Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/07/Nagad-Pin-Code-reset-2021.html

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয় | নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে কি করনীয়

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয় | নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেছি — ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন মোবাইল ব্যাংকিং নগদ একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি বা নগদ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের পিন ভুলে গেছি? এখন আপনার কি করণীয়? চিন্তার কোনো কারণ নেই আজকের এই আর্টিকেলে আলোচনা করা হয়েছে কিভাবে নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে আবার নতুন করে নগদে পিন সেটআপ করতে হয়। একটা সময় ছিলো যখন নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে গ্রাহকদেরকে বেশ ঝামেলার সম্মুখীন হতে হতো। এমন কি নগদ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের হেল্পলাইনে কল করার সুযোগও ছিলো না।

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয়

কিন্তু এই কঠিন সমস্যা সহজে সমাধানের জন্য নগদ মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশের মতো করে নতুন একটি সুবিধা চালু করছে। যার কারণে আপনি মোবাইল ফোনে *১৬৭# ডায়াল করে নিমিষেই নগদ পিন রিসেট বা নগদে নতুন পিন নাম্বার সেটআপ করতে পারবেন। তোহ চলুন জেনে নেই নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে আমাদের করণীয় কি?

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয়

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে নতুন পিন অর্থাৎ নগদ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের নতুন পাসওয়ার্ড পাওয়ার নিয়ম খুব সহজ। বেশ কয়েকটি পদ্ধতি আছে নগদে নতুন পিন রিসেট করার। আমরা নিচে ২টি পদ্ধতি দেখিয়েছি যেকোনো একটি পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনি আপনার নগদ একাউন্টের ভুলে যাওয়া পিন ঠিক করে নিতে পারবেন। পদ্ধতি ২টি হলোঃ

১। হেল্পলাইনে কল করে
২। *১৬৭# ডায়াল করে

*১৬৭# ডায়াল করে নগদ পিন রিসেট করার নিয়ম | নগদ একাউন্টের পিন রিসেট

আমার মতে মোবাইলে *১৬৭# ডায়াল করে নগদ একাউন্টের ভুলে যাওয়া পিন ঠিক করার নিয়মটি অনেক বেশি সহজ। নগদ একাউন্টের পিন মোবাইলে *১৬৭# ডায়াল করে ঠিক করার জন্য নিচের পদ্ধতি অনুসরণ করুন।

১। প্রথমে মোবাইলে *১৬৭# ডায়াল করুন
২। ৪ নাম্বার অপশনে থাকা PIN Reset -এখানে যান
৩। তারপর Forgot Pin -এই অপশনে যেতে হবে
৪। এরপর NID কার্ডের নাম্বারটি প্রবেশ করুন (যে এনআইডি কার্ড দিয়ে নগদ একাউন্টটি খোলা হয়েছে)
৫। এনআইডি কার্ডে যে জন্ম সাল উল্লেখ করা আছে তা লিখুন (যেমন- 1985)

নগদ একাউন্টে টাকা লেনদেন (যেমনঃ ক্যাশআউট, মোবাইল রিচার্জ, সেন্ডমানি, পেমেন্ট ইত্যাদি) করে থাকলে Yes করুন অথবা না করে থাকলে No অপশনে প্রবেশ করুন। কোনো লেনদেন করে থাকলে সেটি কোন ধরনের তা সিলেক্ট করুন এবং হুবুহুব টাকার পরিমাণ উল্লেখ করুন। আর যদি না করে থাকেন থাকনে তবে এই অপশনটি আপনার জন্য না।

পিন রিসেট সফলভাবে সম্পূর্ণ হওয়ার একটি মেসেজ আপনি পেলে আবার মোবাইলে *১৬৭# ডায়াল করুন। তারপর আপনাকে নতুন করে ৪ সংখ্যার নতুন পিন সেটআপ করতে হবে। তবে আপনি কখনও কোনো মোবাইল ব্যাংকিংয়ে এই ১১১১, ০১১১, ০৭৮২, ২৪৬৮, ১০১০, ২০২১, ইত্যাদি ধরনের পিন দিবেন না। পুনরায় সেই পিনটি দিয়ে পিন নম্বর কনফার্ম করুন। এই ধাপগুলি সঠিকভাবে সম্পূর্ণ হলে আপানার নগদ একাউন্ট সচল হবে তারপর আপনি সকল নগদ ব্যাংকিংয়ের সকল অপশন দেখতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ রকেট একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয়

নগদ হেপ্ললাইন নাম্বারে কল দিয়ে নগদ একাউন্টের পিন রিসেট | নগদ একাউন্টের কাস্টমার কেয়ার নাম্বার

অনেকের কাছে উপরোক্ত পদ্ধতি ঝামেলাকর মনে হতে পারে। তারা চাইলে এই পদ্ধতি অনুসরণ করতে পাবেন। এই পদ্ধতি অনেক বেশি সহজ। তাই আমাদের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন এবং নিচে উল্লেখ করা ধাপগুলি অনুসরণ করুন।

প্রথমেই আপনাকে নগদ কাস্টমার কেয়ারে কল দিতে হবে। আপনার ফোন নম্বর থেকে নগদ হেল্পলাইন নাম্বার 16167 অথবা 096 096 16167 কল করুন। তবে হ্যাঁ একটি বিষয় অবশ্যাই মনে রাখবেন। চেষ্টা করবেন যে নাম্বারটি দিয়ে নগদ একাউন্ট খোলা হয়েছে সেই নাম্বারটি থেকে কল দেয়ার।

নগদ কাস্টমার কেয়ারে কল করার পরে আপনি আপনার নগদ একাউন্টের সমস্যাটির বিষয়ে কথা বলুন। আপনি তাদেরকে এভাবে বলতে পারেন যেমন— আমি আমার নগদ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের একাউন্টের পিন নাম্বারটি ভুলে গেছি? বা আপনি আপনার নিজের মতো করে কথা বলতে পারেন তাতে কোনো প্রকার সমস্যা নেই। তারা আপনাকে যথেষ্ট সাহায্য করবে।

একাউন্টের সঠিক তথ্য প্রদান | নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে কি করনীয়

যেকেউ আপনার নগদ একাউন্টের পিন অথবা পাসওয়ার্ড রিসেট করার জন্য রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারে। তাই আপনি নগদ একাউন্টের আসল ব্যক্তি কি-না তা বোঝার জন্যে নগদ আপনার কাছে থেকে কিছু তথ্য জানতে চাইবে। চিন্তার কোনো কারণ নেই। তারা আপনার কাছে থেকে খুবই সহজ কিছু প্রশ্ন জানতে চাইবে। যেমন আপনার পিতা-মাতার নাম, আপনার জন্ম তারিখ, অ্যাড্রেস ইত্যাদি।

তাছাড়া তারা আপনার নগদ একাউন্টের সর্বশেষ টাকা লেনদেনের পরিমাণ জানতে চাইবে তা চাইতে পারে। যদি আপনার মনে না থাকে তবে আপনি পুরাতন মেসেজ থেকে সেটা জেনে ইতে পারবেন। তবে অবশ্যই মনে রাখবেন আপনার এনআইডি কার্ডে এই সকল তথ্যগুলো যেভাবে উল্লেখ করা রয়েছে ঠিক সেইমভাবে আপনাকে বলতে হবে।

অথবা অন্যান্য কোনো ডুকুমেন্ট ব্যবহার করে নগদ একাউন্ট খুললে ঠিক অনুরুপভাবে আপনাকে বলতে হবে। মনে করুনঃ পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি। আপনি চাইলে এনআইডি আইডি কার্ডটি সামনে রেখে নগদ কাস্টমার কেয়ারে কল দিতে পারবেন। তাতে করে আপনার ই কথা বলতে সুবিধে হবে।

আরও পড়ুনঃ অগ্রণী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

নতুন পিন নাম্বার সেটাপ করুন | নগদ একাউন্ট নতুন পিন সেটাপ

সঠিক ইনফরমেশন প্রদান করার পরে নগদ আপনাকে সঙ্গে সঙ্গে একটি মেসেজ পাঠাবে। সেই মেসেজটিতে একটি টোকেন কোড উল্লেখ থাকবে। এই টোকেন কোডটি ব্যবহার করেই আপনি নগদ একাউটে নতুন পিন নাম্বার সেটআপ করতে পারবেন। এজন্য আপনি নিচের পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে পারেন।

১। প্রথমে ৬ সংখ্যার টোকেন কোডটি কপি করুন বা মনে রাখুন।
এরপর মোবাইলে *167# ডায়াল করুন।
২। তারপর Enter New Pin নামের একটি অপশন চলে আসবে সেখানে আপনাকে ৬ ডিজিটের একটি টোকেন কোড দিতে হবে।
৩। এরপর আবার সেইম অপশন চলে আসবে সেখানে আপনি নগদ একাউন্টে নতুন পিন নাম্বার হিসেবে আপনি যা ব্যবহার করতে চাচ্ছেন সেটাই দিতে হবে।
৪। সাধারণত নগদ একাউন্টের এই পিন নাম্বারটি ৪ সংখ্যার হয়ে থাকে। তবে মনে রাখবেন পিন নাম্বার হিসেবে কোনো ক্রমিক সংখ্যা দেয়া যাবেনা।
৫। পরিশেষে আবার উক্ত পিন নাম্বারটি দিয়ে কনফার্ম করুন।

এই ধাপগুলো অনুসরণ করে আপনি আপনার নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলেও নগদ একাউন্টে নতুন পিন নাম্বার সেটআপ করে নিতে পারবেন। তবে হ্যাঁ পিন নাম্বারটি মনে রাখা হচ্ছে বুদ্ধিমানের কাজ। তাই আপনি চাইলে আপনার সুবিধার্থে নগদ একাউন্টের পিন নাম্বারটি সেফ কোন ডায়রি অথবা খাতায় কিংবা গুগল ড্রাইভে লিখে রাখতে পারেন। আর হ্যাঁ কারও সাথে একাউন্টের পিন নাম্বার শেয়ার করা যাবে না।

আরও পড়ুনঃ বিকাশ একাউন্ট এর সুবিধা

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া