Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/09/The-benefits-of-eating-dark-chocolate.html

ডার্ক চকলেট খাওয়ার উপকারিতা | ডার্ক চকলেটের অপকারিতা

ডার্ক চকলেট খাওয়ার উপকারিতা এবং ডার্ক চকলেটের অপকারিতা গুলো সম্পর্কে জেনে নিন  ডার্ক চকলেট আমরা কমবেশি সবাই খেতে পছন্দ করি। আমরা যেকোনো বয়সের মানুষ এটি খেয়ে থাকি। তবে এই ডার্ক চকলেট খাওয়ার ফলে আমাদের স্বাস্থ্যে এক বিশেষ ধরনের উপকার সাধন হয়। আর তাই এই ডার্ক চকলেট খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে আজকে আমরা আমাদের আর্টিকেলে জানাবো।

ডার্ক চকলেট খাওয়ার উপকারিতা

ডার্ক চকলেট এর সাথে আমরা কমবেশি অনেকেই পরিচিত হয়ে থাকি। বিশেষ করে সকলের সচেতনতা জন্য এটি জানা উচিত যে, চিনি বা গুড় দিয়ে তৈরি এক ধরনের ক্যান্ডি বর্তমান বাজারে পাওয়া যাচ্ছে তা স্বাস্থ্যের জন্য এক বিশেষ ক্ষতি সাধন করে থাকে। তবে আমরা কিন্তু আজ সেই ক্যান্ডি নিয়ে আলোচনা করবো না, আমরা কোকো গাছের বীজ থেকে তৈরি কালো রঙের ডার্ক চকলেট নিয়ে আলোচনা করবো। এটি খাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য উপকার হয়ে থাকে। 

আমাদের সচেতনতার জন্য খাবার হিসেবে গাছগাছালি থেকে পাওয়া উপাদানগুলো বেশি পরিমাণে খাওয়া উচিত। তা আমাদের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে এক বিশেষ কাজ করে থাকে। বর্তমান সময় আধুনিক বিজ্ঞান প্রমাণ করেছে যে, এক ধরনের উদ্ভিদজাত খাবার আমাদের দেহের জন্য প্রাণীজ খাবারের চাইতেও অনেক বেশি উপকারী হয়ে থাকে। আর তাই এই ডার্ক চকলেট সাধারণত কোকো গাছের বীজ থেকে তৈরি করা হয়ে থাকে।

আমরা এখন অনেকেই আছি যারা এই ডার্ক চকলেটের উপকারিতা সম্পর্কে জানি না। আর ডার্ক চকলেট খাওয়ার উপকারিতা গুলো যদি আপনাদের বলা হয় তাহলে প্রথমে বলতে হবে ডার্ক চকলেটে কি থাকে। তাই আর দেরি না করে চলুন জেনে নেওয়া যাক ডার্ক চকলেট সম্পর্কে। নিচে ডার্ক চকলেট বিষয় আলোচনা করা হলোঃ

ডার্ক চকলেটে কি থাকে

ডার্ক চকলেট কে সাধারণত একটি সুপার ফুড হিসাবে তুলনা করা হয়। তাই এটি যথেষ্ট উপকারিতা বিদ্যমান রয়েছে। আপনারা যদি কম বেশি এসব উপকারিতা সম্পর্কে জানেন তাহলে আপনাদের এই ডার্ক চকলেট খাওয়ার আসা বেড়ে যাবে।

ডার্ক চকলেট খুব বেশি পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। যৌন স্বাস্থ্যের উপকার ঘটনার জন্য এখানে প্রয়োজনীয় দুটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে সেটি হল serotonin এবং Phenethylamine। আর এটি একটি উদ্ভিদ খাদ্য উপকরণ হওয়ায় এটি আমাদের দেহের ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে, হার্ট সুস্থ ও ভালো রাখতে, ওজন কমার ক্ষেত্রে এক বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। 

একটি ভাল মানের ডার্ক চকলেটে রয়েছে ৭০% কোকো থাকে। আমরা আজকে আমাদের আর্টিকেলে ডার্ক চকলেট খাওয়ার ১০টি স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করবো। তাই আর দেরি না করে চলুন জেনে নেওয়া যাক ডার্ক চকলেট খাওয়ার উপকারিতা কি কি। নিচে এ বিষয়ে আলোচনা করা হলো:

ডার্ক চকলেট খাওয়ার ফলে ব্ল্যাড পেসার ও রক্তচাপ কমে যায়

ডার্ক চকলেট খাওয়ার নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা এর মধ্যে এটি অন্যতম হয়ে থাকে। যা আমাদের ব্লাড প্রেসার ও রক্তচাপ কমাতে এক বিশেষ ভূমিকা পালন করে। ডার্ক চকলেটের মধ্যে থাকা ফ্লাভোনয়েড নামক একটি পদার্থ যা শিরা-উপশিরার মধ্যে এক প্রকার উত্তেজনা সৃষ্টি করে। যার ফলে রক্ত চলাচল ভালো মতন হয় এবং ব্লাড প্রেসার রক্তচাপ কমে গিয়ে দেহমন শিথিল হয়ে যায়।

ডার্ক চকলেট খেলে আমাদের যেকোনো হার্টের অসুখ ও স্ট্রোকের ঝুকিঁ কমে থাকে

ডার্ক চকলেটের স্বাস্থ্য উপকারিতা অনেক বেশি হয়ে থাকে যা খাদ্য পুষ্টিবিদ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার খুব ভালো মত জানেন। ২০১৫ সালে প্রকাশিত একটি গবেষণার মাধ্যমে দেখা গিয়েছে যে, নিয়মিত ডার্ক চকলেট খাওয়ার মাধ্যমে লোকেদের হার্টের অসুখ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে যায়। বিভিন্ন গবেষণার প্রতিবেদন নিয়ে ফলাফল দেখা গিয়েছে যে, আপনি যদি সপ্তাহে ৫ বার ডাক চকলেট খেয়ে থাকেন তাহলে আপনার ৫৭% হার্টের অসুখের সম্ভাবনা কমে যাবে। এটি খাওয়ার ফলে আমাদের দেহের শিরা উপশিরা গুলো তে কোলেস্টেরল জমতে দেওয়া হয় না।

ডার্ক চকলেট খাওয়ার ফলে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকার সাধন করে

ডার্ক চকলেট খাওয়ার নানা উপকারিতার মধ্যে রয়েছে রক্তের চিনির ব্লাড সুগার বা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে এটি বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। সাধারণত কোকোর সমৃদ্ধ ডার্ক চকলেট হওয়ায় এটি আপনার দেহের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণে এক বিশেষ প্রভাব রাখে। ডার্ক চকলেট সাধারণত দেহের ইনসুলিন উৎপাদন স্বাভাবিক রাখতে এক বিশেষ ভূমিকা রাখে ফলে ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। আর তাই ডার্ক চকলেট খাওয়া আমাদের জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে থাকে।

ডার্ক চকলেট ত্বকের সুস্থতার জন্য বিশেষ উপকার সাধন করে

আপনি যদি নিয়মিত ডার্ক চকলেট খেয়ে থাকেন তাহলে আপনার ত্বকের জন্য এক বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, ডার্ক চকলেট থাকা ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, কপার সহ আরো নানা উপাদান আমাদের ত্বককে ভালো রাখতে বিশেষ কাজ করে। ডাক চকলেটের মধ্যে এক ধরনের বিশেষ ক্যালসিয়াম রয়েছে যা ত্বকের ক্ষয় রোধ করে থাকে। এবং নতুন ত্বক তৈরিতে এক বিষয়ে সাহায্য করে। ডার্ক চকলেটের মধ্যে থাকা এক ধরনের এন্টি-অক্সিডেন্ট সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রক্ষা করে থাকে।

ক্যান্সার প্রতিরোধে ডার্ক চকলেট

ডার্ক চকলেটের মধ্যে যেসব প্রয়োজনীয় উপাদান রয়েছে সেসব ক্যান্সার প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রেখে থাকে। আপনি যদি নিয়মিত ডার্ক চকলেট খেতে পারেন তবে তা আপনার ক্যান্সার প্রতিরোধে কাজ করে থাকবে।

ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমিয়ে উপকারী কোলেস্টেরল বাড়িয়ে তোলে ডার্ক চকলেট

ডার্ক চকলেট সম্পর্কে এক ধরনের গবেষণায় উঠে এসেছে যে, এটিকে কাজুবাদাম এবং নির্ভেজাল মিষ্টি না মেশানোর কারণে প্রাকৃতিক কোকো আমাদের দেহের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমিয়ে দিয়ে থাকে। এখানে কোকো বাটার নাম একটি খাদ্য উপাদান আমাদের দেহের উপকারী কোলেস্টেরল দ্রুত বাড়িয়ে তোলে। এবং আমাদের দেহের মধ্যে থাকা ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কে দ্রুত কমিয়ে দিতে বিশেষভাবে সাহায্য করে থাকে।

মস্তিষ্কে রক্তপ্রবাহ এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে ডার্ক চকলেট

ডার্ক চকলেট সাধারণত আমাদের শরীরের বিভিন্ন উপকার সাধন করে থাকে। এসব বিভিন্ন উপকার সাধন করার মাধ্যমে মস্তিষ্কে রক্তপ্রবাহ এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করা একটি গুরুত্বপূর্ণ উপকার হয়ে থাকে। ফ্ল্যাভানল নামক একটি উপাদান মস্তিষ্ক রক্ত প্রবাহ বাড়িয়ে দেয়। আর এই উপাদানটি কোকো বীজে বেশি পরিমাণে থাকে। যদি আপনি নিয়মিত ডার্ক চকলেট খেতে পারেন তাহলে আপনার স্মৃতিশক্তি অধিক বৃদ্ধি পাবে।

ওজন কমাতে সাহায্য করে ডার্ক চকলেট

আমাদের দেহের অতিরিক্ত ওজন নিয়ে আমাদেরকে নানা সমস্যায় পড়তে হয়। তবে একটু অবাক হলেও সত্য যে এটি আমাদের ওজন কমাতে এক বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। তবে বিভিন্ন বিঙ্গানিরা গবেষণা করেছে যে, খাবার গ্রহণের ২০ মিনিট আগে ডার্ক চকলেট খেলে মস্তিস্কে এক ধরণের হরমোন নিসৃত হয়ে থাকে এবং পরবর্তীতে তা খাওয়ার পরিমাণ যথেষ্ট কামিয়ে দিয়ে থাকে। 

বিষণ্ণতা দূর করে মানসিক প্রশান্তিতে সাহায্য করে থাকে ডার্ক চকলেট 

ডার্ক চকলেটে থাকা এক ধরণের বিশেষ ট্রিপটফেন আমাদের বিষণ্ণতা দূর করতে এক বিশেষ সাহায্য করে থাকে। এটি দ্রুত আমাদের মস্তিস্কে দ্রুত ডোপামিন ক্ষরণ বাড়িয়ে শরীরে আন্দের অনুভূতি তৈরী করতে এক বিশেষ সাহায্য করে থাকে। 

গর্ভবতী মা শিশুর জন্য এক বিশেষ উপকারী হয়ে থাকে এই ডার্ক চকলেট

ডার্ক চকলেট খাওয়ার ফলে সাধারণ মানুষের যে উপকার সাধন করে থাকে, তা আবার গর্ভবতী মহিলাদের এক বিশেষ উপকার করে থাকে এই ডার্ক চকলেট। এটি গর্ভবতী মহিলাদের খাওয়ার ফলে গর্ভের শিশুকে সুস্থ রাখতে এক বিশেষ সাহায্য করে থাকে। 

ডার্ক চকলেটের অপকারিতা

ডার্ক চকলেট খাওয়ার অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা থাকলেও এর কিছু খারাপ দিকও রয়েছে। 

ক্যাফিন থেকে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

ইউনিভার্সিটি অব কেন্টাকি কলেজ অফ এগ্রিকালচারের মতে, ডার্ক চকলেটে দুধের চকলেট এবং সাদা চকলেট উভয়ের চেয়ে বেশি ক্যাফিন থাকে। প্রচুর পরিমাণে ডার্ক চকলেট সেবন করলে হৃদস্পন্দন, ডায়রিয়া, দুশ্চিন্তা, বিরক্তি, স্নায়বিকতা এবং পানিশূন্যতা হতে পারে। ক্যাফিন রক্তচাপ বৃদ্ধি এবং ফোকাস বা ঘনত্বের অসুবিধা সৃষ্টি করতে পারে। ক্যাফিন অনিদ্রার কারণ হতে পারে তাই ঘুমাতে যাওয়ার আগে আপনার ডার্ক চকোলেট খাওয়া এড়িয়ে চলা উচিত। আপনি যদি ক্যাফিনের প্রতি সংবেদনশীল হন বা আপনি যদি উচ্চ রক্তচাপে ভোগেন তবে আপনার প্রচুর পরিমাণে ডার্ক চকলেট খাওয়া এড়ানো উচিত।

8-আউন্স কাপ ব্ল্যাক কফির জন্য 145 মিলিগ্রামের তুলনায় ডার্ক চকলেটে প্রতি আউন্স 35 মিলিগ্রাম ক্যাফিন থাকে। বিবেচনা করুন যে আপনি যদি আপনার ক্যাফিন গ্রহণ করার চেষ্টা করছেন বা রাতে ঘুমিয়ে পড়ার ক্ষমতাকে বাধাগ্রস্ত করছেন না-তো।

কিডনির পাথর | ডার্ক চকলেট কিডনির পাথরের ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে

ডার্ক চকলেট কিডনিতে পাথর হওয়ার পরিবর্তনের মাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে। মেরিল্যান্ড মেডিকেল সেন্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের মতে, ডার্ক চকলেটে অক্সালেট রয়েছে। এটি প্রস্রাবের অক্সালেট নির্গমন বৃদ্ধির কারণ হতে পারে, যা কিডনিতে পাথর গঠনের ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে। যদি আপনার কিডনিতে পাথর হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বা অতীতে যদি আপনার কিডনিতে পাথর হয়ে থাকে তবে আপনার জন্য ডার্ক চকলেট সহ বিভিন্ন রূপে অক্সালেট খাওয়া এড়ানো গুরুত্বপূর্ণ।

মাইগ্রেনের মাথাব্যাথা

ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ড মেডিকেল সেন্টার এবং ক্লেমসন ইউনিভার্সিটির মতে, ডার্ক চকলেট মাইগ্রেনের লক্ষণগুলো ট্রিগার করতে পারে। ডার্ক চকলেটে রয়েছে টায়রামিন নামক একটি প্রাকৃতিক রাসায়নিক। Tyramine সম্ভবত মাইগ্রেনের মাথাব্যথা ট্রিগার করবে বলে মনে করা হয়, কিন্তু এই সম্পর্ককে আরও ভালভাবে বোঝার জন্য আরও অধ্যয়নের প্রয়োজন। 

ডার্ক চকোলেটে চিনিও বেশি এবং আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়াতে পারে। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির মতে, উচ্চ রক্তে শর্করা বা হাইপারগ্লাইসেমিয়া মাইগ্রেনের মাথাব্যথাও ট্রিগার করতে পারে। আপনি যদি মাইগ্রেনের মাথাব্যথায় ভোগেন, তাহলে ডার্ক চকোলেট এমন একটি খাবার হতে পারে যা আপনার এড়িয়ে চলা উচিত।

ডার্ক চকোলেটে চিনির পরিমাণ বেশি

ডার্ক চকোলেটে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং চিনি রয়েছে। ক্লেমসন ইউনিভার্সিটির মতে, একক আউন্স ডার্ক চকোলেট হল 150 ক্যালরি, যার বেশিরভাগ ক্যালোরি চর্বি এবং চিনি থেকে আসে। অতিরিক্ত চর্বি এবং চিনি খরচ আপনার কোমরে লাইনে ইঞ্চি যোগ করতে পারে এবং কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকির কারণ বাড়িয়ে তুলতে পারে। Clemson নোট, তবে, ডার্ক চকোলেট সাদা চকোলেট বা দুধ চকোলেটের চেয়ে অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর। যদিও ডার্ক চকোলেট অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের সমৃদ্ধ উৎস, এটি শুধুমাত্র পরিমিত মাত্রায় সুপারিশ করা হয় কারণ এটি একটি ক্যালোরি-ঘন খাবার।

পরিশেষে

ডার্ক চকলেট খাওয়ার ফলে আমরা যথেষ্ট স্বাস্থ্য উপকারিতা পেয়ে থাকি। এটি আমাদেরকে শারীরিক বা মানসিক ভাবে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে থাকে। এটি খাওয়ার ফলে আমরা সুস্থ শরীর পাওয়ার আশা করতে পারি। আমাদেরকে উপরের আলোচিত বিভিন্ন উপায়ের মাধ্যমে সুস্থ রাখতে এক বিশেষ ভূমিকা রেখে থাকে এই ডার্ক চকলেট।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া