Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/09/jomir-khajna.html

অনলাইনে জমির খাজনা দেওয়ার নিয়ম

অনলাইনে জমির খাজনা দেওয়ার নিয়ম - প্রিয় পাঠক আপনি কি অনলাইনে জমির খাজনা দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য্য জানতে চাচ্ছেন। অনলাইনে ঝামেলা মুক্তভাবে জমির খাজনা আপনি ঘরে বসেই দিতে পারবেন। ২০২১ জুল মাস নাগাদ বাংলাদেশ সরকার এটি কার্যকর করে।

অনলাইনে জমির খাজনা দেওয়ার নিয়ম

বিশেষ করে সাধারণ কর অফিস গুলোতে নানা ধরণের জটিলতা দেখা দিতে পারে। এজন্য আপনি যদি ঝামেলা ছাড়াই জমির খাজনা দিতে চান তাহলে আপনাকে অনলাইন ব্যবহার করে জমির খাজনা পরিশোধ করতে হবে।

যেহেতু অনলাইনে খাজনা দেয়া নতুন একটি সিস্টেম। তাই অনেকেই জানেন না যে কিভাবে অনলাইনে জমির খাজনা দেয়া যায়। ধারণা না থাকার ফলে অনেকেই জমির খাজনা অনলাইনে দিতে পারেন না। আমাদের আজকের আর্টিকেলে জানাবো কিভাবে আপনি ঝামেলামুক্ত ভাবে অনলাইনে জমির খাজনা পরিশোধ করতে পারবেন। অর্থাৎ অনলাইনে জমির খাজনা দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে নিচে আমরা বিস্তারিত ভাবে তুলে ধরলাম।

আরো পড়ুনঃ অনলাইনে জমির দলিল বের করার নিয়ম

অনলাইনে জমির খাজনা দেওয়ার নিয়ম

অনলাইনে জমির খাজনা দেয়ার জন্য আপনাকে সবার আগে আইডি ট্যাক্স ওয়েবসাইটে রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করে নিতে হবে। এর পরে লগইন করে নির্ধারিত কর আপনি সবসময় এখান থেকে অনলাইনের মাধ্যমে দিতে পারবেন। অনলাইনে রেজিষ্টেশন কিভাবে করবেন ও খাজনা কিভাবে দিবেন নিচে তা দিয়ে দিলামঃ 

১। অনলাইনে জমির খাজনা দেয়ার জন্য প্রথমে আপনাকে এই সাইটে যেতে হবে। এছাড়াও আপনি ১৬১২২ ও ৩৩৩ নাম্বারে ফোন দিয়ে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র এর নাম্বারের মাধ্যমে জমির সকল তথ্য এবং কর এর হিসাব জেনে নিতে পারবেন। 

২। এখানে আপনি একটি রেজিষ্ট্রেশন ফর্ম দেখতে পাবেন। সবার প্রথমে মোবাইল নাম্বার দিন এরপরে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম্বারটি সঠিক ভাবে লিখুন। জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী আপনার জন্ম তারিখটি সঠিক ভাবে দিয়ে দিন। এরপরে পরবর্তী পদক্ষেপ অপশনে ক্লিক করে দিন।

৩। এরপর আপনার দেয়া মোবাইল নাম্বারে একটি ওটিপি মেসেজ আসবে সেটা দিয়ে ও পাসওয়ার্ড রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করে নিতে হবে।

৪। রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন হয়ে গেলে এখানে ক্লিক করুন। এখান থেকে "নাগরিক লগ ইন" অপশনটি বেছে নিন।

৫। পূর্বের দেয়া মোবাইল নাম্বার ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে নিন।

৬। এরপরে যেকোনো ডিজিটাল সেবা বা মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে নির্ধারিত জমির কর পরিশোধ করতে পারবেন।

৭। আপনার কর দেয়া সম্পন্ন হয়ে গেলে কর এর রশিদ আপনার প্রোফাইল থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। অথবা আপনি যদি আপনার প্রোফাইলে ই-মেইল এড্রেস ব্যাবহার করে থাকেন তাহলে কর এর রশিদ ইমেল এড্রেসে চলে আসবে। 

আপনার কাজ শেষ। এর পরে আপনি যখন জমির খাজনা দিবেন এখানে মোবাইল নাম্বার ও পাসওয়ার্ড দিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে জমির খাজনা পরিশোধ করতে পারবেন।

অনলাইনে জমির খাজনা দেওয়ার নিয়ম ভিডিও দেখুন

0 Comments