Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/08/How-can-I-earn-1-million-taka.html

কোটি টাকা আয় করার উপায়

কোটি টাকা আয় করার উপায় - কোটি টাকার আয় করার উপায় ভাবছেন, বাংলাদেশে এমনও অনেক কোটিপতি আছে যারা মাসের ১ কোটি টাকার বেশী আয় করে থাকেন। আপনিও চাইলে কোটি টাকা আয় করতে পারেন। অনেকের কাছে ভাবতে অবাক লাগলেও বাস্তবে কোটি টাকা মাসে আয় করা সম্ভব। 

কোটি টাকা আয় করার উপায়

সূচীপত্রঃ কোটি টাকা আয় করার উপায়

আজকের পোস্টে আমরা আপনাদের জানানো চেষ্টা করব কোটি টাকা আয় করার উপায় সম্পর্কে একটি পূর্ণাঙ্গ ধারণা। এখন আপনাদের প্রশ্ন হতে পারে, যে কিভাবে কোটিপতি হওয়া যায় অর্থাৎ এক মাসে কোটি টাকা আয় করা সম্ভব। বিষয়টি যেমন কঠিন মনে হচ্ছে আপনার জন্য ঠিক তেমনি আপনার যদি যথাযথ আইডিয়া থেকে থাকে তাহলে আপনার জন্য কাজটি অনেক সহজ হতে পারে।

কোটি টাকা আয় করার উপায়

আপনি যদি মাসে কোটি টাকা আয় করার কথা ভেবে থাকেন তাহলে আপনি ঠিক ভেবেছেন। তবে, আপনি মাসে কোটি টাকা আয় করতে হলে আপনাকে অনেক সময় ধরে কাজ করতে হবে এবং অনেক পরিশ্রম করতে হবে। তবেই, আপনি মাসে লাখ থেকে কোটি টাকা আয় করতে পারবেন। কথায় আছে, পরিশ্রমই সফলতার চাবিকাঠি। তাই মাসে কোটি টাকা আয় করতে হলে আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে। 

এক নজরে দেখে নিন মাসে কোটি টাকা আয় করার উপায় গুলো কি কিঃ ১। ব্যবসা করে মাসে কোটি টাকা আয় ২। ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে কোটি টাকা আয় ৩। ইউটিউবিং করে মাসে কোটি টাকা আয় ৪। ব্লগিং করে মাসে কোটি টাকা আয় ৫। কোর্স বিক্রি করে মাসে কোটি টাকা আয় ৬। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে মাসে কোটি টাকা আয় ৭। অ্যাপ অথবা গেম তৈরি করে মাসে কোটি টাকা আয় ৮। শেয়ার বাজার ইনভেস্ট করে মাসে কোটি টাকা আয়

আরো পড়ুনঃ বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার উপায়

ব্যবসা করে মাসে কোটি টাকা আয়

বর্তমানে ব্যবসা করে মাসে কোটি টাকা আয় করা সম্ভব। তবে আপনি ব্যবসা শুরু করতে হলে আপনাকে অধিক পরিমাণে মূলধন ইনভেস্ট করতে হবে। বাংলাদেশে অনেক ব্যবসায়ী আছে যারা তাদের নিজেদের ব্যবসা থেকে মাসে কোটি টাকা আয় করছে। 

আপনিও এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন যেমন গার্মেন্টস ব্যবসা, কারখানা ব্যবসা, পেট্রোল/ডিজেল ব্যবসা, ইট/বালির ব্যবসা, ই-কমার্স ব্যবসা, তাঁত শিল্প ব্যবসা,কুটির শিল্প ব্যবসা, এক্সপোর্ট/ইম্পোর্টে ব্যবসা, কসমেটিকস ব্যবসা, ফার্মেসী ব্যবসা ছাড়াও এ ধরনের বড় বড় ব্যবসা থেকে মাসে কোটি টাকা আয় করা সম্ভব।

ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে কোটি টাকা আয়

বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্যবসা হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং। ফ্রিল্যান্সিং এমন একধরনের পেশা যেটি আপনি যেখান ইচ্ছে সেখান থেকে করতে পারেন। আপনারা কি জানেন? ফ্রিল্যন্সিং করে মাসে লাখ থেকে কোটি টাকা আয় করা সম্ভব। এটা অনেকেই জানে আবার অনেকেই জানেন না। 

ফ্রিল্যন্সিং করতে হলে আপনাকে যেকোনো একটি বিষয়ের উপর পারদর্শী হতে হবে। আপনি অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট, ওয়েব ডেভেলমেন্ট, গেম ডিজাইন, গ্রাফিক ডিজাইন, অ্যানিমেশন এর যেকোনো একটা স্কিল গড়তে পারেন তাহলে আপনি মাসে কোটি টাকা আয় করতে পারেন। 

বিশ্বে অনেক বড় বড় কোম্পানি আছে তারা একটি বিষয়ের উপর ভালো দক্ষ আছে এমন মানুষ খুজে, এবং মাস শেষে লাখ থেকে কোটি টাকা পর্যন্ত সেলারি দেয়। আপনি যদি মাসে কোটি টাকা করতে চান তবে উপরোক্ত যেকোনো বিষয়ের উপরে দক্ষতা অর্জন করতে পারেন।

ইউটিউবিং করে মাসে কোটি টাকা আয়

ফ্রিল্যান্সিং এর মত ইউটিউব ও একটি জনপ্রিয় পেশা। এখানে মূল কাজ হচ্ছে আপনি যে বিষয়ে অনেক দক্ষ আছে সে বিষয় নিয়ে প্রতিনিয়ত ভিডিও আপলোড করা। তবে ইউটিউবে রয়েছে বেশ কিছু শর্ত, আপনারা ইউটিউব চ্যানেল খোলার পর শেষ ১২ মাসের মধ্য ১০০০ সাবস্ক্রাইব এবং ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচটাইম এই মাইল ফলক আপনাকে পূরণ করেতে হবে।

তবেই আপনি ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার জন্য উপযুক্ত হবেন। আপনার এই চ্যানেলোটি যদি বিশাল বড় সাবস্ক্রাইব অর্জন করতে পারে তাহলে আপনিও মাসে লাখ থেকে কোটি টাকা আয় করতে পারেন। সারাবিশ্বের অনেক ইয়উটিউবার আছেন যারা প্রতিমাসে লাখ থেকে কোটি টাকা ইনকাম করে থাকনে।

আরো পড়ুনঃ নিজেই নিজের আত্মকর্মসংস্থান করার উপায়

ব্লগিং করে মাসে কোটি টাকা আয়

যারা লেখালেখি করতে ভালোবাসেন তাদের জন্য মাসে কোটি টাকা আয় করার সুযোগ রয়েছে। অনেকেই ভাবতে পারেন, আসলেও ব্লগিং করে মাসে কোটি টাকা আয় করা সম্ভব। আমি বলব সম্ভব। যদি আপনি ঠিকঠাকভাবে কাজ করেন। 

ব্লগিং করতে হলে আপনাকে প্রথমে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে হবে, এরপর আপনি যে বিষয় ভালো জানেন সে বিষয়ে প্রতিনিয়ত আর্টিকেল প্রকাশ করতে হবে। আপনার ওয়েবসাইটে যখন ভিজিটর আসা শুরু করবে তখনই আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। 

ব্লগিং থেকে কয়েকভাবে টাকা আয় করার উপায় রয়েছে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে, বিজ্ঞাপন দিয়ে, গেস্ট পোস্ট সার্ভিস দিয়ে, ব্যাকলিংক সার্ভিস দিয়ে, আর্টিকেল রাইটিং সার্ভিস দিয়ে, স্পনসর পোস্ট দিয়ে এবং ওয়েব ডিজাইন সার্ভিস দিয়ে আপনি লাখ থেকে কোটি টাকা আয় করতে পারবেন।

কোর্স বিক্রি করে মাসে কোটি টাকা আয়

আপনি যে বিষয়ে পারদর্শী আছেন সে বিষয়ে যদি একটি কোর্স বানিয়ে বিক্রি করতে পারেন। আর কোর্সের মূল্য যদি হাজার টাকার উপরে হয় তাহলে আপনি নিশ্চিত কোটি টাকা আয় করতে পারেন। মনে করুন আপনি অ্যানিমেশনের উপর একটি ভিডিও কোর্স তৈরি করলেন। এবং কোর্সের মূল্য রাখলেন ৫,০০০ টাকা এখন আপনার কোর্স ২০০ জন ক্রয় করল। 

তাহলেই বুঝতেই পারছেন যে আপনার কোর্স বিক্রি করে কত টাকা আয় করা সম্ভব। তবে মনে রাখবেন, আপনি কোর্স ভিডিও এমনভাবে তৈরি করবেন যাতে করে আপনার স্টুডেন্টরা আপনার কোর্স করে সন্তুষ্ট থাকে। নতুন কিছু শিখতে পারে।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে মাসে কোটি টাকা আয়

যারা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে টাকা আয় করতে চাচ্ছেন তারা জানেন কি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে মাসে লাখ টাকা থেকে শুরু করে এককোটি টাকা আয় করা সম্ভব। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হচ্ছে অন্য কোম্পানীর পণ্য আপনি প্রমোট করে দিবেন। 

এবং প্রমোট করার পর যে টাকা বিক্রি হবে তার ১০% থেকে ৫০% কমিশন দেওয়া হবে। তাহলে আপনি বুঝতেই পারছেন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে কত টাকা আয় করা সম্ভব। কোটি টাকা আয় করার উপায় হিসেবে এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা

অ্যাপ অথবা গেম তৈরি করে মাসে কোটি টাকা আয়

আপনি যদি গেম বা অ্যাপ ডেভলপার হয়ে থাকেন তাহলে আপনার জন্য সুখবর রয়েছে কেননা বিভিন্ন মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলো তাদের কোম্পানির নিয়ন্ত্রণ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেন। 

আপনি যদি এসকল মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির কোনো অ্যাপ ডেভলপার হয়ে কাজ করতে পারেন তাহলে একটি এপ্লিকেশন তৈরি করার মাধ্যমে আপনাকে কোটি টাকার বেশি প্রদান করা হতে পারে। গেমের ক্ষেত্রের ব্যাপার টা একই রকম।

শেয়ার বাজার ইনভেস্ট করে মাসে কোটি টাকা আয়

শেয়ারবাজারে ইনভেস্ট করার জন্য আপনার মূলধন হয়তো অনেক বেশি টাকা লাগবে। একটি বিও একাউন্ট (বাংলাদেশে শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করার জন্য আপনার একটি ব্রোকার হাউজে একটি BO (Beneficiary Owner’s) অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে) খোলার মাধ্যমে আপনি শেয়ার বাজারের শেয়ার কেনাবেচা করতে পারবেন। 

বিভিন্ন ধরনের পণ্য যেগুলোর দাম ভবিষ্যতে বাড়তে পারে এবং মানুষের চাহিদা ব্যাপক রয়েছে এ জিনিস শেয়ার কেনার মাধ্যমে আপনি মোটা অংকের টাকা ইনকাম করতে পারবেন বলে মনে করি। বাংলাদেশে অনেক মানুষ আছে যারা শেয়ার বাজারে টাকা ইনভেস্ট করে মাসে কোটি টাকা আয় করেছে।

ক্রিপ্টো কারেন্সিতে বিনিয়োগ করে কোটি টাকা আয়

ইদানীং দেখা যাচ্ছে ক্রিপ্টো কারেন্সিতে বিনিয়োগ করেও মানুষ ধনী হয়েছে, ক্রিপ্টোকারেন্সিতে ব্যাপক আস্ফালন হয়েছে! সম্প্রতি খবর ছিল যে 9 বছর আগে একজন ব্যক্তি ক্রিপ্টোকারেন্সিতে 6 লাখ বিনিয়োগ করেছিলেন, যা এখন বেড়ে 216 কোটি টাকা হয়েছে! 

ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগ করেই মানুষ কোটিপতি হয়ে গেছে এমন কত উদাহরণ আপনি পাবেন না জানি! তবে বিনিয়োগে ঝুঁকি অবশ্যই আছে! এখানে কোন গ্যারান্টি নেই! এজন্য আপনাকে বিনিয়োগের পদ্ধতিও শিখতে হবে! তাহলে আপনারও যদি এই প্রশ্ন থাকে যে কিভাবে এক বছরে এক কোটি টাকা আয় করা যায়। কিভাবে কোটিপতি হবেন! তাই আপনি ক্রিপ্টো কারেন্সিতে বিনিয়োগ করতে পারেন!

শেষ কথাঃ কোটি টাকা আয় করার উপায়

আশা করি আমাদের আলোচনা করা তথ্যগুলোর ভিত্তিতে আপনি সহজেই কোটি টাকা আয় করার উপায় সম্পর্কে জানতে পারছেন। আজকের আলোচনা শেষে আমি কিছু কথা বলতে চাই, কোটি টাকা আয় করার উপায় অনেকের কাছে শুনতে অদ্ভুত মনে হলেও আমদের দেশের অনেক ব্যবসায়ী, উদ্যক্তা, অ্যাপ ডেভেলপার, গেম ডেভেলপার, ইঞ্জিনিয়ার আছে তারা মাসে কোটি টাকা আয় করেছে। 

তারা যদি মাসে কোটি টাকা আয় করতে পারে তাহলে আপনি কেন পারবেন না। চেষ্টা করুন। আপনি যে কাজ করতে পছন্দ করেন সেই কাজ নিয়ে লেগে থাকুন, দেখবেন কয়েক বছর পরে আপনিও মাসে কোটি টাকা আয় করছেন। কোটি টাকা আয় করার উপায় লেখাটি আপনার কাছে কেমন লেগেছে তা অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।

0 Comments