Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/07/android-mobile-tips-and-tricks.html

এন্ড্রয়েড মোবাইল টিপস | স্মার্টফোনের অজানা ১০টি ফিচার

১০ সেরা এন্ড্রয়েড মোবাইল টিপস — আমাদের সবার দৈনন্দিন জীবনে মোবাইল ফোনের গুরুত্ব অসম্ভব হারে বিস্তার করছে। আমরা সকলেই মোটামুটি স্মার্টফোন ব্যবহার করছি। তবে হ্যাঁ অনেকেই আছেন যারা তাদের মোবাইল ফোনের অনেক সহজ সহজ কিছু সেটিংস সম্পর্কে জানেন না। তারই ধারাবাহিকতায় আমরা এই আর্টিকেলে আলোচনা করবো এন্ড্রয়েড মোবাইলের ১০টি সিক্রেট টিপস সম্পর্কে।

এই আর্টিকেলে আমরা স্মার্টফোনের টোটাল ১০টি সিক্রেট টিপস নিয়ে বিস্তারিত বলবো। তারমধ্যে হয়তোবা আপনার ২, ৩, ৪ এবং ৫ নম্বর সম্পর্কে জানা আছেন। কিন্তু বেশিরভাগ এন্ড্রয়েড মোবাইল টিপসগুলো আপনার অজানা। আপনি হয়তো আপনার স্মার্টফোনটি ১ থকে ২ বছর ব্যবহার করছেন। কিন্ত তারমধ্যে যে এত বেশি পরিমাণে হিডেন মোবাইল টিপস রয়েছে তা আপনি কখনই ভাবেন নি।

এন্ড্রয়েড মোবাইল টিপস

তোহ চলুন জেনে নেয়া যাক, এন্ড্রয়েড মোবাইলের সিক্রেট ১0টি টিপস সম্পর্কে। আর এই টিপসগুলো আমাদের দৈনন্দিন কাজে অনেক বেশি দরকার হবে।

কোনো ধরনের এন্টিভাইরাস ছাড়াই মোবাইলকে ফাস্ট করুন

তারজন্য প্রথমেই আপনাকে মোবাইল ফোনের সেটিংসে Settings অপশনে যেতে হবে। সেটিংসের শেষের দিকে "Developer Options" নামের একটা অপশন আছে। কিন্তু সাধারণ অবস্থাতে এই অপশন আপনার ফোনে দেখতে পারবেন না। এই অপশনকে দেখার জন্য আপনাকে "About Device" এখানে গিয়ে "Build Number" অপশনে পরপর ৭ বার ট্যাপ করুন। তারপর দেখুন আপনার মোবাইল ফোনের ডিসপ্লেতে "Developer mode has already been turned on" ভেসে উঠছে। এখন দেখুন মোবাইল ফোনের সেটিংস অপশনে "Developer Options" টি চলে আসছে।

এখন আপনি "Developer Options"এ ক্লিক করুন আর নিচের দিকে স্ক্রল করুন। দেখতে পারবেন "Window animation scale 1x" এখানে ক্লিক করে এই অপশনকে আপনি অফ OFF করে দিন। একইভাবে আপনি নিচের ২টা অপশন যথাক্রমে "Transition animation scale" এবং "Animator duration scale" এই দুটি অপশনকে অফ Off করে দিন। তারপর দেখুন, আগের তুলনায় আপনার মোবাইল ফোনটি এখন অনেক অনেক বেশি ফাস্ট ও অনেক বেশি দ্রুত কাজ করছে। এরপর "Developer Options" এর একটুখানি নিচে স্ক্রল করলেই দেখতে পারবেন "Do not keep activities" নামের একটা চেকমার্ক ✓অপশন আছে। এই অপশন টিকে আপনি চেকমার্ক ✓করে দিন। এতে করে আপনার মোবাইল ফোন সবসময় রিফ্রেশ থাকবে।

পদ্ধতিঃ Settings → Developer Options → About Device → Build Number → Developer mode Has already been turned on → Setting Option  Developer Options → Window animation scale 1x → Do not keep activities।

আরও পড়ুনঃ মোবাইলের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় 

অতিরিক্ত মেগাবাইট খরচ বন্ধ করা

ধরুণ, আপনি খুবি কম মেগাবাইট কিনছেন একটা দরকারী কাজের জন্য। কিন্তু অন্যান্য অ্যাপসগুলো সেই ডাটা ব্যবহার করছে খুব তাড়াতাড়ি। তোহ আপনি কিভাবে আপনার ডাটা সেভ করে রাখবেন, যা অন্যান্য কোনো অ্যাপস ব্যবহার করতে পারে।

মোবাইলে অতিরিক্ত ডাটা ব্যবহার বন্ধ করার জন্য আপনাকে এই "Data usage" অপশনে যেতে হবে। তারপরে উপরের থ্রী-ডট মেনুতে ক্লিক করুন। এরপর সেখানে দেখতে পারবেন "Restrict Background Data" অপশনটি। সেখানে ক্লিক করে রাখুন। এখানে ক্লিক করার কারনে আপনার মোবাইলের অন্যান্য অ্যাপগুলো অনাকাঙ্খিতভাবে বেশি ডাটা ব্যবহার করতে পারবে না।

"Data Usage" এই অপশনে দেখতে পারবেন "Set Mobile Data Limit" নামের একটা অপশন রয়েছে। এই অপশনলে চেকমার্ক ✓করে দিন। এতে করে কি হবে? যখনি আপনার সিম কার্ডে টাকা ও ডাটা উভয় থাকে আর হঠাৎ করে যদি ডাটা শেষ হয়ে যায়, ঠিক সেই মূহর্তে সিম কোম্পানিগুলো আপনার সিমে থাকা টাকা কেটে নেয়া শুরু করে। যদি আপনি এই অপশনটি চেকমার্ক ✓ করে দিন এবং গ্রাফে ডাটা লিমিট ঠিক করে দিন আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী, এর কারণে যদি হঠাৎ করে মোবাইলে ডাটা শেষ হয়ে যায় তাহলে আর আপনার ব্যালেন্স থেকে টাকা কেটে নেয়া হবেনা।

পদ্ধতিঃ Settings  Data usage  Restrict background data  Set mobile data limit।

কথা বলার সময় একই সাথে ২ সিম সচল রাখা

সাধারণত আমরা যখন মোবাইলে কথা বলি তখন কিন্তু দ্বিতীয় সিমে কল আসে না। কিন্তু আপনি কিভাবে আপনার মোবাইল ফোনের উভয় সিমকে সচল রেখে একই সঙ্গে দুইটি সিম থেকে কল আসবে? এই পদ্ধতি যেভাবে করবেন?

কথা বলার জন্য এক সঙ্গে ২টি সিমকে সচল রাখার পদ্ধতি চালু করার জন্য আপনাকে প্রথমে মোবাইলের সেটিংস "Settings"অপশনে যেতে হবে। তারপর "SIM card manager"এখানে যেতে হবে। এরপর দেখতে পারবেন একদম নিচের দিকে "Dual SIM always on" লেখা রয়েছে। সেখানে ক্লিক করুন। দেখুন সেখানে ২টি অপশন চলে আসছে। এদের মধ্যে "Phone Number" অপশনে ক্লিক করুন আর Sim 1 এবং Sim 2 এখানে আপনি আপনার মোবাইলে উভয় সিমের নাম্বারটিকে বসিয়ে দিন। তারপর Ok দিন। এরপর "Select SIM card" এই অপশনে ক্লিক করে "Both SIM cardd" এখানে ক্লিক করে অন (On) করে দিন আর "Dual SIM always on" করুন।

পদ্ধতিঃ Settings  SIM card manager  Dual SIM always on  Phone Number  Sim 1 & Sim 2  Dual SIM always on।

আরও পড়ুনঃ ব্যাটারি ও ডাটা সাশ্রয়ী লাইট অ্যাপ

যেকোনো নাম্বারকে ব্লক লিস্টে রাখুন কোনো ধরনের অ্যাপস/অ্যাড ব্যবহার না করে

শুরুতেই আপনাকে সেটিংস "Settings" অপশনে যেতে হবে। তারপর "Call settings" অপশনে যেতে হবে। এখানে আপনাকে "Call rejection" নামের অপশনটিতে ক্লিক করুন। এখন "Auto reject mode" অপশনে ক্লিক করুন এবং "Auto reject numbers"এখানে চেকমার্ক ✓ করুন। তারপর আপনাকে "Auto reject list"এই অপশনে আপনাকে ক্লিক করতে হবে এবং আপনার ফোনের কন্টাক্ট লিস্টে থাকা অথবা ম্যানুয়ালি আপনি যেকোন ফোন নাম্বারকে ব্লক লিস্টে অর্থাৎ ব্লক করতে পারবেন।

পদ্ধতিঃ Settings  Call settings  Call rejection  Auto reject mode  Auto reject numbers  Auto reject list।

হোম বাটনের ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়ে কল রিসিভ করুন

এই ক্ষেত্রে যদি আপনার স্মার্টফোনটি "Samsung Phone" হয়ে থাকে, তবে এই কাঙ্খিত সেবাটি আপনি গ্রহণ করতে পারেন। কিন্তু এটি কিভাবে করবেন?

শুরুতেই আপনাকে "Settings" অপশনে যেতে হবে। তারপর "Call settings" এখানে যেতে হবে। আর তারপর "Answering and ending calls" এখানে ক্লিক করতে হবে। এরপর দেখুন "Pressing the Home Key"। এই অপশনটিকে চেকমার্ক ✓ করে ‍দিন। ব্যাস, আপনার কাজ হয়ে গেছে। এখন থেকে আপনার ফোনে যদি কোনো কল আসে তাহলে আপনি হোম-বাটনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যবহার করে কল রিসিভ করতে পারবেন।

পদ্ধতিঃ Settings  Call settings  Answering and ending calls  Pressing the Home Key।

কিভাবে জানবেন আপনার ফোনটি আসল নাকি নকল

আপনি কি জানেন আপনার ফোনটির বৈধতার বিষয়টি। অথবা যখন আপনি একটি সম্পূর্ণ নতুন একটি মোবাইল ফোন ক্রয় করবেন তখন কিভাবে বুঝবেন আপনার ফোনটি বৈধ কি-না? অর্থাৎ আপনার ফোনটি অফিসিয়াল নাকি আনঅফিসিয়াল অথবা ফোনটি আসল নাকি নকল। তোহ চলুন মাত্র ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে জেনে নেই আপনার ক্রয় করা মোবাইল ফোনটি আসল নাকি নকল।

মোবাইল ফোন আসল না নকল জানার জন্য প্রথমেই আপনাকে ফোনের "Settings" অপশনে যেতে হবে। তারপর "About device" এখানে যেতে হবে। এখন আপনি যাবেন "Android version" এই অপশনে। তারপর আপনি "Android Version" এর উপরে কয়েকবার ক্লিক করুন। এতে করে আপনার স্মার্টফোনটি কোন ভার্সনের সেটি আপনি দেখতে পারবেন। বর্তমান সময়ের প্রতিটি মোবাইলফোন এটাকে আরও সহজতর করে দিয়েছে। অর্থাৎ আপনি মোবাইল ফোনের About device এই অপশনে গেলেই ফোনের সকল ডিটেইলস দেখতে পারবেন।

পদ্ধতিঃ Settings → About device →  Android version।

আরও পড়ুনঃ ইন্টারনেট কি | ইন্টারনেটের সুবিধা ও অসুবিধা

স্মার্টফোনে মাউচ ব্যবহার ও সেটিংস

মোবাইলে মাউচ ব্যবহার এই অপশন চালু করার জন্য প্রথমেই আপনাকে ফোনের "Settings" এখানে যেতে হবে। তারপর সেটিংস থেকে স্ক্রল করে "Developer Options"এখানে যাবেন। "Developer Options" এখানে দেখতে পারবেন "Show touches" নামের একটা অপশন রয়েছে। এখানে আপনি চেকমার্ক ✓ করে দিন। তারপর দেখতে পারবেন এটি মাউচের মতো কাজ করছে অর্থাৎ যেখানে আপনি টাচ করবেন সেখানেই মাউচের ন্যায় চিহৃ হয়ে যাবে।

পদ্ধতিঃ Settings  Developer Options  Show touches।

Gallary অ্যাপস ও ছবি দিয়ে GIF তৈরি করুন

এই কাজ করার জন্যে আপনাকে প্রথমে আপনার ফোনে Gallary মধ্যে প্রবেশ করতে হবে তারপর থ্রী-ডট মেনুতে ক্লিক করে "Create A GIF file" এখানে ক্লিক করতে হবে। এরপর আপনার পছন্দ মতো কয়েকটা ছবি সিলেক্ট করুন এবং Done করুন। আপনি আপনার ইচ্ছামতো "Playback speed" বৃদ্ধি করতে এবং কমাতে পারবেন। ব্যাস, এবার দেখতে পারবেন নতুন একটি ফোল্ডারে GIF আকারের সিলেক্টকৃত ছবিগুলো হয়েছে।

পদ্ধতিঃ Gallary  Create AGIF file  Done  Playback speed।

স্ক্রিনলকের পেটার্নের দাগগুলো হাইড করুন

এই কাজ করার জন্য প্রথমেই আপনাকে ফোনের "Settings" অপশনে যেতে হবে। তারপর "Lock Screen" এখানে যাবেন। এরপর আপনি "Make pattern Visible" এখানে চেকমার্ক ✓ করে দিন। ব্যাস আপনার কাজ শেষ এবার দেখুন তোহ ফোনে কোন ধরনের প্যাটার্নের দাগ আছে কি-না।

পদ্ধতিঃ Settings  Lock Screen → Make pattern Visible।

Mobile Phone-এর ফন্টগুলো স্টাইলিস করুন

মোবাইল ফোনের ফন্ট স্টাইল পরিবর্তন করার জন্য প্রথমেই আপনাকে ফোনের "Settings"এই অপশনে যেতে হবে। তারপর Display এখানে ক্লিক করতে হবে। এরপর "Font Style" এখানে ক্লিক করে অনেকগুলো ফন্টের মাঝে আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো একটিকে সিলেক্ট করুন। তারপর দেখুন, সম্পূর্ণ মোবাইল ফোনের ফন্ট স্টাইল পরিবর্তন হয়ে গেছে।

পদ্ধতিঃ Settings  Display  Font Style।

তোহ আপনি জানলেন মোবাইল ফোনের ১০টি সিক্রেট টিপস। কিন্তু হ্যাঁ বলে রাখি মোবাইল ফোনের মডেল এবং ব্র্যান্ড ভেদে এই অপশনগুলো ভিন্ন হবে। তবে গুটি কয়েক মোবাইল ফোন ছাড়া সকল মোবাইল ফোনের অপশন প্রায় একই। তোহ আশা করছি আজকের এই এন্ড্রয়েড মোবাইল টিপস আপনার কাছে অনেক ভালো লেগেছে।

আরও পড়ুনঃ মোবাইল দিয়ে ছবি ভিডিও রিকভারি সফটওয়্যার

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া