দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল

হাসিবুর
By -
0
দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল

দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল জানার প্রয়োজন পড়ে অনেকেরই। কেননা বিয়ে হচ্ছে একজন নারী এবং পুরুষের জীবনের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। যা মহান আল্লাহ তায়ালার এক বিশেষ নিয়ামত এবং রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর গুরুত্বপূর্ণ একটি সুন্নত।

ইসলামিক দৃষ্টিকোণ থেকে আদর্শ পরিবার গঠন, বৈধ উপায়ে মানুষের জৈবিক চাহিদা পূরণ এবং মানসিক প্রশান্তি লাভের প্রধান উপকরণ হচ্ছে বিয়ে। আর এটা হচ্ছে প্রত্যেকটা মানুষের স্বভাবজাত চাহিদা।

কিন্তু আমাদের মাঝে কিছু কিছু মানুষের খুবই দেরিতে বিবাহ হয়। যে কারণে অনেকেই অনেক খারাপ কাজ করে ফেলেন অথবা এ ব্যাপারে চিন্তিত থাকেন। আর তাই কখনো কখনো অনেকেই জানার আগ্রহ প্রকাশ করেন দ্রুত বিয়ে এবং উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল হিসেবে কি কি করা যেতে পারে!

অর্থাৎ দ্রুত বিয়ে হওয়ার আমল কি, ভালো পাত্র পাওয়ার দোয়া কি, উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার মাধ্যম কি, আর মেয়েদের তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার আমলই বাকি! যারা এ সম্পর্কে জানতে চান তারা আজকের আর্টিকেলটি স্কিপ না করে শেষ পর্যন্ত পড়ে ফেলুন। কেননা দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করা হয়েছে আমাদের আজকের এই লেখাটিতে।

(toc) #title=(সূচিপত্র)

ইসলামিক দৃষ্টিতে দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার জন্য বেশ কিছু আমলের কথা উল্লেখ রয়েছে। আর তাছাড়াও বিয়ে নিয়ে তাড়াহুড়োর কিছুই নেই। কেননা সামর্থ্য এবং সময় হলে মহান আল্লাহ তাআলার অশেষ নেয়ামতে অবশ্যই সঠিক ব্যক্তির সাথেই আপনারও বিবাহ সম্পন্ন হবে অর্থাৎ আপনি আপনার জন্য উপযুক্ত জীবনসঙ্গী পেয়ে যাবেন।

দেখুন আমরা যারা মুসলিম ধর্মাবলম্বীর অন্তর্ভুক্ত তারা অবশ্যই ভাগ্যকে বিশ্বাস করি। অতএব মহান আল্লাহ তা'আলা আমাদের ভাগ্যে যেটা লিখে রেখেছেন সেটাই ঘটবে আমাদের সাথে। তবে হ্যাঁ ভাগ্যেরও পরিবর্তন ঘটে। সেটা হচ্ছে দোয়া ও আমল করার মাধ্যমে।

কেননা আমরা যদি সর্বদা খারাপ কাজে লিপ্ত থাকি তাহলে মহান আল্লাহ তা'আলা আমাদের সাথে খারাপ কিছু করারই সিদ্ধান্ত নেবেন বা আমাদের জন্য যেটা ভালো নয় সেটাই আমাদের সাথে ঘটবে। কিন্তু আমরা যদি অনুতপ্ত হই এবং মহান আল্লাহর নির্দেশনা অনুযায়ী নিজেদের জীবন অতিবাহিত করি সর্বদা পাপাচার এবং মিথ্যাচার থেকে দূরে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের ভাগ্যে সবচেয়ে ভালো সবচেয়ে উত্তম জিনিসই ধার্য করবেন সৃষ্টিকর্তা।

আর তাই বিয়ের ব্যাপারেও আপনি মহান আল্লাহ তায়ালার নিকট বিভিন্ন দোয়া বা আমল করতে পারেন। আশা করা যায় গুরুত্বপূর্ণ কিছুর দোয়া নিয়মিত পাঠ করলে দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাবেন আপনি। তাহলে এবার আসুন আমল হিসেবে কিছু কিছু বিষয়ে জেনে নেওয়া যাক যে আমলগুলো আপনাকে আদর্শ জীবনসঙ্গী পাইয়ে দেবে।

আরো পড়ুনঃ সাইয়েদুল ইস্তেগফার বাংলা উচ্চারণ সহ - তওবার শ্রেষ্ঠ দোয়া সাইয়েদুল ইস্তেগফার

দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল

  • দোয়া ও ইবাদত করা
  • গুনাহের কাজ ছেড়ে দেওয়া
  • ইস্তেখারা নামাজ আদায়
  • নিজেকে দ্বীনদার হিসেবে গড়ে তোলা
  • আমল ও আচরণের সাবর
  • গুনাহ এবং হারাম থেকে বিরতি
  • তাওবা ও ইস্তেগফার করুন
  • মাতা পিতার সেবা করা

১। দোয়া ও ইবাদত করা

একমাত্র পূর্ণ জীবনসঙ্গী পাওয়ার জন্য আল্লাহ সুবহানু ওয়া তা'আলার নিকট দোয়া এবং তার এবাদত করা এবং এবাদতের মাধ্যমে তার নিকট উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার অনুরোধ করা হলো দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার একটি অন্যতম মাধ্যম। কেননা এবাদতকারী ব্যক্তির ইচ্ছা আকাঙ্ক্ষা মহান আল্লাহ তায়ালা সর্বদা পূরণ করেন, অন্যদিকে বেশি বেশি দোয়া পাঠ আমাদের ভাগ্যে পরিবর্তন আনে।

২। ইস্তেখারা নামাজ আদায়

ইস্তেখারার নামাজ আদায় করার মাধ্যমেও একজন মুমিন ব্যক্তি দ্রুত বিয়ে এবং উত্তম জীবনসঙ্গী পেতে পারেন। কেননা কোন কিছু নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতা থাকলে বা টানাপোড়নের মধ্যে পড়লে এই নামাজ পড়া হয়। যে নামাজ অত্যন্ত নেয়ামতপূর্ণ। তাই দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল হিসেবে আদায় করুন ইস্তেখারা নামাজ।

৩। আমল ও আচরণের সাবর

দ্রুত জীবনসঙ্গী প্রাপ্তির জন্য সাবর ও দৃঢ় নিশ্চয়তা বজায় রাখা গুরুত্বপূর্ণ। তাই মহান আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনের উদ্দেশ্যে এবং উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার ইচ্ছা পূরণের মিমিত্তে সর্বদা দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ থাকুন এবং ধৈর্য ধারণ করুন। কেননা সৃষ্টিকর্তা সঠিক সময়ে আমাদের সর্বোত্তম জিনিসটি অবশ্যই উপহার দেবেন।

৪। গুনাহ এবং হারাম থেকে বিরতি

দ্রুত বিয়ে এবং উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল হিসেবে সর্বদা গুনাহ এবং হারাম কাজকর্ম থেকে নিজেদেরকে দূরে রাখার চেষ্টা করুন। এর জন্য বেশি বেশি দোয়া পাঠ করুন, মহান আল্লাহ তায়ালার ইবাদত করুন, নিয়মিত নামাজ আদায় করুন এবং নবী ও রাসূলগণের নির্দেশিত পথে চলুন। কেননা ইসলাম সর্বদা গুনাহ থেকে দূরে থাকার নির্দেশনা প্রদান করেছে।

৫। তাওবা ও ইস্তেগফার করুন

যদি ইতোমধ্যে কোন ভুল বা গুনাহ করে ফেলেন তাহলে মন থেকে মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমা চান তাওবা করুন এবং নিজেকে ইসলামের পথে ফিরিয়ে আনুন। আর হ্যাঁ পূর্ণ জীবন সঙ্গী প্রাপ্তির পরেও যদি কোন গুনাহ বা ভুল সম্পর্কে অবগত হয়ে থাকেন তাহলেও তওবা করুন এবং আল্লাহর কাছে ইস্তেগফার করুন বেশি বেশি।

কেননা মহান আল্লাহতালা পরম দয়ালু এবং ক্ষমাশীল। তিনি পরিশুদ্ধ ও প্রকৃত ঈমানদার ব্যক্তি কে সর্বদা দৃষ্টিতে রাখেন এবং যেকোনো ভুল সিদ্ধান্ত গ্রহনের কারণে ক্ষমা করেন এবং সুযোগ দেন সৎপথে ইসলামের বিধি নিষেধ মেনে চলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করবার।

৬। মাতা পিতার সেবা করা

দ্রুত বিয়ে এবং উত্তম জীবনসঙ্গের জন্য মাতা পিতাকে যত্নে রাখা এবং তাদের অনুশাসনের চলার চেষ্টা করুন। কেননা বাবা মা হলেন সেই ব্যক্তি যারা প্রত্যেকটি সন্তানের জীবনের সর্বোচ্চ ও সর্বোত্তম ব্যক্তিত্ব। ইসলামে যাদেরকে সম্মান আদর-যত্ন এবং ভাল রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ সাহাবীদের নাম অর্থসহ ছেলেদের - পুরুষ সাহাবীদের নামের তালিকা অর্থসহ

দ্রুত বিয়ে হওয়ার আমল

দ্রুত বিয়ে এবং উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল হিসেবে আমরা যে ছয়টি পয়েন্ট আলোচনা করেছি এই পয়েন্টগুলো অবশ্যই মনে রাখার চেষ্টা করবেন এবং নিজেদের জীবনে সেটা প্রয়োগ করবেন। তবে হ্যাঁ হাদিসের আলোকে দ্রুত বিয়ে হওয়ার আমল হিসেবে আরো বিশেষ কিছু বর্ণনা রয়েছে।

আর আপনি যদি দ্রুত বিয়ে হওয়ার আমল সেই সাথে দ্রুত বিয়ে হওয়ার আমল ইস্তেগফার ও বিভিন্ন দোয়া সম্পর্কে জানতে চান তাহলে দেরি না করে পড়ে ফেলুন আমাদের সাজেস্টকৃত আর্টিকেলটি। কেননা দ্রুত বিয়ে হওয়ার বিশেষ কিছু আমল ও দোয়া সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা প্রদান করা হয়েছে সেখানে। তবে হ্যাঁ আলোচনার ইতি টানার পূর্বে জেনে নিন ভালো পাত্র পাওয়ার দোয়া, উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার দোয়া এবং দ্রুত বিয়ে হওয়ার কোরআনী আমল সম্পর্কে।

ভালো পাত্র পাওয়ার দোয়া

رَبَّنَا هَبْ لَنَا مِنْ أَزْوَاجِنَا وَذُرِّيَّاتِنَا قُرَّةَ أَعْيُنٍ وَاجْعَلْنَا لِلْمُتَّقِينَ إِمَامًا

উচ্চারণ: ‘রাব্বানা হাব্লানা মিন আযওয়াঝিনা ওয়া জুর্রিয়াতিনা কুর্রাতা আইয়ুনিও ওয়াঝআলনা লিলমুত্তাক্বিনা ইমামা।’

অর্থ: ‘হে আমাদের প্রতিপালক! আপনি আমাদের এমন স্ত্রী ও সন্তান দান করুন। যারা আমাদের চোখ জুড়িয়ে দেয় আর আমাদেরকে (পুরুষদেরকে) মুত্তাকি লোকদের নেতা বানিয়ে দাও।’ (সুরা ফুরক্বান : আয়াত ৭৪)

আরো পড়ুনঃ কোন জায়গায় গেলে মানসিক শান্তি পাওয়া যায়

উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার দোয়া

মুমিন নারী-পুরুষ উত্তম জীবনসঙ্গী লাভের জন্য নিয়মিত সুরা ফাতেহা ও সুরা ইয়াসিন পড়ে দুই রাকাআত নামাজ আদায় করে অতঃপর এ দোয়া পড়বেন- কেননা এতে করে আপনি নিশ্চয়ই আল্লাহ তায়ালার নিয়ামতে লাভ করবেন উত্তম জীবনসঙ্গী-

اللَّهُمَّ ارْزُقْنِی زَوْجَةً وَدُوداً وَلُوداً شَکُوراً غَیُوراً إِنْ أَحْسَنْتُ شَکَرَتْ وَ إِنْ أَسَأْتُ غَفَرَتْ وَ إِنْ ذَکَرْتُ اللَّهَ تَعَالَى أَعَانَتْ وَ إِنْ نَسِیتُ ذَکَّرَتْ وَ إِنْ خَرَجْتُ مِنْ عِنْدِهَا حَفِظَتْ وَ إِنْ دَخَلْتُ عَلَیْهَا سُرَّتْ وَ إِنْ أَمَرْتُهَا أَطَاعَتْنِی وَ إِنْ أَقْسَمْتُ عَلَیْهَا أَبَرَّتْ قَسَمِی وَ إِنْ غَضِبْتُ عَلَیْهَا أَرْضَتْنِی یَا ذَا الْجَلَالِ وَ الْإِکْرَامِ هَبْ لِی ذَلِکَ فَإِنَّمَا أَسْأَلُکَه و لا آخِذ اِلاّ ما مَنَنْتَ و اَعْطَیْتَ

উচ্চারণ: ‘আল্লাহুম্মারযুক্বনি যাওঝাতান ওয়াদুদান ওয়ালুদান শাকুরান গাইয়ুরান, ইন আহসানতু শাকারাত ওয়া ইন আসাতু গাফারাত, ওয়া ইন জাকারতুল্লাহা তাআলা আআনাত, ওয়া ইন নাসিতু জাক্কারাত ওয়া ইন খারাঝতু মিন ইংদিহা হাফিজাত, ওয়া ইন দাখালতু আলাইহা সুর্রাত, ওয়া ইন আমারতুহা আত্বাআতনি ওয়া ইন আক্বসামতু আলাইহা আবার্রাত ক্বাসামি, ওয়া ইন গাদিবতু আলাইহা আরদাতনি ইয়া জালঝালালি ওয়াল ইকরামি হাবলি জালিকা ফা-ইন্নামা আসআলুকাহু ওয়া লা আখিজ ইল্লা মা মানানতা ওয়া আত্বাইতা।

বাংলা অর্থ: ‘হে আল্লাহ! আমাকে এমন একজন সুন্দর, সন্তান-বৎসল, শোকরগুজার জীবনসঙ্গী দান কর, যে আমার প্রতি কৃতজ্ঞ হবে যদি আমি তার সাথে ভালো ব্যবহার করি এবং আমাকে ক্ষমা করবে যদি আমি তার সাথে মন্দ ব্যবহার করি। এমন একজন সঙ্গী দান কর যে আমাকে আল্লাহর স্মরণে সাহায্য করবে এবং আমি স্মরণ করতে ভুলে গেলে আমাকে স্মরণ করিয়ে দেবে।

এমন একজন সঙ্গী দান কর যে আমার অনুপস্থিতিতে আমার প্রতিরক্ষা করবে এবং আমার উপস্থিতিতে আমাকে অনন্দিত করবে। এমন একজন সঙ্গী দান কর যে আমার কথায় গুরুত্ব প্রদান করবে এবং তার বিরদ্ধে হলেও আমার মতামতকে বিবেচনা করবে। এমন একজন সঙ্গী দান কর যে আমি রেগে গেলে আমাকে শান্ত করবে।

হে সম্মান ও মর্যাদার মালিক! আমাকে এমন সঙ্গী প্রদান কর, তার জন্য আমি তোমার কাছেই প্রার্থনা করি এবং তুমি প্রদান না করলে আমার জন্য কোনো সিদ্ধান্তই হতে পারেনা।’

আরো পড়ুনঃ বিষয় ভিত্তিক আয়াত ও হাদিস pdf download

লেখকের শেষকথা

তো সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা, দ্রুত বিয়ে হবার কুরআনি আমল সম্পর্কিত আলোচনার সমাপ্তি টানছি এখানেই। আশা করি দ্রুত বিয়ে ও উত্তম জীবনসঙ্গী পাওয়ার আমল হিসেবে অবশ্যই আমাদের উল্লেখিত বিষয়গুলো স্মরণে রাখবেন। তো সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আল্লাহ হাফেজ।

ব্লগ ক্যাটাগরি:

এখানে আপনার মতামত জানান

0মন্তব্যসমূহ

আপনার মন্তব্য লিখুন (0)

#buttons=(ঠিক আছে, ধন্যবাদ) #days=(20)

টেকনিক্যাল কেয়ার বিডি তে আপনাকে স্বাগতম. ❤️
Ok, Go it!