Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2023/04/student-visa-from-bangladesh.html

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ - প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধু, আপনি কি কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ এই ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে চাচ্ছেন। তবে, আজকের এই পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। আমাদের দেশ থেকে অনেক ছাত্র-ছাত্রী প্রায় প্রতি বছর পড়াশোনার জন্য বাইরের দেশে যাচ্ছে। আর দেশের বাইরে পড়াশোনা করার জন্য অবশ্যই স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে হয়।

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ
সূচিপত্রঃ কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ

আপনি যদি কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ এই ব্যাপারে জানতে চান তবে এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে সম্পূর্ণ পড়ুন। তবে চলুন জেনে নেই কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ হবে এই ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জেনে নেই।

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ হবে নিয়ে কিছু কথা

আমাদের দেশের অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী আছেন তারা উচ্চ শিক্ষার জন্য করার জন্য বাইরের দেশে যেতে চায়। কিন্তু, কোন কোন দেশের স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ হবে এই ব্যাপারে সঠিক তথ্য না পাওয়ার কারণে অনেক ছাত্র ছাত্রী মেধাবী হওয়া সত্ত্বেও তারা উচ্চ শিক্ষার জন্য পড়াশোনা করতে যেতে পারে না।

তাই আপনি যদি বিদেশে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করতে চান তবে আজকের এই পোস্টটি পড়ুন। আজকের এই পোস্টটিতে আমি আপনাদের সাথে কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ হবে এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ 

সাধারণত বিভিন্ন দেশের স্টুডেন্ট ভিসা বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। আপনি যদি স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে মালয়েশিয়া যেতে চান, তবে আপনার ভিসার নিয়ম নীতি গুলো আলাদা হবে। আবার আপনি যদি ভারতে স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে চান তাহলে সেক্ষেত্রেও ভিসার নিয়ম নীতিগুলো আলাদা হবে। অর্থাৎ একেক দেশের স্টুডেন্ট ভিসার রিকোয়ারমেন্ট একেক ধরনের হয়ে থাকে।

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ এই নিয়ে আপনি নিশ্চয়ই জানতে চাচ্ছেন। সাধারণত স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া যায় সহজ হয় ভারত, চায়না, মালয়েশিয়া ও কাতার এই দেশগুলোতে। এছাড়াও আমেরিকা, কানাডা, ফ্রান্স ও অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া বেশ কঠিন। কেননা আপনি বিদেশে গিয়ে যে বিশ্ববিদ্যালয় বা কলেজে ভর্তি হতে চাইবেন সে প্রতিষ্ঠানগুলোতে অনেক রিকুয়ারমেন্ট থাকে।

এছাড়াও উন্নত দেশে পড়াশোনা করার জন্য শিক্ষার্থীর মেধাশক্তি ভালো থাকতে হবে ও IELTS স্কোর অনেক বেশি থাকতে হবে। আর যদি আপনি ইংরেজীতে ভালো দক্ষ হয়ে থাকেন। তবে, ইউরোপ মহাদেশের দেশগুলোতে স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে যেতে পারবেন। আপনি যে দেশে গিয়ে উচ্চ শিক্ষার জন্য পড়াশোনা করতে চান। সে দেশের নীতিমালা অনুসরণ করে পড়াশোনা শুরু করতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ বাংলাদেশের জন্য কোন কোন দেশের ভিসা খোলা আছে

কানাডা স্টুডেন্ট ভিসা যোগ্যতা - কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ

কানাডায় উচ্চ শিক্ষার যাওয়ার জন্য অবশ্যই আপনাকে স্টুডেন্ট ভিসা নিতে হবে। কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ হবে এটা জানার পর আপনাকে কানাডায় উচ্চ শিক্ষার স্টুডেন্ট ভিসা পেতে কি কি কাগজপত্র লাগবে এবং কি কি যোগ্যতা লাগবে তা নিচে থেকে পড়ে জেনে নিতে হবে। নিচে কানাডা স্টুডেন্ট ভিসা যোগ্যতা উল্লেখ করতে হবে। 

১। আবেদনকারীকে অবশ্যই করোণা ভ্যাকসিন নিতে হবে। 

২। প্রথমে আপনার একটি বৈধ একটি ইমিগ্রেশন/পাসপোর্ট থাকতে হবে। 

৩। কানাডা যাওয়ার জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা সর্বনিম্ন এইচএসসি পাস হতে হবে।

৪। আপনার নিজ কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছাড়পত্র গ্রহণ করতে হবে।

৫। কানাডায় যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করবেন, সেই বিশ্ববিদ্যালযয়ের আমন্ত্রণ পত্র লাগবে। 

৬। আবেদনকারীর নিজস্ব ভোটার আইডি কার্ড/অনলাইন জন্ম নিবন্ধন থাকতে হবে। 

৭। শিক্ষার্থীর কানাডায় গিয়ে বিশ্ববিদ্যালযয়ের খরচ, বাসা ভাড়া দেওয়ার খরচ ও পড়াশোনা খরচ বহন করার টাকা থাকতে হবে।

উপরোক্ত কাগজপত্র আপনাকে সংগ্রহ করে রাখতে হবে। কানাডায় পড়াশোনা করার জন্য এবং স্টুডেন্ট ভিসা পেতে এই কাগজগুলোই যথেষ্ট। এছাড়াও আপনি যদি কানাডায় উচ্চশিক্ষার জন্য যেতে চান তাহলে দ্রুত আপনার ডকুমেন্টসহ কানাডা স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন। 

আরো পড়ুনঃ ইতালি থেকে বাংলাদেশের টাকা পাঠানোর নিয়ম

আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা খরচ - কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ

বাংলাদেশ থেকে অনেক মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে আমেরিকার উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছে। বিশেষ করে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনা করছেন।

তাই আপনারা অনেক শিক্ষার্থীরা আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে পড়াশোনা করতে পারেন। আপনারা অনেক শিক্ষার্থীরাই জানতে চান আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা খরচ কত হবে এই ব্যাপারে জানতে হবে। আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা খরচ ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা খরচ হতে পারে।

আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা কি কি ডকুমেন্ট লাগবে 

আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসার জন্য বেশ কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র লাগবে। তাই আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা করার আগেই আপনি নিচে দেওয়া প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট দেখে নিতে পারেন। নিচে আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা ডকুমেন্টগুলো উল্লেখ করা হলো।

১। ডিজিটাল পাসপোর্ট 

২। পাসপোর্ট সাইজের ছবি

৩। ভ্যাক্সিন টিকা কার্ড

৪। নাগরিকত্ব সনদপত্র

৫। অফার লেটার

৬। স্কুল ও কলেজের সার্টিফিকেট ও মার্কশিট

৭। IlTES সার্টিফিকেট 

৮। বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাপ্লিকেশন ফরম 

৯। ব্যাংক সল্ভেন্সি এর কাগজপত্র

১০। স্টুডেন্ট ভিসার এপ্লিকেশন ইত্যাদি।

উপরোক্ত কাগজপত্র থাকলেই আপনি আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা পেতে চাইলে আপনি উপরের দেওয়া ডকুমেন্টগুলো সংগ্রহ করতে পারেন। 

আরো পড়ুনঃ ফুল ফ্রি স্কলারশিপ ফর বাংলাদেশী স্টুডেন্ট

ইংল্যান্ড স্টুডেন্ট ভিসা খরচ 

ইংল্যান্ড স্টুডেন্ট ভিসা খরচ কত এটা অনেক ছাত্র-ছাত্রীরাই জানতে চায়। যারা ইউরোপ মহাদেশে অর্থাৎ ইংল্যান্ডে যারা উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করতে চায়। আমেরিকার বিশ্ববিদ্যালয়ের পর শিক্ষার্থীদের অন্যতম পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয় হলো ইংল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়ের গুলো। 

আমাদের দেশ থেকে অনেকে ইংল্যান্ডের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছেন। ইংল্যান্ডে পড়াশোনা করার জন্য স্টুডেন্ট ভিসা পেতে বেশ কঠিন কেননা। ইংল্যান্ডে ইউনিভার্সিটি গুলোতে এডিকেশনাল রিকুয়ারমেন্ট চায়। এছাড়াও ILTES স্কোর অনেক ভালো হতে হবে। ইংল্যান্ড স্টুডেন্ট ভিসা পেতে এবং পড়াশোনা করা জন্য ২ থেকে ৬ লক্ষ টাকা লাগতে পারে।

ইংল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসা কি কি ডকুমেন্ট লাগবে 

ইংল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য বেশ কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র লাগবে। তাই ইংল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসা করার আগেই আপনি নিচে দেওয়া প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট দেখে নিতে পারেন। নিচে ইংল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসা ডকুমেন্টগুলো উল্লেখ করা হলো।

১। ডিজিটাল পাসপোর্ট 

২। পাসপোর্ট সাইজের ছবি

৩। করোণা ভ্যাক্সিন টিকা কার্ড

৪। নাগরিকত্ব সনদপত্র

৫। বিশ্ববিদ্যালয়ের অফার লেটার

৬। স্কুল ও কলেজের সার্টিফিকেট ও মার্কশিট

৭। IlTES সার্টিফিকেট 

৮। বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাপ্লিকেশন ফরম 

৯। ব্যাংক সল্ভেন্সি এর কাগজপত্র

১০। স্টুডেন্ট ভিসার এপ্লিকেশন ইত্যাদি।

উপরোক্ত কাগজপত্র থাকলেই আপনি ইংল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। ইংল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসা পেতে চাইলে আপনি উপরের দেওয়া ডকুমেন্টগুলো সংগ্রহ করতে পারেন। 

বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন ওউত্তর সমূহ 

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ এই বিষয়ে আপনার মনে বেশ কিছু প্রশ্ন উঁকি দিতে পারে। চলুন তবে জেনে নেই সেই সকল প্রশ্নের উওর। 

মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা যোগ্যতা কি?

আপনি যদি বাংলাদেশ থেক মালয়েশিয়ায় উচ্চ শিক্ষার জন্য যেতে চান তবে আপনাকে মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। এর জন্য শিক্ষাগত প্রয়োজন নূন্যতম এসএসসি পরীক্ষা কিংবা এইচএসসি পরীক্ষা ভালো মার্কস পেয়ে উর্ত্তীণ হতে হবে। তবেই আপনি উচ্চ শিক্ষার জন্য মালয়েশিয়াতে স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে পড়াশোনা করতে যেতে পারবেন।

শেষ কথাঃ কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ

সুপ্রিয় পাঠক, আজকে আমি আপনাদের সাথে কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ এই বিষয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করেছি। কোন কোন দেশে আপনি স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে উচ্চ শিক্ষার জন্য বিদেশে যেতে পারবেন তা নিয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করছি।

কোন দেশে স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া সহজ এই বিষয়ে আপনার যদি কিছু জানার থাকে তবে এই পোস্টের নিচে মন্তব্য করতে পারেন। এছাড়াও এই পোস্টটি তথ্যবহুল মনে হলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। ধন্যবাদ।

0 Comments