সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের নাম

আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি জানতে পারবেন সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের নাম ও দাম। বিশেষজ্ঞরা সাইপারমেথ্রিনকে একটি আদর্শ কীটনাশক বলেছেন। কারণ এটি সকল ধরনের পোকা দমনের জন্য দ্রুত কাজ করে। তাছাড়া সাইপারমেথ্রিন দামেও খুব সাশ্রয়ী।

এ আর্টিকেল থেকে আপনি আরো জানতে পারবেন সাইপারমেথ্রিনে এর কাজ কি? সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের নাম ও কোম্পানি নাম। সাইপারমেথ্রিন কোন কোন ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায় এবং এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কেও আপনার জানা দরকার। সাইপারমেথ্রিন কীটনাশকের নাম জানতে লেখাটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের নাম

(toc) #title=(এক নজরে সম্পূর্ণ লেখা পড়ুন)

সাইপারমেথ্রিন মানে কি ?

সাইপারমেথ্রিন (Cypermethrin) এক প্রকার সিনথেটিক পাইরিথ্রয়েড কীটনাশক যা বিশ্বব্যাপী কৃষি ও গার্হস্থ্য কীটপতঙ্গ দমনে ব্যাপক ব্যবহৃত হয়ে থাকে। পাইরিথ্রয়েড সংগ্রহ করা হয়ে থাকে সূর্যমুখী ও ডালিয়া জাতীয় ফুলের বিট এবং পাপড়ি থেকে তারপর এটিকে কেমিক্যালি মডিফাই করে সাইপারমেথ্রিনে রূপান্তর করা হয়। তাছাড়া পোকামাকড় দমন ও গবাদি পশু চিকিৎসার ক্ষেত্রে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারবেন। আশা করি সাইপারমেথ্রিন সম্পর্কে সঠিক ধারণা পেয়েছেন।

সাইপারমেথ্রিনে এর কাজ কি?

 সাইপারমেথ্রিন এর কাজ বিস্তর। এটি স্পর্শক এবং পাকস্থলী ক্রিয়া সম্পন্ন কীটনাশক। এটি সরাসরি পোকামাকড় বা কী পতঙ্গের গায়ে পড়লে মারা যায়। তাছাড়া প্রয়োগকৃত গাছের পাতা ফুল ফল বা ডগা থেকে পোকামাকড় যদি কুরে খায় তাহলেও তারা মারা যায়। সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক নার্ভ সিস্টেমকে বন্ধ করে দেয় ফলে পোকামাকড় গুলো হাঁটাচলা করতে কিংবা খাদ্যগ্রহণ ও শ্বাস প্রশ্বাস নিতে পারে না এর প্রয়োগের ফলে পোকামাকড়ের স্নায়ুকোষ নিউরন নার্ভাস টিস্যু এবং স্নায়ুতন্ত্র সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস হয়ে যায়।

আরো পড়ুন: ইনতেফা কীটনাশক তালিকা

সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের নাম

সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের বাণিজ্যিক নামগুলো হল রিপকর্ট, রেলোথ্রিন, কট, ল্যাম্পার, শেফা, কৃপকর্ড, মেসি, সানমেরিন, সুরক্ষা, টপথ্রিন, টাইপার, জেনেথ্রিন, কিনথ্রিন। সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের যে সকল কোম্পানির কীটনাশক পাওয়া যায় সেগুলো হল অটোক্রপ কেয়ার, এসি আই ক্রপ কেয়ার, দি লিমিট এগ্রো প্রডাক্টস, ইনতেফা, মর্ডান এগ্রো কেমিক্যাল, ক্লিন এগ্রোভেট, ম্যাকডোনাল্ড, হেকেম বাংলাদেশ, ব্লেসিং এগ্রোভেট, সুইট এগ্রোভেট, জেনেটিকা, কৃষি ক্রপকেয়ার।

বাণিজ্যিক নাম কোম্পানির নাম
রিপকর্ট ১০ ইসি অটোক্রপ কেয়ার
রেলোথ্রিন ১০ ইসি দি লিমিট এগ্রো প্রডাক্টস
কট ১০ ইসি কৃষি ক্রপকেয়ার
ল্যাম্পার ১০ ইসি ব্লেসিং এগ্রোভেট
শেফা ১০ ইসি ইনতেফা
সুরক্ষা ১০ ইসি এসি আই ক্রপ কেয়ার
জেনেথ্রিন ১০ ইসি হেকেম বাংলাদেশ
কিনথ্রিন ১০ ইসি ম্যাকডোনাল্ড
মেসি ১০ ইসি ক্লিন এগ্রোভেট

সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের দাম

  • রেলোথ্রিন ১০ ইসি (সাইপারমেথ্রিন)- মশা, জাব পোকা, লিফ হপার দমন করে। ১০০ মিলি এর দাম মাত্র ১৩০ টাকা।
  • নাইট্রো ৫০৫ ইসি - Nitro 505 EC chlorpyrifos and cypermethrin একটা স্পর্শক, পাকস্থলীর ও শ্বাসরোধক ক্রিয়া সম্পন্ন অর্গানো ফসফরাস এবং সিন্থেটিক পাইরিথ্রয়েড কীটনাশক দ্বযের মিশ্রণে তৈরি একটি শক্তিশালী তরল কীটনাশক। ক্লোরপাইরিফস এবং সাইপারমেথ্রিনএর সক্রিয় উপাদান আছে। এটি ১০০ থেকে ১৭২ টাকার মধ্যেই পাওয়া যায়।
  • বর্তমানে রিপকর্ড ছাড়া প্রায় প্রতিটা কোম্পানির ১০০ মিলি সাইপারমেথ্রিন পাওয়া যায়। ৮০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যে এগুলো পাওয়া যায়। তবে ৫০০ মিলি নিতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা ব্যয় করতে হবে।

সাইপারমেথ্রিন প্রয়োগ পদ্ধতি

কট ১০ ইসি: প্রতি ১০ লিটার পানিতে পাঁচ শতাংশ জমির জন্য ১০ মিলি ব্যবহার করতে হবে। আম গাছে পোকা দেখা গেলে ব্যবহার করতে। বিকালে স্প্রে করুন। পানির সাথে মিশিয়ে স্প্রে করাই উত্তম। কট ১০ ইসিতে ১০% সাইপারমেথ্রিন থাকে। সর্বনিম্ন ৪৪ টাকার পাওয়া যায়।

দামদামা গোল্ড ৪৪ ইসি: দামদামা গোল্ড ৪৪ ইসি স্পর্শকও পাকস্থলীর বিষক্রিয়া সম্পূর্ণ কার্যকরী কীটনাশক। সকল ফসলে প্রতি লিটার পানিতে ২ মিলি তবে তুলার ও জেসিডের ক্ষেত্রে ৪.৮ মিলি এবং বল ওয়ার্ম এর ক্ষেত্রে ৬.৪ মিলি দামদামা গোল্ড ৪৪ ইসি মিশিয়ে ব্যবহার করুন।

দামদামা গোল্ড ৪৪ ইসি প্রয়োগ করার ১৪ থেকে ২১ দিনের মধ্যে গবাদি পশুহাস ও মুরগি খেতে প্রবেশ করতে দিবেন না এবং উক্ত সময়ের মধ্যে ফসল তুলবেন না বা খাবেন না। দামদামা গোল্ড ৪৪ ইসি একই সাথে ডিম কিটও পরিণত পোকা দমন করে। এতে প্রায় প্রফেনোফস ৪০% থাকে এবংসাইপারমেথ্রিন থাকে মাত্র ৪%। পেয়ারা, বড়ই, লিচু ও কুমড়া জাতীয় ফসল এবং তুলা, কলা ইত্যাদিতে এটি ব্যবহার করা যায়।

মিমসাইপার: আমের হুপার, বেগুনের ডগা ও ফল ছিদ্রকারী পোকা, তুলার বলওয়ার্ম, অন্যান্য সব্জির ফল ছিদ্রকারী পোকা, আলুর কটুই পোকা দমন করে। প্রয়োগ মাত্রাঃ আম ১০ লিটার পানিতে ১০ মিলি, শাকসবজি ২০০ মিলি, পাট ২০০ মিলি, তুলা ২০০ মিলি, আলু ২০০ মিলি প্রতি একরে।

আরো পড়ুন: ভুট্টার মাজরা পোকা দমনে কীটনাশক ১০০% কার্যকরী

সাইপারমেথ্রিন কোন কোন ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায় ?

বিভিন্ন ফসলে আপনি সাইপারমেথ্রিন ব্যবহার করতে পারবেন। বেগুনের ডগা ও ফল ছিদ্রকারী পোকার জন্য সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক ভালো কাজ করে। এছাড়াও বেগুনের জাব পোকা দমনে এটি ব্যবহার করতে পারেন। ঢেঁড়সের ডগা ও ফলের জন্য এবং মরিচের জাব পোকা রোধে এটি বেশ উপকারী। তাছাড়া বিভিন্ন ফলের মাছি পোকা দমনে ব্যবহার করতে পারেন।

লাউ, করলা ও কুমড়ার মাছি পোকা রোধে অবশ্যই সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক ব্যবহার করতেই হবে। সিম ও আলু, তুলা, পাটের বিছা পোকা জাব পোকা রোধে। পাটের বিছা পোকা, আমের হোপার পোকার জন্য ভাল কাজ করে। সর্বোপরি সব ধরনের ফলের মাছি পোকার জন্য সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক ভালো কাজ করে।

আরো পড়ুন: বাংলাদেশের সেরা কীটনাশক কোম্পানির তালিকা

সাইপারমেথ্রিন পার্শপ্রতিক্রিয়া

ফলমূল এবং শাকসবজিতে সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক ব্যবহার করলে অন্তত এক সপ্তাহ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। অন্যান্য সাধারণ কীটনাশকের সাথে মিশিয়েও স্প্রে করা যায়। আপনি যদি সাইপারমেথ্রিন এর সাথে অন্যান্য কীটনাশক ব্যবহার করতে চান তাহলে অবশ্যই আগে থেকে সাইপারমেথ্রিন পানিতে গুলিয়ে পরে অন্য সাধারণ কীটনাশক গুলো মেশালে ভালো কাজ করবে।

এটি মানুষের জন্য খুব বেশি বিষাক্ত নয় তবে মৌমাছি, কীটপতঙ্গ এবং অমেরুদন্ডী প্রাণীদের জন্য খুবই বিষাক্ত। যেহেতু, পোকামাকড় সব সময় ক্ষতিকারী হয় না কিছু কিছু উপকারী পোকামাকড়ও রয়েছে কিন্তু সাইপারমেথ্রিন এর প্রয়োগ উপকারী এবং অপকারী দুই ধরনের পোকামাকড়ই দমন করে। এজন্য সাইপারমেথ্রিন প্রয়োগের ক্ষেত্রে নিশ্চয়ই সতর্ক থাকবেন। ধান এবং অন্য কিছু ফসলের ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা অনুৎসাহিত করেছেন।

আরো পড়ুন: ধানের মাজরা পোকা দমনের কীটনাশক

শেষকথা

সর্বোপরি সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক গুলো ফল এবং সবজির পোকা দমনের জন্য খুবই উপকারী। তাই আশা করি সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশকের নাম ও দাম আর্টিকেলটি আপনাদের অবশ্যই উপকারে আসবে।

পোষ্ট ক্যাটাগরি:

এখানে আপনার মতামত দিন

0মন্তব্যসমূহ

আপনার মন্তব্য লিখুন (0)