Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/05/Advantages-and-disadvantages-of-Microsoft-account.html

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টের সুবিধা ও অসুবিধা

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট এর সুবিধা ও অসুবিধা — মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট এর সুবিধা ও অসুবিধা দুটোই আছে। মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য কিন্ত কোন সমস্যা থাকে না বরং সমস্যা কোন কোন ক্ষেত্রে হবে তা নির্ভর করবে আপনার ব্যবহার করার উপরে। আপনি কি কি কাজে আপনার মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করছেন তার উপরে নির্ভর করবে এটির সুবিধা ও অসুবিধা।

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট হচ্ছে গুগল আকাউন্টের মতো। গুগল অ্যাকাউন্ট দিয়ে আপনি যেমন সহজেই গুগলের এবং অ্যান্ড্রয়েডের সেবা সূমহ ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছেন। ঠিক অনুরুপভাবে মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে আপনি তাদের উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম এবং মাইক্রোসফট এর অন্যান্য সকল সেবা ব্যবহারের সুবিধা পারবেন।

আজকের এই আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করবো মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট ব্যবহার এবং উইন্ডোজ কম্পিউটারে ব্যবহার করলে আপনি কোন কোন সুবিধা পেয়ে যাবেন আর কি কি অসুবিধার সন্মুখীন হতে পারেন। তাই মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টের সুবিধা-অসুবিধা সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি খুব ধৈর্য সহকারে পড়ে নিতে হবে।

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট এর সুবিধা-অসুবিধা

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টের সুবিধা ও অসুবিধা

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট এর সুবিধা

উইন্ডোজ অ্যাপ স্টোর | উইন্ডোজ অ্যাপ স্টোর

আপনার যদি একটি মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট থাকে তাহলে আপনি উইন্ডোজ ১০ এ থাকা তাদের অ্যাপ স্টোর ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন। তাদের মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট অ্যাপ স্টোরে যে শুধুমাত্র অ্যাপ্লিকেশান থাকে তা কিন্ত নয় গেম, ই-বুক, মুভি ও গান আছে। তাই আপনি যদি এসকল সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনার একটি মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট থাকা অত্যাবশ্যক।

বিল্ট ইন অ্যাপ ব্যবহার

উইন্ডোজ ১০ এ রয়েছে বেশ কিছু বিল্ট ইন অ্যাপ যেমন Groove music, Movies and TV, Map, People ইত্যাদি। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি এসকল অ্যাপে যদি মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট দিয়ে আপনি লগ ইন করেন তবে এসকল অ্যাপ ব্যবহারের সময় ভিন্ন ভিন্ন মাত্রা যোগ হবে। বিশেষ ভাবে বলতে গেলে Groove Music যদি আপনার মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট দিয়ে লগ ইন করেন তবে আপনার কেনা গান এবং আপলোড করা গান পৃথিবীর যে কোনো যায়গা থেকে যে কোনো ডিভাইস এর মাধ্যমে শুনতে পারবেন।

OneDrive | ওয়ান ড্রাইভ

ক্লাউড ড্রাইভের সুবিধার কথা আপনাদেরকে আর নতুন করে কিছু বলার প্রয়োজন নেই। আমাদের সকলের ব্যক্তিগত হার্ড ডিস্ক ড্রাইভে থাকা ফাইল গুলো যে কোনো সময় নষ্ট হতে পারে। তবে ওয়ান ড্রাইভ ক্লাউড ড্রাইভে থাকলে তা নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। এছাড়াও যদি ক্লাউড ড্রাইভে আপনার ফাইল গুলো থাকে তাহলে যে কোনো সময় আপনি অ্যাক্সেস করতে পারবেন। আর যদি আপনার মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট থাকে তাহলে আপনি ফ্রিতে পাবেন ৫ জিবি ওয়ান ড্রাইভ স্টোরেজ। আর আপনার প্রয়োজনে যদি আরও যায়গার দরকার হয় তাহলে  টাকা খরচ করে এটা আরও বৃদ্ধি করে নিতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক থেকে আয় করার উপায়

E-mail | ইমেইল

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট থাকার কারণে আপনি একটি ফ্রি ই-মেইল পাবেন। এই ইমেইল আপনি Hotmail বা Outlook দুইটি ডোমেইনই ব্যবহার করার সুযোগ পারবেন।

Sync settings | সেটিংস সিঙ্ক

আপনি যখন আপনার পিসিতে উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করে থাকেন তখন স্বাভাবিকভাবে ডিফল্ট সেটিংকে আপনার ইচ্ছামতো পরিবর্তন করে ব্যবহার করেন। এখন যদি আপনি আপনার কম্পিউটারে মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট লগ ইন করে রাখেন তবে আপনার সেটিংসগুলো আপনার মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টে ব্যাকআপ হিসেবে থাকবে। যার ফলে আপনি যখন নতুন করে আবার আপনার কম্পিউটার সেটআপ করবেন তখন আপনি সেই সেটিংস রিস্টোর করে নিতে পারবেন।

Skype | স্কাইপ

মাইক্রোসফট ২০১১ সালে স্কাইপ সেবা কিনে নেয়। আর এই স্ক্যাইপ সেবা ব্যবহার করার জন্য প্রয়োজন হয় মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টের। স্কাইপ Skype এর সকল সুবিধা ব্যবহার করতে হলে আপনার মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট থাকাটা অত্যাবশ্যক। স্কাইপ অ্যাপ্লিকেশান এর মাধ্যমে আপনি ফ্রি কথা বলতে পারবেন, মেসেজ আদান-প্রদান করতে পারবেন এবং এর পাশাপাশি টাকা খরচ করে আপনি যেকোনো মোবাইল নম্বরে ফোন দিয়ে কথাও বলতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ রমজানের ক্যালেন্ডার ২০২১ 

Microsoft Office | মাইক্রোসফট অফিস

মাইক্রোসফট অফিস এর কথা নতুন করে আর কিছু বলার নেই। মাইক্রোসফট অফিস কমবেশি সকলেই ব্যবহার করেছেন। যদি যদি আপনার মাইক্রোসফট অফিস এ অ্যাকাউন্ট লগ ইন করেন তাহলে আপনার ফাইল গুলো এবং সেটিংস ব্যাকআপ করে রাখতে পারবেন।

Cortana | কর্টনা

কর্টনা Cortana হচ্ছে মাইক্রোসফট এর একটি AI ফিচার। অর্থাৎ এটাতে আছে Artificial intelligence আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। কর্টনা Cortana আপনার হয়ে আপনার ডিভাইসটি ব্যবহার করতে সক্ষম। ধরুন, আপনি বলছেন Hey Cortana একটা গান প্লে করো আপনি দেখবেন যে স্বয়ংক্রিয়ভাবে গান চালু হয়েছে। এইক্ষেত্রে আপনার আর হাত ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়বে না। আপনি যদি এই Cortana এর ফিচার ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনার একটি মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট থাকা অত্যাবশ্যক।

Xbox | এক্সবক্স

এক্সবক্স ফিচারসটি হচ্ছে গেমিং লাভারদের জন্যে। আপনি যদি একজন গেমার লাভার হয়ে থাকেন এবং আপনার গেমিংয়ের ক্ষেত্রে আরো নতুন মাত্রা যোগ করতে চান তাহলে এক্সবক্সে Xbox আপনার অ্যাকাউন্ট যোগ করে নিন।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার উপায়

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টের অসুবিধা

গোপনীয়তা

মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট Microsoft Account এর অসুবিধা নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে প্রথমেই যে অসুবিধা চলে  আসে তা হচ্ছে এর গোপনীয়তার নীতিমালা সম্পর্কে। মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট আপনার কম্পিউটারে ল্যাপটপ বা ডেক্সটপ কম্পিউটারে লগ ইন করা থাকলে সেখানে আপনার তথ্য সুরক্ষিত থাকবে কিনা এই নিয়ে অনেকে সন্দেহ প্রকাশ করছে। মাইক্রোসফটের গোপনীয়তা নীতিমালাতে খুব স্পষ্টভাবেই উল্লেখ করা হয়েছে যে আপনি যখন আপনার মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট লগ ইন করবেন। 

সেই সময় তারা আপনার ডিভাইসের ডাটা, সময় ও আইপি অ্যাড্রেস কালেক্ট করবে। এছাড়াও আপনার লগ ইন নাম, ব্যক্তিগত তথ্য, অপারেটিং সিস্টেম, ব্রাউজারের তথ্য সংগ্রহ করে রাখবে। তাছাড়াও যদি আপনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করেন তাহলে তাদের সার্ভারে আপনার সামাজিল যোগাযোগ মাধ্যমের বেশ কিছু তথ্য সংরক্ষণ করে রাখবে তারা।

নিরাপত্তা

বর্তমানে ডিজিটাল যেকোনো ধরনের সেবা ব্যবহারের জন্য নিরাপত্তা বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। কেননা প্রায় সকল ধরনের ডিজিটাল সেবার মাঝে নিরাপত্তার ঝুঁকি থেকে যায়। হ্যাকারগণ যে কোনো সময়ে আপনার তথ্য হাতিয়ে নেয়ার প্রচেষ্টা চালায়। যদি আপনি আপনার মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টটি আপনার অন্যান্য ডিভাইসে ইউজ করে থাকেন, আর যদি সেই অ্যাকাউন্টটি কখনো হ্যাক হয় তাহলে আপনার অনেক অ্যাকাউন্টে থাকা অনেক স্পর্শকাতর তথ্য চলে যাবে হ্যাকারদের হাতে। যদিও মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট এর নিরাপত্তা বিষয়টি শুধুমাত্র মাইক্রোসফট কর্পোরেশন এর অধীন না বরং এটি আপনার উপরেও অনেকগুলি বিষয় নির্ভর করে।

আরও পড়ুনঃ বাংলা ভয়েস টাইপিং কীবোর্ড | বাংলা ভয়েস টাইপিং অ্যাপ

শেষ কথা

তো বন্ধুগণ আজকে আর্টিকেল এই ছিলো মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট এর সুবিধাও অসুবিধা নিয়ে বিস্তারিত  আলোচনা। মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্টের সুবিধার পরিমাণ  যদিও বেশি তবে আর্টিকেলের শেষে থাকা দুটো অসুবিধার কথাটি অবশ্যই অবশ্যই মাথায় রাখবেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া