Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/09/how-to-earn-money-mobile.html

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায়

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায় — আমরা অনেকেই ইউটিউবে সার্চ করে থাকি মোবাইল দিয়ে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়। সার্চ রেজাল্ট সাধারণত আসে অ্যাড দেখে ইনকাম করুন, এক ক্লিকে ১০ টাকা ইনকাম করুন, ভিডিও দেখে ইনকাম করুন, নিউজ পড়ে ইনকাম করুন ইত্যাদি। আমি আপনাদের বলছি এগুলো সব ভুয়া। হয়তোবা প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ ঘন্টা করে এক মাসে ৫০০-২০০০ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। কিন্তু সেই টাকা তুলতে পারবেন কি-না তা নিয়ে সন্দেহোর কোনো অবকাশ নেই। অনেকেই কিছু টাকা ইনকাম করতে পারে। কিন্তু তা শুধুমাত্র ক্ষনিকের জন্যে।

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায়

ধরুন, কোনো কোম্পানি তাদের কিছু প্রোডাক্ট মার্কেটিং করতে চায়। এই কাজ করার জন্য তারা একটি নির্দিষ্ট বাজেট রাখে। যখন আমরা ইনকামের জন্য অ্যাপ ইনস্টল করি তখন কোম্পানি তাদের অ্যাড শো করে। কয়েক জনকে অল্প কিছু পেমেন্ট করে। যেই তাদের মার্কেটিং শেষ হয়, তখনই পেমেন্ট বন্ধ করে দেয়। এভাবে লাইফটাইম ইনকাম সম্ভব নয়। সুতরাং ইউটিউবে এই সব ভিডিও দেখে প্রতারিত হবেন না।

আপনি যেখানেই যান পরিশ্রম ছাড়া কখনোই ইনকাম করতে পারবেন না। মোবাইল দিয়েও লাইফটাইম ইনকাম করার অনেক অপরচুনিটি রয়েছে। কিভাবে মোবাইল দিয়ে লাইফটাইম ইনকাম করতে পারবেন? সে সম্পর্কে আজকে আমি আপনাদের সাথে কথা বলবো। তো চলুন জেনে নেই মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে।

১. Captcha Typing | ক্যাপচা টাইপিং করে টাকা ইনকাম

বর্তমানে Captcha Typing জনপ্রিয় একটি অনলাইন ইনকাম সোর্স। Captcha Typing হলো আকাঁবাকা ইংরেজি শব্দ, বর্ন ও সংখ্যার সংমিশ্রণ যা আমাদের সোজা করে লেখতে হবে। আপনি যদি Captcha বুঝতে পারেন। তাহলে এটি আপনার জন্য সহজ একটি মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার রাস্তা। এখান থেকে আপনি লাইফটাইম ইনকাম করতে পারবেন। অনেক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ১০০০ Captcha টাইপে ১ ডলার অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় ৮৫ টাকার মতো পেমেন্ট করে। মোবাইলের মাধ্যমে খুব সহজেই Captcha Typing এর কাজ করতে পারবেন। জনপ্রিয় কিছু Captcha Typing ওয়েবসাইট হলোঃ

১। Twocaptcha.com

২। Captchatypers.com

৩। megatypers.com

আরও পড়ুনঃ ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়

২. Article Writing | আর্টিকেল রাইটার হয়ে টাকা ইনকাম

আপনি যদি পড়তে ও লেখতে পছন্দ করেন। তাহলে আর্টিকেল রাইটিং আপনার জন্য অনেক বড় একটা অপরচুনিটি। হোক না সেটা বাংলা অথবা ইংরেজিতে। তবে ইংরেজি ভালো জানলে আপওয়ার্কের মতো বড় বড় ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজের অভাব হবেনা। আপনি যদি যেকোনো বিষয়ের উপর ভালো জানেন যেমনঃ টেকনোলজি, হেল্থ, টিপস এন্ড ট্রিক্স ইত্যাদি। তাহলে আপনি যেকোনো ওয়েবসাইটে আর্টিকেল রাইটার হিসেবে কাজ করতে পারেন। কিংবা, নিজেই মোবাইলে একটা ফ্রিতে ওয়েবসাইট খুলে আর্টিকেল লিখতে পারেন। ফ্রিতে ওয়েবসাইট খোলার দুটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হলোঃ blogspot.com ও wordpress.com।

৩. Youtube | ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম

বর্তমানে বাংলাদেশের অনেক মানুষ ইউটিউবিং করার মাধ্যমে সচ্ছল হয়েছে। যদি আপনার একটা ভালো ক্যামেরা ফোন থাকে। তাহলে আপনিও ইউটিউবিং করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অনেক বড় বড় ইউটিউবারও প্রথমে মোবাইল দিয়েই ইউটিউবিং শুরু করেছে। শুধু ভালো ক্যামেরা ফোন থাকলেই চলবে না। দরকার ভালো কনটেন্ট তৈরি করা ও তা সবার সামনে ভিডিওতে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করার ক্ষমতা এর সাথে প্রয়োজন ধৈর্য্য ও ইচ্ছা শক্তি। ধৈর্য্য ও ইচ্ছা শক্তির সাথে ইউটিউবে যদি ১ থেকে ২ বছর পরিশ্রম করেন। তাহলে আপনি সফল ইউটিউবার হতে পারবেন।

৪. Photographing | ফটোগ্রাফি করে টাকা ইনকাম

যদি অপনি ছবি তুলতে পছন্দ করেন আর একটা ভালো ক্যামেরা ফোন থাকে। তাহলে, আজই শুরু করুন Photographing। হ্যা, ঠিকই বুঝেছেন ছবি তুলে ইনকাম। বর্তমানে অনেকেই Photographing করে অনেক টাকা ইনকাম করছেন। অনেক অনলাইন প্লাটফর্মে ছবি কেনা ও বেচা হয়। আপনার তোলা ছবি এসব প্লাটফর্মে বিক্রি করতে পারবেন। অনেক হাই কোয়ালিটির ছবিও লাগবে না। সাধারণ ফটোগ্রাফিই চলবে। আপনাকে রিসার্চ করতে হবে যে, মার্কেটে কোন ছবিগুলো বেশি বিক্রি হচ্ছে। ছবি বেচা কেনার জনপ্রিয় একটি সাইট হলোঃ ১। গেটি ইমেইজ ২। আইস্টক ফটো ৩। ড্রিমসটাইম ৪। সাটারস্টক

আরও পড়ুনঃ অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয়

৫. Phone support | ফোন সাপোর্ট

ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার আরেকটি কাজ হলো Phone Support. আপনি একটি কোম্পানিতে Phone Supporter হিসেবে কাজ করতে পারেন। কোম্পানি থেকে আপনাকে একটি ভার্চুয়াল নাম্বার দেয়া হবে। সেই নাম্বারে গ্রাহকেরা ফোন করে তাদের অভিযোগ বা প্রশ্ন করবে। আপনাকে Phone Supporter হিসেবে সেগুলোর উত্তর দিতে হবে। ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোতে এই কাজ পেয়ে যাবেন। মোবাইলের মাধ্যমে খুব সহজেই কাজটি করতে পারবেন।

মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার আরও অনেক উপায় আছে। কিন্তু সব থেকে জনপ্রিয় হলো এগুলো। এগুলোর যে কোনটির মাধ্যমে আপনি ইনকাম করতে পারবেন। আশাকরি আপনাদের বোঝাতে পেরেছি। ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া