছ ইউজার ইন্টারফেজ। 

এখানে ইউজার ইন্টারফেজ হচ্ছ অ্যারোপ্লেন মোডে "Airplane Mode" থাকার পরও ফোনটি পিং গ্রহণ করতে পারেন এবং নেটওয়ার্ক সব সময় গুরুত্বপূর্ণ লোকেশন পায়। তাই ফোন অ্যারোপ্লেন মোডে "Airplane Mode" থাকার পরেও পুলিশ হারিয়ে যাওয়া অথবা চুরি হয়ে যাওয়া ফোনের লোকেশন ট্র্যাকিং করতে পারে।

আরো পড়ুনঃ কোটি টাকা আয় করার উপায়

কিভাবে ফোনের লোকেশন জানা যায়

বর্তমানে স্মার্টফোনের মাধ্যমে খুব সহজেই লোকেশন ট্র্যাক করা যায়। যদিও এটি একটি বেআইনি কাজ। যেকোনো মোবাইলের IMEI নাম্বার অথবা সিম কার্ডের মাধ্যমে যেকোনো কারো লোকেশন সম্পর্কে জানা যায়। তবে সব থেকে নিখুতভাবে লোকেশন ট্র্যাকিং করার মাধ্যম হচ্ছে GPS পাব্লিক WAN এর মাধ্যমে। এছাড়াও বেশ কিছু লোকেশন ট্র্যাকিং করার জন্য কার্যকরী অ্যাপস আছে যেমনঃ Thief Guard, Spyic, Find My Device ইত্যাদি।

কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় ভিডিও দেখুন

শেষ কথাঃ কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়

প্রিয় পাঠক পরিশেষে আমি কিছু কথা বলতে চাই, আজকের আলোচনায় আমি আপনাদের জানানোর চেষ্টা করেছি কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়, মোবাইল দিয়ে কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায়, পুলিশ কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করে ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আপনাদের সাথে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করার। আশা করি আপনি আজকে পোস্ট পড়ে কিভাবে লোকেশন ট্র্যাক করা যায় তার সকল কিছু বিস্তারিত ভাবে জানতে পারলেন। ধন্যবাদ!

0 Comments