Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/09/rocket-account-kholar-niyom.html

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম — রকেট একাউন্ট হচ্ছে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। যার মাধ্যমে সারা বিশ্বে সবাই এটার মাধ্যমে টাকা লেনদেন করতে পারছে খুব সহজেই। টাকা পাঠাতে পারছে তাদের প্রিয়জনদের কাছে। রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম খুবই সহজ। যারা ফ্রিল্যান্সিং করে তারা টাকা লেনদেন করার জন্যে বিকাশ, রকেট, নগদ এই অ্যাপগুলো ব্যবহার করে থাকে। রকেট একাউন্ট খোলার অনেক সুযোগ সুবিধা পাওয়া যায়। তাহলে জানা যাক কি উপায়ে রকেট একাউন্ট খুলবেন এবং রকেট একাউন্ট ব্যবহারের সুবিধা গুলো কি কি পাবেন। আসুন জেনে নেইঃ 

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

রকেট একাউন্ট কি

রকেট হলো মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। যেটার মাধ্যমে আপনি মোবাইলের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করার সুযোগ পাবেন। মোবাইলের মাধ্যমেই এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে টাকা লেনদেন করতে পারবেন। রকেটের আগের নাম ছিল ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং। এটার নাম এখন পরিবর্তন করে রকেট করা হয়েছে। ডাচ বাংলা কর্তৃক এটি পরিচালিত হয়। এখন এটাই বাংলাদেশে সর্বপ্রথম মোবাইল ব্যাংকিং সেবা হিসেবে পরিচালিত।

আরও পড়ুনঃ মোবাইল ব্যাংকিং কি | মোবাইল ব্যাংকিং এর সুবিধা

রকেট একাউন্ট খুলতে যা যা লাগে তা হলো

১। মোবাইল নাম্বার

২। জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর

৩। মোবাইলে রকেট অ্যাপ ডাউনলোড করা লাগবে এবং

৪। ইন্টারনেট কানেকশন থাকা লাগবে

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

একাধিক পদ্ধতিতে নতুন রকেট একাউন্ট খোলা যাবে। রকেট অ্যাপের পাশাপাশি রকেট মোবাইল ব্যাংকিং মেনু ব্যবহার করে রকেট একাউন্ট খোলা যাবে। এছাড়াও আপনার নিকটস্থ এজেন্ট কিংবা রকেট গ্রাহক সার্ভিস পয়েন্টে গিয়ে রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন। চলুন জেনে নেই রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে। *322 # ডায়াল করে রকেট অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম। মোবাইল দিয়ে *322 # ডায়াল করে রকেট অ্যাকাউন্ট খুলতেঃ

১। মোবাইল থেকে *322 # ডায়াল করুন

২। রকেট একাউন্ট অ্যাক্টিভ করতে 1 লিখে সেন্ড করুন

৩। তারপর আপনার রকেট অ্যাকাউন্টের পিন সেটআপ করতে বলা হবে

৪। 4 ডিজিটের গোপন পিন নম্বর লিখে রিপ্লে দিন

উপরোক্ত পদ্ধতি সম্পন্ন করার পরে এসএমএস এর মাধ্যমে আপনার রকেট একাউন্ট সম্পর্কিত তথ্য জানানো হবে। এটা হচ্ছে রকেট একাউন্ট খোলার প্রথম পর্যায়। তারপর আপনাকে নিকটস্থ রকেট এজেন্ট পয়েন্ট/ডিবিবিএল শাখা/রকেট অফিস কিংবা ডিবিবিএল এজেন্ট অফিসে নিচের কাগজপত্রসহ যোগাযোগ করতে হবেঃ

১। পাসপোর্ট সাইজের এক কপি ছবি

২। জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি

এরপর আপনাকে রকেট অ্যাকাউন্ট খোলার ফর্ম অর্থাৎ KYC দেওয়া হবে যা ফিংগারপ্রিন্ট এবং স্বাক্ষরসহ জমা দিতে হবে। এরপর তিন থেকে পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে আপনার রকেট একাউন্ট একটিভ করা হবে যা আপনাকে এসএমএস এর মাধ্যমে জানানো হবে।

আরও পড়ুনঃ বিকাশ অফার 2021 | নতুন বিকাশ একাউন্ট অফার 2021

অ্যাপ ব্যবহার করে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

উপরোক্ত প্রক্রিয়া আপনার কাছে ঝামেলা মনে হলে আপনি রকেট অ্যাপ দিয়ে খুবই সহজে রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন। ঘরে বসে রকেট অ্যাপ দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে যা যা করতে হবেঃ

১। প্রথমে গুগল প্লে স্টোরে অথবা অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে রকেট অ্যাপটিকে ইন্সটল করুন

২। তারপরে আপনাকে ভাষা সিলেক্ট করতে বলবে, আপনি এখানে English ভাষা সিলেক্ট করে Next করবেন

৩। তারপর আপনার মোবাইল নম্বর দিয়ে Next করুন

৪। You are not registered to mobile banking. do you want to register? লেখা দেখতে পেলে আপনি Yes চাপুন

৫। এরপরে আপনার ফোন নম্বর অপারেটর সিলেক্ট করে Next অপশন চাপুন

৬। তারপর আপনার মোবাইলে ফোনে একটি কল চলে আসবে যেখানে আপনার রকেট অ্যাকাউন্টের গোপন পিন নম্বর সেট করতে বলা হবে। কলে থাকা অবস্থাতে আপনাকে গোপন পিন নম্বরের ডিজিটগুলো চাপুন

৭। উল্লেখ্য যে, এই পিন নম্বর লগ ইন করার সময় কাজে লাগবে তাই এই পিন নম্বরটি মনে রাখবেন

৮। পিন সেটআপ করার পরে ৬ ডিজিটের একটি ওটিপি (ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড) আসবে আপনার ফোন নাম্বারে

৯। রকেট অ্যাপসে ফিরে গিয়ে Go to Verification Step নির্বাচন করুন

তারপর প্রদর্শিত পেজে আপনার রকেট একাউন্টের মোবাইল নম্বর, এসএমএস এর মাধ্যমে পাওয়া গোপন কোড ও রকেট একাউন্টের পিন প্রদান করুন এবং Verify চাপুন। এরপর আপনাকে রকেট অ্যাকাউন্টের লগিন পেজ দেখানো হবে। যেখানে ফোন নম্বর এবং পিন দিয়ে লগ ইন করতে পারবেন। রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে তো জানলেন। এবার আপনাকে রকেট একাউন্টের KYC আপডেট করতে হবে রকেট অ্যাপ থেকেই। উল্লেখ্য হলো, KYC আপডেট না করলে আপনার রকেট একাউন্টটি কিন্ত অ্যাক্টিভ হবেনা অর্থাৎ রকেট একাউন্টের সুবিধাগুলো ভোগ করতে আপনি পাবেন না।

আরও পড়ুনঃ নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর সুবিধা

রকেট একাউন্ট এর KYC আপডেট করার নিয়ম

১। রকেট অ্যাপে লগ ইন করে UPDATE YOUR KYC এই লেখাতে ক্লিক করুন

২। শর্তাবলী পেজ প্রদর্শিত হলে সেখানে Agree অপশনে ক্লিক করুন

৩। নির্দেশাবলী প্রদর্শিত হওয়ার পর Next চাপুন

৪। তারপর Front Side Photo সিলেক্ট করে এনআইডি কার্ড এর সামনের অংশ ছবি তুলুন

৫। এরপর Back Side Photo অপশন সিলেক্ট করে এনআইডি কার্ডের পিছনের পাশের ছবি তুলে Next ক্লিক করুন

৬। তারপর এনআইডি কার্ড থেকে প্রাপ্ত সব তথ্য প্রদর্শিত হলে সেসকল সঠিক আছে কি-না যাচাই করে Next এ ক্লিক করুন

৭। আপনার Gender নির্বাচন করুন

৮। আপনি Married কি-না Unmarried সেটা নির্বাচন করুন

৯। আপনার Religion বা ধর্ম সিলেক্ট করুন

১০। Occupation অর্থাৎ আপনার পেশা সিলেক্ট করে নিন

১১। এরপর একাউন্টের ব্যবহার সেট করতে Purpose of Education সিলেক্ট করে নিন

১২। তারপরে আপনার সেলফি তুলতে হবে সেখানে সেলফি তুলুন

১৩। ছবি তোলার সময় বেশ কয়েকবার চোখ খুলুন এবং বন্ধ করলে আপনা আপনি ছবি উঠে যাবে এবং তারপর Next চাপুন

উপরোক্ত সকল তথ্য প্রদান করা হলে কয়েক মিনিটের মধ্যেই আপনার নতুন রকেট একাউন্ট ওপেন হবে। রকেট একাউন্টের হোম পেজে গেলে আপনার রকেট একাউন্ট খোলার বোনাস ব্যালেন্সে দেখতে পারবেন।

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

বিভিন্ন উপায়ে একাউন্ট খোলা যাবে। এছাড়া আপনার নিকটস্ত যদি কোনো এজেন্ট থাকে সেখান থেকেও একাউন্ট খুলতে পারবেন। *৩২২# কোড ডায়াল করেন। ডায়াল করার আপনাকে একটা অপশন দেখাবে সেটাতে সম্মতি দিবেন। এরপর আরো অপশন আসবে পিন সেট করতে। আপনার পিন দিবেন। পিন সেট করে ok প্রেস করে দেন। কিছুক্ষন পরে আপনার ফোনে একটা মেসেজ আসবে সেটাই আপনার রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বিকাশে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করার নিয়ম

রকেট এজেন্ট খুলতে কি লাগে

রকেট এজেন্ট খুলতে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র (NID CARD )ও আপনার যাবতীয় তথ্য সাথে করে নিয়ে নিকটস্থ এজেন্টে যোগাযোগ করুন। তারা নিজ দায়িত্বে আপনার রকেট এজেন্ট একাউন্ট খুলে দিবে।

রকেট একাউন্ট ব্যবহারে সুবিধা

যা সুবিধা পাওয়া যাবে তা হচ্ছে সহজে টাকা ক্যাশ ইন করা, টাকা জমা রাখতে পারবেন। টাকা তুলতেও পারবেন। আবার এটিএম বুথ থেকে টাকা তুলতে পারবেন। মোবাইলে রিচার্জ করে ফোন টাকা আনতে পারবেন। টাকা সেন্ড মানি করে দিতে পারবেন অন্যকে। এছাড়া বিদ্যুৎ বিল, ইন্টারনেট বিল, পানি বিল, গ্যাস বিল এই রকেট একাউন্টের মাধ্যমে দিতে পারবেন। রকেট একাউন্টে সেন্ড মানিতে কোনো চার্জ কাটা হয়না। সম্পূর্ণ ফ্রিতে টাকা সেন্ড মানি করা যাবে।

রকেট একাউন্ট থেকে ক্যাশ আউট করতে গেলে ১.৮ শতাংশ হরে চার্জ প্রযোজ্য হবে। প্রতি ১ হাজার টাকায় চার্জ কাটা হবে ১৮ টাকা। আবার যদি ডিবিবিএল এটিএম থেকে টাকা তুলার ক্ষেত্রে ০.৯ চার্জ কাটা হবে।

যেভাবে রকেট একাউন্ট টাকা দেখা যাবে

প্রথমে *৩২২# ডায়াল। তারপর ব্যালান্স অপশন দেখতে ৫ নম্বর অপশনে ক্লিক করুন। তারপরে পিন প্রবেশ করুন আপনার একাউন্টের। ঠিক পিন দিয়ে ইন্টার করে ব্যালান্স দেখতে পারবেন। পিন চেঞ্জ করতে চাইলেও ৫ নম্বর অপশন ক্লিক করে my একাউন্ট যাবেন। এরপর ৩ লিখবেন চেঞ্জ পাসওয়ার্ড অপশন আসবে বর্তমান পিন চাবে সেটা দিন। এরপর নতুন পিন পর পর দুইবার ইন্টার করুন। এভাবে করলে আপনার একাউন্টের পিন চেঞ্জ হয়ে যাবে।

যদি কখনো একাউন্টের পিন নম্বর ভুলে যান তাহলে যেটা করবেন। বিভিন্ন ভাবে পিন সেট করা যাবে। ডাচ বাংলা ব্যাংকের যেকোনো শাখা থেকে একাউন্টের পিন নম্বর ভুলে যান তাহলে রিসেট করে দেন। এছাড়া রকেট হেল্পলাইন ১৬২১৬ নম্বরে কল করেন পিন রিসেট নিয়ে জানতে পারেন। যেই নম্বর থেকে একাউন্ট ওপেন করছেন সেই নম্বর দিয়ে কল দিয়েও পরামর্শ নিতে পারবেন। এছাড়াও হেল্পলাইন থেকে NID কার্ডের যে একাউন্ট খুলেছেন সেটার তথ্য চাওয়া হয়ে থাকে। 

আরও পড়ুনঃ বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম | বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া