Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/06/Top-10-Ways-to-Boost-Your-WiFi.html

ওয়াইফাই সিগন্যাল বাড়ানোর উপায় | ওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানাের উপায়

ওয়াইফাই সিগন্যাল শক্তিশালি করার উপায় — বর্তমানে দূর-দূরান্ত থেকে একজন অন্য আরেকজনের সঙ্গে যোগাযোগ কিংবা তথ্য আদান-প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে কিন্তু এই বিকশিত ইন্টারনেটের ব্যবস্থার জন্যেই। আর এই বিকাশের পিছনে প্রায় অনেকদিন ধরেই ওয়াইফাই (ওয়্যারলেস ফেডেলিটি) নামটি জড়িয়ে রয়েছে। কিন্তু যদি ওয়াইফাই সিগন্যাল শক্তিশালী না হয়ে দুর্বল হয়ে থাকে, তাহলে ইন্টারনেট ব্যবহার করার কোনো রকম মজাই থাকেনা। স্মার্টফনে এমবি (মেগাবাইট) কিনে ইন্টারনেট ব্যবহার করা গেলেও মানুষ কেনবা ওয়াইফাই ব্যবহার করছে সেটি একটু এর ইউজারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধির দিকে লক্ষ্য করলেই বোঝা যায়। তবে হ্যাঁ ওয়াইফাই অনেক বেশি জনপ্রিয়তার সঙ্গে আছে কিছু অপ্রিয় সকল কথা।

ওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানাের উপায়

ওয়াইফাই সিগন্যাল অর্থাৎ ওয়াইফাই স্পীড বাড়ানোকে নিয়ে ইন্টারনেট প্রোভাইডারের সঙ্গে মাঝেই মাঝেই আমাদের ইউজারদের সঙ্গে ঝামেলা লেগেই যায়। এছাড়াও, মাঝে মধ্যে নেটওয়ার্কের স্পীড কমে গেলে তখন রীতিমতো তুলকালাম পরিস্থিতিত সৃষ্টি হয়ে যায়। তুলকালাম কান্ড তো হবেই কারণ আসলে যে টাকা দিয়ে যে স্পীডের ওয়াইফাই নিয়েছি সেটি যদি না পাই, অবে মাথা তো একটু গরম হবেই, কি তাই না? কিন্তু ইন্টারনেট সরবরাহকারীর সঠিক নেটওয়ার্ক স্পীড ঠিক থাকার পরেও যদি এই সমস্যা দেখা জায়, তবে তখন কি করনীয় একবারো কি এই সমস্যাটি নিয়ে ভেবেছি কি? হয়তোবা আপনার উত্তর হবে না।

কিন্তু যদি এই ধরনের সমস্যা দৈনন্দিন ঘটে, তাহলে তো মহাচিন্তায় পড়তে হবে। তখন কি করনীয়? তোহ বন্ধুরা আপনাদের চিন্তার কোন প্রয়োজন নেই, আজকের এই আর্টিকেলে থাকছে আপনার জন্যে দারুণ কয়েকটি উপায় যেগুলো ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি আপনার বাসা-বাড়ির ওয়াইফাই সিগন্যালকে নিমেষেই বৃদ্ধি করে নিতে পারবেন। তোহ চলুন তাহলে জেনে নেই সেই উপায়গুলো-

খুঁজে বাহির করুন কেন সমস্যাটি হচ্ছে

হ্যাঁ আপনি ঠিকই দেখেছেন, ওয়াইফাই সিগন্যাল শক্তিশালী করার জন্য আপনার প্রথম কাজটিই হবে ওয়াইফাই স্পীড কয়েকবার ভালোভাবে দেখা। কেননা, আপনি সেটি না করেই কখনোই ইন্টারনেট প্রোভাইডারদেরকে দোষারোপ করতে পারেননা। সেই জন্য প্রথমেই কয়েকবার ওয়াইফাই সিগন্যাল চেক করুন। যদি দেখতে পারেন যে ওয়াইফাই স্পীড ঠিক নেই, সেই ক্ষেত্রে আপনি ইন্টারনেট প্রভাইডারকে জানাতে পারেন আর আপনার রাগের একটা কারণও সেই সময় থাকে। কিন্তু, যদি দেখেন ওয়াইফাই স্পীড সঠিক রয়েছে, তখন আপনি কি করবেন? সেই ক্ষেত্রে কিন্ত আর আপনাকে রাগ হলে মোটেও চলবে না। আপনাকে বুঝতে হবে যে সমস্যাটি আপনার বাসাতে সৃষ্টি হয়েছে। কিভাবে ওয়াইফাই স্পীড দুর্বল এই সমস্যা দূর করবেন?

ওয়াইফাই সিগন্যাল শক্তিশালি করবেন যেভাবে-

হা, উপরের সমস্যাও তার সমাধান নিয়েই নিম্নে আলোচনা করতে যাচ্ছি, অনুগ্রহ করে আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন-

ভালো ক্ষমতা সম্পন্ন ওয়াইফাই রাউটার | ওয়াইফাই স্পীড বাড়ানোর উপায়

উপরের সমস্যাগুলোর মধ্যে শুরুতেই যে বিষয়টি আপনার চোখে পড়তে পারে, তা হচ্ছে আপনি দেখতে পারবেন যে আপনার ওয়াইফাই রাউটারে কোন ধরনের সমস্যা হচ্ছে। এই সমস্যা হতে পারে রাউটার যে স্থানে রাখছেন তার কারণে অথবা রাউটারের ক্ষমতা কম হওয়ার ফলে। মাঝে মধ্যে সঠিকভাবে সংযোগ না দেওয়ার কারণেও ওয়াইফাই সিগন্যাল দুর্বল এই সমস্যা হতে পারে। তাই প্রথমেই এই বিষয়টির দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

এইজন্য আপনার প্রয়োজন নতুন উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ওয়াইফাই রাউটার আর তা কেনা হবে আপনার জন্য শ্রেয়। রাউটার কেনার পূর্বে বিশেষভাবে বিবেচনা করতে হবে এই ৪টি বিষয়, তাহলে পরবর্তীতে আপনাকে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ওয়াইফাই রাউটার পাওয়ার জন্য কোন সমস্যা হবে না। বাসা-বাড়িতে ওয়াইফাই রাউটার লাগানোর ক্ষেত্রে ঠিক বাড়ির মাঝখানের জায়গাটি নির্বাচন করে নিন। আর তারবিহীন ওয়াইফাই রাউটারের ক্ষেত্রে তার আশেপাশের যেন কোনো বাধা যেমন- দেয়াল অথবা অন্যকিছু না থাকে। এই পদ্ধতি অনুসরণ করার মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়াইফাই স্পীড বৃদ্ধি করতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ ডোমেইন কি? ডোমেইন কত প্রকার? ডোমেইন এর কাজ কি

আপনার রাউটারকে লুকিয়ে রাখবেন না | রাউটারের গতি বাড়ানোর উপায়

ওয়াইফাই রাউটারের ক্ষেত্রে আপনাকে যে বিষয়টির উপরে প্রাধান্য দেয়া উচিত তা হচ্ছে সঠিক স্থান নির্ধারণ করা। আর ওয়াইফাই রাউটার স্থান নির্ণয়ের ক্ষেত্রে কখনোই বদ্ধ জায়গা সিলেক্ট করবেন না, বরং আপনাকে এমন একটা জায়গা সিলেক্ট করতে হবে যেখান থেকে খুব সহজেই সিগন্যাল সম্পূর্ণ বাড়িতে ছড়িয়ে পড়তে পারবে। এই ক্ষেত্রে হ্যাঁ টিভি বা কোনো আসবাবপত্রের পিছনের দিকে ওয়াইফাই রাউটার রাখা থেকে বিরত থাকবেন। সবসময় চেষ্টা করবেন রাউটার খোলা জায়গায় রাখার যেখান থেকে খুব সহজে সব জায়গাতে থেকে ওয়াইফাই সিগন্যাল পাওয়া যায়।

Wi-Fi Extender কিনে ফেলুন | ওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানোর উপায়

যদি আপনি একটি ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে আপনার সম্পূর্ণ বাসাবাড়ি কিংবা একটি অফিস চালাতে চান, তাহলে Wi-Fi Extender হতে পারে আপনার জন্যে একটি অনন্য উপায়। এছাড়ায়, আপনার বাসা-বাড়িটি যদি অনেক বড় হয়ে থাকে বাড়িতে অনেকগুলো রুম থাকে আর সকল রুম থেকেই বিভিন্ন ডিভাইসের মাধ্যমে ওয়াইফাই ব্যবহার করবেন, তাহলে অবশ্যই আপনাকে একটি Wi-Fi Extender ব্যবহার করা দরকার।

ওয়াইফাই রাউটারের খুব বড় সিগন্যাল এরিয়া না থাকলেও আপনি W-ifi Extender ব্যবহার করে খুবই সহজেই ওয়াইফাই এর রেঞ্জকে বৃদ্ধি করে নিতে পারবেন। যদিও হ্যাঁ এতে করে কিন্ত আপনার ওয়াইফাই এর স্পীড বৃদ্ধি পাবেনা। তবুও হ্যাঁ অফিস অথবা বাসার সকল কোণাতে ওয়াইফাই সিগন্যাল পৌছাতে এই ওয়াইফাই এক্সটেনডার হতে পারে আপনার সহজ সমাধান।

ওয়াইফাই থেকে আপনার প্রতিবেশীদের হটিয়ে ফেলুন

আপনি অবশ্যই ওয়াইফাই নেয়ার সময়ে এমন সকল অপ্রীতিকর অবস্থার মুখোমুখি হয়েছেন যে আশেপাশের সকলেই এসে আপনার থেকে ওয়াইফাই পাসওয়ার্ড চেয়েছে। এমন সময়ে যদি আপনি না বলে দিলেও অনেকেই আছেন যারা পাসওয়ার্ড হ্যাক করে নিয়ে আপনার ওয়াইফাই এর পাসওয়ার্ড জেনে যায়। আর ঠিক তখনি ওয়াইফাই এর একাধিক ইউজারকারী হওয়ার ফলে ওয়াইফাই এর স্পীড য় সিগন্যাল দুটোই কমতে থাকে। যদি এই রকম হয়ে থাকে তাহলে আপনার করণীয় কি? হ্যাঁ অবশ্যই আপনার করনীয় আছে। আপনি আপনার ওয়াইফাই এর নিরাপত্তার জন্যে WEP এর পরিবর্তে WAP ইউজ করতে পারেন। কারণ WAP encryption খুব বেশি শক্তিশালী। এই ক্ষেত্রে আপনার ওয়াইফাই এর পাসওয়ার্ড হ্যাক হবার ভয়ও থাকবে না।

আরও পড়ুনঃ কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা

ফ্রিকুয়েন্সি চেক করুন | ওয়াইফাই গতি যেভাবে বাড়াবেন

আপনার ওয়াইফাই নেটওয়ার্কের Admin Interface এ চলে যান আর আপনি এটি নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার Optimum Performance কনফিগার করা আছে। এখানে যদি আপনার ডুয়েল ব্যান্ডের ওয়াইফাই রাউটার হয়ে থাকে আর ফ্রিকুয়েন্সি যদি 5GHz  হয়ে থাকে, তবে সকল কিছু ঠিকঠাক আছে। কিন্তু যদি সেটি 2.4GHz এর হয়ে থাকে তাহলে আপনি তুলনামূলক ভাবে ওয়াইফাই স্পীড কম পেয়ে যাবেন। কারণ 2GHz এর চেয়ে  5GHz অধিক বেশি স্পীড দেবার দাবি রাখে।  কিন্তু সমস্যা হচ্ছে এখানে একটাই সেটা হচ্ছে 2GHz এর মতো 5GHz অনেক বেশি জায়গাতে বিস্তৃত থাকতে পারেনা।

চ্যানেল পরিবর্তন করুন | ওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানোর কৌশল

যদি আপনি একটি জনবহুল অঞ্চলে বসবাস করেন, তাহলে ওয়াইফাই Admin Interface এর সঠিক ব্যবহার জানা আপনার জন্যে অত্যাবশকীয়। কারন এই ধরনের জায়গাতে আপনার ওয়াইফাই স্পীড খুব বেশি থাকলেও আশেপাশের ওয়াইফাই এর সিগন্যাল আপনার ওয়াইফাই সিগন্যালে অনেকটাই প্রভাব ফেলতে পারে।

ছোটবেলাতে আপনি হয়তো ওয়াকিটকি ব্যবহার করে খেলে থাকবেন। সেখানে কি হয়ে থাকে ভাবুন তোহ? অন্যের কাছ থেকে কথা শোনার জন্যে একই চ্যানেলে অবস্থান করার প্রয়োজন হয়। একইরকম করে যদি আপনি আপনার প্রতিবেশীর সঙ্গে একই চ্যানেলে অবস্থান করে থাকেন, তাহলে ভিন্ন ভিন্ন ডিভাইস ব্যবহার করলেও তাদের কোনো আলাপ-আলোচনা শুনতে পারবেন। ঠিক ওয়াইফাই এর চ্যানেলও এইভাবে কাজ করে থাকে।

যদি আপনি আপনার প্রতিবেশীর মতো করে একই চ্যানেলে অবস্থান করে থাকেন, তাহলে তার ওয়াইফাই সিগন্যাল আপনার ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক এর উপরে খুব প্রভাব বিস্তার করতে পারে। যার ফলে আপনার ওয়াইফাই স্পীড অনেকটাই কমে যেতে পারে। এই জন্যই আপনার উচিত ওয়াইফাই চ্যানেলকে পরিবর্তন করে নেয়া।

এন্টেনা সংযুক্তকরণ | ওয়াইফাই স্পীড বাড়ানোর উপায়

আপনার ওয়াইফাই রাউটার এর মধ্যে পূর্বে থেকেই এন্টেনা যুক্ত করা থাকতে পারে। তবে হ্যাঁ, নতুন করে বহিঃসংযোগ ওয়াইফাই রাউটারে এন্টেনা সংযুক্ত করলে আপনার ওয়াইফাই স্পীড অথবা ওয়াইফাই সিগন্যাল বৃদ্ধি করতে পারবেন অনেকাংশেই। আর যদি সেটি পূর্বে তা থেকে যুক্ত নাও থেকে থাকে, তারপরেও নতুন করে এন্টেনা ক্রয় করে সেটি লাগাতে পারবেন। এই পদ্ধতি আপনার ওয়াইফাই সিগন্যাল কে বৃদ্ধি করার জন্য এক বড় ভূমিকা রাখবে।

ওয়াইফাই সিগন্যাল মূলত অনেকটাই আপনার ব্যবহার করা রাউটারের উপরে নির্ভর করে থাকে। আর ওয়াইফাই রাউটারের কারণেই মূলত ওয়াইফাই সিগন্যালের মূল প্রব্লেম দেখা যায়। তবে হ্যাঁ, শুধুমাত্র যে এই সমস্যাই ওয়াইফাই সিগন্যাল খারাপের জন্য মূল সমস্যা তা কিন্তু মোটেঅ নয়। তাছাড়াও, আরও অনেক ধরনের সমস্যা আছে যেগুলো সম্পর্কে আপনি ইতোমধ্যে জেনে গেছেন। আর ওয়াইফাই স্পীড বাড়ানোর উপায়গুলোও হয়তোবা আয়ত্ত করতে পারছেন আমি আশা করি আর এগুলোর সঠিক ব্যবহার করতে পারলেই কিন্তু আপনি স্বাছন্দ্যে নিজের ওয়াইফাই চালাতে পারবেন আর আপনার মনে মতো একটি ওয়াইফাই সিগন্যাল পাবেন।

আরও পড়ুনঃ বিটকয়েন কি ও কেন

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া