বাংলাদেশের সেরা ১০টি রিয়েল এস্টেট কোম্পানি - রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা: মানুষের ৫টি মৌলিক চাহিদার মধ্যে একটি হচ্ছে বাসস্থান বা আবাসন। আদিমকাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত মানুষের আবাসনের চাহিদা হচ্ছে ব্যাপক। শুধুমাত্র চাহিদা নয়, প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন থাকে একটি বিলাসবহুল বাড়ি, ছোট ফ্ল্যাট, ডুপ্লেক্স হাউস, অফিস এবং গুদাম ঘর ইত্যাদি সুন্দর জীবনযাপন করা।

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

প্রতিটি মানুষের ৫টি মৌলিক চাহিদার এই বাসস্থানের চাহিদা পূরণে রিয়েল এস্টেট কোম্পানি গুলো সহায়তা করে। রিয়েল এস্টেট কোম্পানি এমনই একটি সংস্থা যা ব্যক্তিদের মালিকানাধীন সমস্ত প্রকৃত সম্পত্তি যেমন: জমি, জমিতে স্থাপনা নির্মাণ করা ইত্যাদি ক্রয়, বিক্রয় এবং ভাড়া দিয়ে থাকে।

বর্তমানে বাংলাদেশে রিয়েল এস্টেট কোম্পানির বর্তমান কাঠামো দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। যার অধিকাংশই বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। দিন দিন বাংলাদেশ রিয়েল এস্টেট কোম্পানির উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল হয়ে উঠছে। আজ আমি আপনাদের সাথে রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা এবং বাংলাদেশের সেরা ১০টি রিয়েল এস্টেট কোম্পানি নিয়ে আলোচনা করবো।

(toc) #title=(এক নজরে সম্পূর্ণ লেখা পড়ুন)

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

  1. বিল্ডিং টেকনোলজি অ্যান্ড আইডিয়াস লিমিটেড
  2. বসুন্ধরা হাউজিং
  3. নাভানা রিয়েল এস্টেট
  4. আনোয়ার ল্যান্ডমার্ক
  5. কনকর্ড রিয়েল এস্টেট লিমিটেড
  6. আমিন মোহাম্মদ ফাউন্ডেশন লিমিটেড
  7. নকশি হোমস লিমিটেড
  8. শেলটেক (প্রা.) লিমিটেড
  9. সনমার প্রোপার্টিজ লিমিটেড
  10. শান্তা হোল্ডিংস লিমিটেড
  11. র‍্যাংগস প্রপার্টিস লিমিটেড
  12. পারটেক্স গ্রুপ

১. বিল্ডিং টেকনোলজি অ্যান্ড আইডিয়াস লিমিটেড - Building Technology & Ideas Ltd - BTI

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

বাংলাদেশে রিয়েল এস্টেট হাউজিং অ্যাসোসিয়েশনের মতে, বিল্ডিং টেকনোলজি অ্যান্ড আইডিয়াস লিমিটেড হচ্ছে আইএসও সার্টিফাইড কোম্পানি যাকে মূলত বিটিআই লিমিটেড বলা হয়ে থাকে। এই রিয়েল এস্টেট কোম্পানিটি ১৯৮৪ সালে বাংলাদেশের ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। রিয়েল এস্টেট কোম্পানিটি ঢাকা মিরপুর এবং পরবর্তীতে গুলশানে শাখা স্থাপনের মাধ্যমে তাদের যাত্রা শুরু করে। এই রিয়েল এস্টেট কোম্পানি পরবর্তীতে চট্টগ্রাম এবং কুমিল্লাতে তাদের শাখার প্রসার করে।

এটি বাংলাদেশের সবচেয়ে বিখ্যাত ও প্রাচীনতম রিয়েল এস্টেট কোম্পানি। এই রিয়েল এস্টেট কোম্পানি ক্লাসিক, বিলাস-বহুল, ব্যবসা, স্ট্যান্ডার্ড সহ সকল ধরনের অ্যাপার্টমেন্ট সার্ভিস প্রদান করে এবং প্রত্যেক বছর ইন্টেরিয়র ডিজাইন, কর্পোরেট সার্ভিস, প্রপার্টি ভাড়া, ঠিকাদার, ইত্যাদিসহ সকল ধরনের রিয়েল এস্টেট সার্ভিস প্রদান করে থাকে। এই কোম্পানিতে বর্তমানে ১২০০ জন কর্মচারী-কর্মকর্তা কাজ করছে। আর হ্যা বিল্ডিং টেকনোলজি আন্ড আইডিয়াস লিমিটেড কোম্পানিটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করছে।

আরো পড়ুন: বর্তমানে সেরা ২৫টি ইউনিক বিজনেস আইডিয়া ২০২৪

২. বসুন্ধরা হাউজিং - Bashundhara Housing

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

বসুন্ধরা হাউজিং ১৯৮৭ সালে তাদের স্লোগান 'জনগণের জন্য, দেশের জন্য' এবং বসুন্ধরা নাম দিয়ে তারা তাদের পথযাত্রা শুরু করে। খুবই অল্প সময়ের মাঝে তারা তাদের সাফল্য অর্জন করেছে এবং অনেক অভিজ্ঞ। তারা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিশাল বিশাল প্রকল্প সম্পন্ন করেছে। একটি উদাহরণ হিসেবে আমরা বসুন্ধরা শপিং মলকে বলতে পারি। ধীরে ধীরে বসুন্ধরা হাউজিং তারা জনগণের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয় এবং এটিকে বাংলাদেশের সেরা রিয়েল এস্টেট কোম্পানি হিসেবে গড়ে তোলে।

৩. নাভানা রিয়েল এস্টেট - Navana Real Estate

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

নাভানা রিয়েল এস্টেট লিমিটেড ১৯৯৬ সালে চেয়ারম্যান জনাব শফিউল ইসলাম প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এটি নাভানা গ্রুপের সাথে একটি অংশ। তারা বিভিন্ন সার্ভিস প্রদান করছে। তারা ঢাকা এবং চট্টগ্রাম অঞ্চল ভিত্তিক মধ্যম আয়ের মানুষকে টার্গেট করে মাঝারি এবং উচ্চ প্রকল্পে কাজ করে। তারা ভিন্ন, সংজ্ঞায়িত এবং নির্ভরযোগ্য" এর মূলমন্ত্র দিয়ে তাদের যাত্রা শুরু করেছিল। নাভানা রিয়েল এস্টেট কোম্পানির প্রকল্পগুলি হচ্ছে নাভানা অরনেলো, নাভানা সিলভারউড নাভানা সান ড্রপস এবং অন্যান্য।

আরো পড়ুন: ঢাকার পার্শ্ববর্তী দর্শনীয় স্থান

৪. আনোয়ার ল্যান্ডমার্ক - Anwar Landmark Limited

আনোয়ার ল্যান্ডমার্ক আনোয়ার গ্রুপের একটি সহযোগী অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। ২০০১ সালে এই কোম্পানিটি আবাসন ব্যবসায় পদচিহ্ন রাখে। বাংলাদেশের আবাসন খাতে নানান অবদানের রাখার জন্যে এই কোম্পানিটি অসংখ্য স্বীকৃতি অর্জন করেছে। তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে পরিবেশ বান্ধব ভবন নির্মাণের জন্যে ইন্টান্যাশনাল কনস্ট্রাকশন এ-ওয়ার্ড ২০১৮, গ্লোবাল ব্র্যান্ড এক্সিলেন্স এ-ওয়ার্ড ২০১৪, বিজ এ-ওয়ার্ড ২০১৯ এবং Bangladesh Most Promising Brand Award 2019।

বাংলাদেশের আবাসন খাতে গুণগত মান নিশ্চিত করার কারণে ক্রেতার কাছ থেকে সর্বোচ্চ সন্তুষ্টি অর্জন করছে বলে তারা বলছে। কোম্পানিটি পুরো বাংলাদেশ জুড়ে রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ের প্রবৃদ্ধিতে অবাক করে দিয়েছে এই খাতে সংশ্লিষ্টজনরা মনে করেন।

৫. কনকর্ড রিয়েল এস্টেট লিমিটেড - Concord Real Estate Ltd

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

কনকর্ড রিয়েল এস্টেট লিমিটেড বাংলাদেশের সেরা রিয়েল এস্টেট কোম্পানির মধ্যে অন্যতম শীর্ষস্থানীয় রিয়েল এস্টেট কোম্পানি। সংস্থাটি বিমানবন্দর এবং সেতুর মতো ১২০০ প্রকল্প সম্পন্ন করেছে। এই কোম্পানির সাম্প্রতিক প্রকল্প

  1. কনকর্ড বীথি ভিলা
  2. আশা কনকর্ড
  3. Concord Bari Monjil
  4. কনকর্ড মোজাম্মেল ভিলা
  5. বাদল হাইটস কনকর্ড

কনকর্ড গ্রুপের বর্তমান চেয়ারম্যান এস এম কামালউদ্দিন। এটি প্রাচীনতম এবং বৃহত্তম রিয়েল এস্টেট কোম্পানি যা তাদের গুণমান, অভ্যন্তরীণ নকশা এবং সৃজনশীল কাঠামোর জন্য বিখ্যাত। এই ডেভেলপমেন্ট রিয়েল এস্টেট কোম্পানি জাতীয় স্মৃতিসৌধ, চট্টগ্রামে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার, বাংলাদেশ শিল্প ব্যাংক ভবন, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং অন্যান্য আবাসন স্থান নির্মাণ করেছে।

আরো পড়ুন: বাংলা আর্টিকেল লিখে টাকা আয় - বাংলা আর্টিকেল রাইটিং জব

৬. আমিন মোহাম্মদ ফাউন্ডেশন লিমিটেড - Amin Mohammad Foundation Limited

আমিন মোহাম্মদ ফাউন্ডেশনকে সংক্ষেপে এএমএফএল বলা হয়। আমিন মুহাম্মদ গ্রুপের বোন যা ১৯৯৩ সালে বাংলাদেশের ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। মূলত তারা ঢাকা, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম এবং সিলেট অঞ্চলগুলোতে জমি বিক্রি এবং অ্যাপার্টমেন্ট প্রকল্পের ডেভেলপে তাদের সার্ভিস প্রদান করে। তাদের চলমান কিছু প্রকল্প হল:

  • Green Rest
  • গ্রিন রওশনারা টাওয়ার
  • এভারগ্রিন কামাল
  • গ্রিন সিটি রিজেন্সি এবং অন্যান্য।

৭. নকশি হোমস লিমিটেড - Nakshi Holmes ltd. - Real estate developer

নকশি হোমস লিমিটেডকে সংক্ষেপে বলা হয় এনএইচএল। তারা বাণিজ্যিক এবং আবাসিক প্রকল্পের জন্য বিখ্যাত। সালাউদ্দিন খান উজ্জল এনএইচএল এর প্রধান এবং ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক। এটি বাংলাদেশের একটি সফল অগ্রণী ডেভেলপকারী রিয়েল এস্টেট কোম্পানি। এই কোম্পানির প্রধান কার্যালয় বাংলাদেশের ঢাকায় অবস্থিত। তারা ঢাকার ভিতরে এবং বাইরে তাদের সেবা প্রদান করে থাকে।

৮. শেলটেক (প্রা.) লিমিটেড - Sheltech (Pvt.) Ltd

Sheltech (Pvt.) Ltd

শেলটেক (প্রাইভেট) লিমিটেড দ্রুত বর্ধনশীল রিয়েল এস্টেট কোম্পানিগুলির মধ্যে একটি। যা ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ঢাকা অঞ্চলের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে। এই কোম্পানিতে মোট কর্মীর সংখ্যা ৩০০০। শেলটেক কোম্পানির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার এ কুতুবউদ্দিন আহমদ। তারা তাদের ব্যবসা আরো অনেক দিকে বাড়িয়ে দিয়েছে। শেলটেক অ্যাস্ট্রা, শেলটেক আইয়ান, শেলটেক ক্যামেলিয়া এবং এই কোম্পানির আরো অনেক প্রকল্প। এই রিয়েল এস্টেট কোম্পানিটি ISO সনদপ্রাপ্ত কোম্পানি।

৯. সনমার প্রোপার্টিজ লিমিটেড - Sanmar Properties Limited

সানমার প্রোপার্টিজ লিমিটেড ঢাকায় "লিভ ইন এক্সিলেন্স" এর স্লোগান দিয়ে যাত্রা শুরু করে। সানমার গ্রিন পার্ক এবং সনমার স্কাই টাওয়ার এই কোম্পানির আবাসিক প্রকল্প।

১০. শান্তা হোল্ডিংস লিমিটেড - Shanta Holdings Ltd

রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা

শান্তা হোল্ডিং লিমিটেড সংক্ষেপে SHL নামে পরিচিত। এটি বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় রিয়েল এস্টেট কোম্পানি। এই রিয়েল এস্টেট কোম্পানিটির যাত্রা শুরু হয় ১৯৮৮ সালে। বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল উদ্যোক্তা জনাব খোন্দকার মনির উদ্দিন SHL কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

প্রথমে, এই কোম্পানিটি একটি রপ্তানিকারক এবং পোশাক প্রস্তুতকারক কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করলেও পরবর্তীতে তারা এই কোম্পানিকে একটি রিয়েল এস্টেট কোম্পানি হিসেবে রূপান্তরিত করে।

২০০৫ সালে শান্তা গ্রুপ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল যা শান্তা হোল্ডিংস লিমিটেডের একটি অংশ। শান্ত হোল্ডিংস লিমিটেড, শান্তা গার্মেন্টস লিমিটেড এবং অন্যান্য গুলোর মতো অনেকগুলো সহায়ক হোল্ডিং সংস্থা রয়েছে। বর্তমানে এখানে মোট ২০০ জন কর্মচারী আছে। তারা তাদের অনেকগুলো প্রকল্প সমাপ্ত করেছে এবং চলমান আরো অনেকগুলো প্রকল্পের কাজ করছে।

১১. র‍্যাংগস প্রপার্টিস লিমিটেড - Rangs Properties Limited

রিয়েল-এস্টেট-কোম্পানির-তালিকা

র‍্যাংগস প্রোপার্টিজ লিমিটেড 1996 সালে ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত হয়, এই রিয়েল এস্টেট কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা জনাব আবদুর রউফ চৌধুরী। যিনি এই কোম্পানিতে ৫ হাজারেরও বেশি কর্মচারী পরিচালনা করছেন। এটি ইলেকট্রনিক প্রোডাক্ট এবং ঢাকা অঞ্চলের ভিতরে এর সার্ভিস প্রদানের জন্য বিখ্যাত। এটি র‍্যাংগস গ্রুপের একটি অংশ। তাদের চলমান পণ্য হচ্ছে মিরিন্ডা, কেএম স্কয়ার এবং অন্যান্য পণ্য। এই কোম্পানির প্রধান কার্যালয় হচ্ছে বাংলাদেশের ঢাকায় অবস্থিত।

১২. পারটেক্স গ্রুপ

বাংলাদেশে পারটেক্স গ্রুপের প্রোডাক্টগুলো খুবই জনপ্রিয়। প্রায় ৫৫,০০০ কর্মী নিয়োজিত রয়েছে পারটেক্স গ্রুপে। ৬১ বছর আগে ১৯৫৯ সালে পারটেক্স গ্রুপ প্রতিষ্ঠিত করা হয়। পারটেক্স গ্রুপের বর্তমানে মোট সম্পদের পরিমাণ হচ্ছে প্রায় ৭.২ বিলিয়ন ডলার। স্টীল, প্লাস্টিক, আবাসন, ফুড, শীপ, পাট, আবাসবপত্র, পাওয়ার, আইটি, কাগজ, কৃষি, টেক্সটাইল ইত্যাদি খাতে ব্যাবসা পরিচালনা করছে পারটেক্স গ্রুপ।

উপসংহার

তো এই ছিলো রিয়েল এস্টেট কোম্পানির তালিকা। এই কোম্পানিগুলোর বাইরেও আরো অসংখ্য ভালোমানের কোম্পানি আছে, যা হয়তোবা আজকের তালিকা থেকে বাদ পড়েছে, তবে খুবই শিঘ্রই এইরকম আরো একটি তালিকা প্রকাশ করা হবে ইনশাআল্লাহ। আশা করি বাংলাদেশের সেরা ১০টি রিয়েল এস্টেট কোম্পানি সম্পর্কে অনেক ভালো ধারণা পেয়েছেন।

পোষ্ট ক্যাটাগরি: