চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়

ঘুমের অভাবে অনেক সময় চোখের নিচে কালো দাগ হতে পারে। এটি দ্রুত চলেও যায়। কিন্তু ঠিকমতো ঘুমানোর পরও যদি চোখের নিচে কালি পড়ে তাহলে চিন্তার বিষয়। কারণ কিছু রোগের কারনেও চোখের নিচে কালো দাগ হতে পারে। যেমন উচ্চ রক্তচাপ, ক্ষতিকারক কোলেস্টেরলের কারণে চোখের নিচে কালো দাগ হতে পারে। যাদের সব সময় চশমা পড়ার অভ্যাস তাদেরও চোখের নিচে কালো দাগ পড়তে পারে। আর রাতের পর রাত জেগে থাকার অভ্যাস থাকলে চোখের নিচের কালো দাগ স্থায়ী হয়ে যেতে পারে।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে অনেকেই নানাভাবে চেষ্টা করে থাকেন। কিন্তু সহজে অনেক সময় কমানো যায় না। স্থায়ী সমাধানের জন্য বিশেষজ্ঞের পরামর্শ চাওয়া সবচেয়ে উপকারী হবে। তবে আপনাকেও কিছু কাজ করতে হবে। নিয়মিত এভাবে যত্ন নিলে চোখের নিচে কালো দাগ অনেকটাই হালকা হবে। আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়। আসুন জেনে নেই চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়।

(toc) #title=(সুচিপত্র)

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়

চোখের নিচে কালো দাগ এর কারণ কি? চোখের নিচে কালো দাগ কেন হয়

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায় জেনে নেওয়ার আগে আমাদের প্রথমে জানতে হবে কি কারণে চোখের নিচে কালো দাগ? আপনি যখন ক্লান্ত থাকেন, এটি আপনার মুখের উপর, বিশেষ করে আপনার চোখের নিচে ভালোভাবে ফুটে উঠে। চোখের নিচে কালো দাগ হওয়ার কিছু কারণ রয়েছে। তাহলে চলুন চোখের নিচে কালো দাগ এর কারণ গুলো জেনে নিইঃ

ক্লান্তির চোখের নিচে কালো দাগ পড়েঃ দীর্ঘ সময় ধরে জেগে থাকা, প্রচণ্ড ক্লান্তি এবং অনিদ্রার কারণে চোখের নিচে কালো দাগ হয়। ঘুমের অভাবে ত্বক ফ্যাকাশে ও নিস্তেজ হয়ে যায়। ঘুমের অভাবে চোখের নিচে পানি জমে চোখ ফুলে যায়। এর ফলে ফোলা চোখের পাতার নিচে গাঢ় ছায়া পড়ে চোখের নিচে কালো দাগ হয়।

এলার্জির চোখের নিচে কালো দাগ পড়েঃ শুষ্ক চোখ বা অ্যালার্জির কারণে চোখের নিচে কালো দাগ হতে পারে। আপনার অ্যালার্জি আছে কিনা তা পরীক্ষা করতে, আপনাকে অন্যান্য উপসর্গগুলিও পরীক্ষা করা উচিত। অ্যালার্জির কারণে চোখ লাল, চোখ চুলকানি এবং চোখ ফোলা অনুভব করতে পারেন। অ্যালার্জি দ্বারা নিঃসৃত হিস্টামিন আপনার রক্তনালীগুলিকে প্রসারিত করতে পারে এবং চোখের নিচে কালো দাগ হতে পারে।

বার্ধক্যর কারণে চোখের নিচে কালো দাগ হয়ঃ বয়স বাড়ার সাথে সাথে ডার্ক সার্কেল হওয়া স্বাভাবিক। সময়ের সাথে সাথে একজন ব্যক্তির ত্বক পাতলা হয় এবং ত্বক কোলাজেন এবং চর্বি হারায়। কোলাজেন এবং চর্বি ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখার জন্য দায়ী। কোলাজেন এবং চর্বির অভাবে চোখের নিচে কালো দাগ হতে পারে।

পানিশূন্যতার কারণে চোখের নিচে কালো দাগ হয়ঃ পর্যাপ্ত পানি পান করার পরামর্শ নতুন নয়। তবু অনেকেই এড়িয়ে যান। ডিহাইড্রেশন হল যখন আপনার শরীররে পানির অভাব হয়। এটি আপনার চোখের নীচের অংশটিকে আরও কালো করে সাহায্য করে।

চোখ কাঁপানোঃ চোখ কাঁপানো আরেকটি সাধারণ কারণ যা ডার্ক সার্কেল এর কারণ হতে পারে। চোখের স্ট্রেন রক্তনালীগুলিকে প্রসারিত করে এবং তাদের চারপাশের ত্বককে কালো করে।

সূর্যের অতিরিক্ত এক্সপোজারঃ সূর্যের অতিরিক্ত এক্সপোজার শরীরে মেলানিনের উৎপাদন বাড়ায়। একই সময়ে, অতিরিক্ত এক্সপোজার আপনার চোখের চারপাশে পিগমেন্টেশন বাড়ায়। ত্বকের পিগমেন্টেশনের অনিয়মও চোখের নিচে কালো দাগ তৈরি করতে পারে।

বংশগত কারণঃ জেনেটিক্সের কারণে অনেকেরই চোখের নিচে কালো দাগ হয়। অনেক সময় বংশগত কারণে সময়ের সাথে সাথে ডার্ক সার্কেল চলে যায়।

আরো পড়ুনঃ norix 1 এর কাজ কি

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

চোখের নিচে কালো দাগ কেন হয় জানার পর আবার আসুন জেনে নেই চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে। কিছু ঘরোয়া উপায়ে আপনি চোখের নিচে কালো দাগ থেকে মুক্তি পেতে পারেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেগুলো কি-

টুকরো করা শসা বা আলু বন্ধ চোখে ১০-১৫ মিনিট রাখলে চোখের নিচের কালো দাগ দূর হতে পারে।

কাঁচা দুধের সঙ্গে সামান্য হলুদ মিশিয়ে চোখের নিচে লাগান। এতে করে চোখের নিচে কালো দাগ দূর সম্ভব।

গোলাপ জলের সাথে তুলো মিশিয়ে চোখের নিচে ম্যাসাজ করতে পারেন। চোখের চারপাশে আলতো করে ম্যাসাজ করলে ওই যায়গায় রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়। এতে করে আপনার চোখের নিচের কালো দাগ দূর হয়ে যাবে।

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার সবচেয়ে সহজ উপায় হল একটি নরম কাপড় ঠাণ্ডা জলে নিয়ে জলপট্টির মতো কাপড়টি চোখের ওপরে নিচে ১০-১৫ মিনিট ম্যাসাজ করা।

আরো পড়ুনঃ ওয়েট গেইন মিল্ক শেক এর উপকারিতা

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার কিছু টিপস

শসা দিয়ে চোখের নিচে কালো দাগ দূর করুন - তাজা শসা টুকরো টুকরো করে কেটে আধা ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিন। চোখের ওপর দশ মিনিট রেখে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে অন্তত দুবার, টানা সাত দিন ব্যবহার করুন। আবার শসা ও লেবুর রস সমপরিমাণে মিশিয়ে ত্বকে লাগাতে পারেন। এতে চোখের নিচের কালো দাগ দূর হয়ে যাবে।

কাঁচা আলু দিয়ে চোখের নিচে কালো দাগ ভালো করুন - কাঁচা আলু ঠাণ্ডা করে ব্লেন্ডারে পিষে পেস্ট তৈরি করুন। চোখের উপর পেস্টটি লাগান এবং ১০-১৫ মিনিট পরে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আপনি যদি আলুর পেস্ট তৈরি করা কঠিন মনে করেন তবে আপনি শসার মতো স্লাইস ব্যবহার করতে পারেন। এক সপ্তাহের জন্য দিনে ১-২ বার ব্যবহার করুন।

গোলাপ জল দিয়ে চোখের নিচে কালো দাগ দূর করুন - গোলাপ জল প্রাকৃতিক স্কিন টোনার হিসেবে কাজ করে। এক টুকরো পরিষ্কার কাপড় বা আই প্যাড গোলাপ জলে কয়েক মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। সম্পূর্ণ ভিজে গেলে চোখ বন্ধ করে চোখের পাতায় ১০-১৫ মিনিট রাখুন। দিনে একবার ৭-১০ দিন ব্যবহার করলে চোখের স্বাভাবিক রং ফিরে আসবে।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করুন টমেটো দিয়ে - এক চামচ টমেটোর রস ও আধা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে চোখের নিচে লাগান এবং ১০ মিনিট পর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। টানা সাত দিন দিনে একবার বা দুবার ব্যবহার করুন।

বাদাম তেল চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে - প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে চোখের নিচে হালকা পরিমাণ বাদাম তেল মাখুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কালো দাগ দূর না হওয়া পর্যন্ত এই প্রক্রিয়াটি চালিয়ে যান।

আরো পড়ুনঃ রাতে ঘুম না আসার কারণ ও প্রতিকার

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার কার্যকরী উপায়

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে আইক্রিম ব্যবহার করুন - আইক্রিম ব্যবহারের অভ্যাসটি চোখের নিচের কালো দাগ থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করতে পারে। প্রতিদিন চোখের নিচে আইক্রিম ব্যবহার করুন। এটি আপনার চোখের নিচের ত্বক পাতলা রাখতে সাহায্য করে। ফলে চোখের নিচে সহজে কালো দাগ পড়ে না। আইক্রিম কেনার আগে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। তিনি আপনাকে বলবেন কোন ক্রিম আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে সিরাম ব্যবহার করুন - চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে সিরাম ব্যবহার করতে পারেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, অল্প পরিমাণে ক্যাফেইন যুক্ত আই সিরাম ব্যবহার করলে চোখের নিচের কালো দাগ কমানো যায়। এই সিরাম নিয়মিত ব্যবহারে চোখের নিচের কালো দাগ কমে যায়। এতে চোখের নিচের ত্বকের শুষ্কতাও কমবে।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে ম্যাসাজ করুনঃ ম্যাসাজ অনেক সমস্যার সমাধান করতে পারে। শরীরের কোথাও ব্যথা হলে ম্যাসাজ ম্যাজিকের মতো কাজ করে। এই ম্যাসাজটি শুধু ব্যথাই দূর করবে না, আপনার চোখের নিচের কালো দাগও দূর করবে।  নিয়মিত চোখের নিচের অংশ হালকা হাতে ম্যাসাজ করুন। চোখের চারপাশে আঙ্গুলের ডগা দিয়ে ম্যাসাজ করতে থাকুন। এতে ত্বক অনেক টানটান হয়ে যাবে। চোখের নিচের কালো দাগ কমে যাবে।

পেপটাইড আইক্রিম - চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে পেপটাইড যুক্ত আইক্রিম ব্যবহার করুন। এটি শুধু চোখের নিচের কালো দাগই কমায় না, চোখের নিচের ফোলা ভাবও কমায়। এই কারণেই এই পেপটাইডযুক্ত আইক্রিম ব্যবহার করা গুরুত্বপূর্ণ।

ঠান্ডা চামচ দিয়ে চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায় - একটি পরিষ্কার চা চামচ ফ্রিজে রেখে ভালো করে ঠাণ্ডা করুন। তারপর বের করে কিছুক্ষণ চোখের নিচে হালকা করে চেপে রাখুন। সপ্তাহে দুই-তিন দিন এই পদ্ধতি অনুসরণ করুন। এতে চোখের নিচের কালো দাগ কমে যাবে।

আরো পড়ুনঃ হিজামার উপকারিতা ও অপকারিতা

বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্নের উত্তর

বরফ দিলে কি চোখের নিচের কালো দাগ দূর হয়?

উত্তরঃ হ্যাঁ। বরফ চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। বরফের টুকরা চোখের নিচে দশ পনের মিনিট ভালোভাবে ঘষলে চোখের নিচের কালো দাগ অনেকটাই দূর হয়ে যায়।

কোন ভিটামিনের অভাবে চোখের নিচে কালো দাগ হয়?

উত্তরঃ ভিটামিন ডি এর অভাবে চোখের নিচে কালো দাগ হয়।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার কার্যকরী ঔষধ কোনটি?

উত্তরঃ চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার কার্যকরী ঔষধ ভিটামিন ই ক্যাপসুল বা কোল্ড থেরাপি।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায় নিয়ে শেষ কথা

চোখের নিচের ত্বক খুবই পাতলা এবং সংবেদনশীল। অনেক সময় আমাদের নিজেদের ভুলেই চোখের নিচে কালো দাগ পড়তে পারে। আজকে আমরা চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়, চোখের নিচে কালো দাগ কেন হয় সেই সম্পর্কে আমরা আলোচনা করেছি। আশা করি আজকের আলোচনা আপনাদের জন্য হেল্পফুল হবে।

পোষ্ট ক্যাটাগরি: