জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি মোটা হয়

হাসিবুর
By -
0

শরীরের ওজন বৃদ্ধি বা মোটা হওয়ার সাথে অবশ্যই শরীরের পুষ্টি উপাদানগুলি ওতপ্রোতভাবে জড়িত। আপনারা যারা জানতে চান জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি মোটা হয় কিনা সে সম্পর্কে তাঁদের জন্যেই মূলত আমাদের আজকের এই লেখাটি। এই লেখায় আমরা জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানার চেষ্টা করবাে এবং আরো জানব জিংক বি ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম এবং জিংক বি ট্যাবলেট এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, জিংক বি ট্যাবলেট এর দাম কত সম্পর্কে।

জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি মোটা হয়

কোনো ঔষধ সেবন করতে হলে অবশ্যই সেই ঔষধ সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখা প্রয়োজন। কারণ ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কখনো কখনো শরীরের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। তাই সবসময়য় সকলের উচিত সেই ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া গুলো দূরে রাখতে এবং সে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া গুলো কিভাবে এড়ানো যায় সে দিকে খেয়াল রাখতে। এখন আমরা জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি হয় এবং জিংক বি ট্যাবলেট কি কাজ করে সে সম্পর্কে জানার চেষ্টা করবো।

(toc) #title=(এক নজরে সম্পূর্ণ লেখা পড়ুন)

জিংক বি ট্যাবলেট এর কাজ কি

জিংক বি ট্যাবলেট বাজারে নিয়ে এসেছে এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। যার প্রতিটি ট্যাবলেটে রয়েছে ভিটামিন বি কমপ্লেক্স ও জিংক সালফেট মনোহাইড্রেট। জিংক সালফেট বিভিন্ন বায়োলজিক্যাল ফাংশন যেমনঃ রোগ প্রতিরোধা ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, শরীরের কোন ক্ষত থাকলে সেটা সারাতে সাহায্য করে, বিশেষ করে বাড়ন্ত বয়সে শারীরিক বৃদ্ধি এবং মানসিক বিকাশ ঘটায়। জিংক গর্ভাবস্থায়, শৈশব এবং কৈশোরে স্বাভাবিক বৃদ্ধি ও গঠনে সহায়তা করে।

এছাড়াও নখে সাদা দাগ, বিষণ্ণতার প্রবনতা, ঘন ঘন ইনফেকশন, মানসিক সমস্যা, দূর্বল প্রজনন ক্ষমতা, প্রস্টেট এর সমস্যা, দেরিতে ঘা শুকানো, ডায়রিয়া, দূর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, মানসিক দূর্বলতা, অমসৃন ত্বক এবং ওজন কমে যাওয়া ভালো করতে জিংক বি ট্যাবলেট কাজ করে।

আরো পড়ুন; মিল্ক শেক এর দাম কত ২০২৪: মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা

জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি হয়

  • জিংক বি ট্যাবলেট খেলে দৈহিক এবং মানসিক বিকাশ বৃদ্ধি পায়।
  • জিংক বি ট্যাবলেট খেলে খাবার রুচি বৃদ্ধি পায়।
  • শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা পূর্বের তুলনায় বৃদ্ধি করে।
  • ক্ষুধামন্দা থাকলে তা ভালো করে।
  • শরীরের ক্ষত থাকলে তা ভালো কর‍তে জিংক বি ট্যাবলেট অনেক কার্যকর।
  • গর্ভপাতের ঝুকি কমাতে কাজ করে।
  • ডিহাইড্রেশন থেকে মুক্তি দেয়।
  • ব্রণ দূর করে জিংক বি ট্যাবলেট।
  • নখে সাদা দাগ ভালো করতে কাজ করে।
  • শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান গুলো নিশ্চিত করে থাকে।
  • মানসিক অলসতা দূর করতে কাজ করে।
  • নিদ্রা সমস্যা দূর করে।
  • প্রস্টেট এর সমস্যা দূর করতে জিংক বি ট্যাবলেট কার্যকর।
  • জিংক বি ট্যাবলেট খেলে খাবারের স্বাদ বৃদ্ধি পায়। যার কারণে পূর্বের থেকে বেশি খাওয়া যায়। তবে হ্যাঁ এটি কিন্ত রুচির ট্যাবলেট নয়।
  • উচ্চতা বৃদ্ধিতে জিংক বি ট্যাবলেট কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।
  • জিংক বি খেলে শরীরে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট তৈরি হয় যা শরীরের জন্য প্রতিরক্ষা হিসেবে কাজ করে।
  • বাচ্চাদের ওজন বৃদ্ধি কর‍তে কার্যকর ভূমিকা পালন করে।

আর্টিকেলের এই অংশে আমরা জানবাে জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি মোটা হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত। জিংক বি ট্যাবলেট মানবদেহে জিংক এবং ভিটামিন বি এর অভাব পূরণ করতে কাজ করে। তবে হ্যাঁ মনে রাখবেন, জিংক বি ট্যাবলেট কিন্তু শরীরের ওজন বৃদ্ধির কোনও ঔষধ নয়। অর্থাৎ এটি কোন মোটা হওয়ার ট্যাবলেট নয়। মূলত এই ট্যাবলেট নির্দেশিত হয়ে থাকে সাধারণত শরীরে জিংক ও ভিটামিন বি এর অভাব পূরণ করার জন্য। যার কারণে ওজন বৃদ্ধি হতে পারে।

আরো পড়ুন: আয়রন ট্যাবলেট এর উপকারিতা

জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি মোটা হয়

জি হ্যাঁ, জিংক বি ট্যাবলেট খেলে শরীর মোটা হয়। জিংক বি ট্যাবলেট শরীরের বিভিন্ন ধরনের বায়োলজিক্যাল ফাংশনে কাজ করে থাকে। এই ট্যাবলেট শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বৃদ্ধি করে, ক্ষত সারানোর কাজ করে, পরিপাক, মানসিক ও শারীরিক বিকাশ এবং শিশু-কিশোরদের স্বাভাবিক বৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে কাজ করে।

অনেক সময় দেখা যায় যে, প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে অনেকের ক্ষুধামন্দা, খাবারে স্বাদ কম লাগা এবং ঘ্রাণ শক্তি কমতে থাকে। এই সকল সমস্যার ক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী জিংক বি ট্যাবলেট সেবন করলে খুব সহজেই এই রোগগুলো থেকে মুক্তি পাওয়া পায়। জিংক বি খাওয়ার কারনে খাবার হজম এবং খাবারের প্রতি রুচি বৃদ্ধি পায়। সেক্ষেত্রে পরোক্ষ ভাবে বলা যায় যে, জিংক বি ট্যাবলেট খেলে মোটা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। অর্থাৎ জিংক বি ট্যাবলেট খেলে মোটা হওয়া যায়।

কিন্তু হ্যাঁ এটি আপনার ওজন বৃদ্ধি এবং মোটা হতে খুব বেশি সহায়তা করবে না। যেমনটি কোনো মোটা হওয়ার ঔষধ খেলে মোটা হওয়ার কথা সেই তুলনায়। আর হ্যাঁ আপনি যদি একান্তই আপনার দেহের ওজন বৃদ্ধি কিংবা মোটা হতে চান তবে অন্য ধরনের ট্যাবলেট সেবন করতে পারেন।

জিংক বি ট্যাবলেট খাওয়ার উপকারিতা

শিশুদের ও বয়স্কদের স্নায়ু এবং শারীরিক গঠন সুগঠিত করতে এবং সুগঠিত লোহিত রক্ত কণিকা তৈরীতে জিংক বি ট্যাবলেট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। ভিটামিন এর পাশাপাশি শরীরের জিংক এর অভাব পূরণের মাধ্যমে শারীরিক ও মানসিক দুর্বলতা দূর করা সহ ভিটামিন বি এবং জিংক এর অভাবে দেখা দেয়া সকল ধরনের রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে জিংক বি ট্যাবলেট।

সুতরাং, যদি আপনি মনে করেন যে, খাবারে অরুচি বা ক্ষুধামন্দা কিংবা স্নায়ুবিক দুর্বলতা জনিত কারণে দিন দিন আপনার ওজন কমে যাচ্ছে অথবা শরীরে ঘন ঘন ইনফেকশন এবং চর্মরোগ দেখা দেয় তাহলে একজন চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী জিংক বি ট্যাবলেট খেতে পারেন।

আরো পড়ুন: ভিটামিন ই ক্যাপসুল কোনটা ভালো

জিংক বি ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

এখন আমরা জিংক বি ট্যাবলেট খাওয়ার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে বলব। যারা প্রাপ্তবয়স্ক আছেন এবং ওজন কমপক্ষে ৩০ কেজির বেশি তাদের ১ টি করে ট্যাবলেট দিনে ২ থেকে ৩ বার খাবার পরামর্শ একজন ডাক্তার দিয়ে থাকেন। এবং যাদের জিংক এবং ভিটামিং বি কমপ্লেক্স এর প্রতি সংবেদনশীল রয়েছে তাদের তাদের ক্ষেত্রে এই জিংক বি ট্যাবলেট প্রতি নির্দেশিত। এছাড়া ট্রেট্রাসাইক্লিন এর গ্রুপ ঔষধ সেবন করলে সাথে এই এই জিংক বি ঔষধ টি সেবন করা যাবে না।

তাছাড়া জিংক বি ঔষধ টি খুবি সুসহনীয়। তাছাড়া এই ঔষধটির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই বললেই চলে। তবে কারো কারো, সবার ক্ষেত্রে না, বমি বমি ভাব, ডায়রিয়া বা পাকস্থলীর সমস্যা হতে পারে। এগুলাে সাময়িক মারাত্মক নয়। তবে কোনো সমস্যা যদি আপনার কাছে তীব্র মনে হয় তবে একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আর গর্ভাবস্থায় এবং স্তনদান কালেও এই জিংক বি ট্যাবলেট সেবন করা যাবে। আপনার শরীরকে আরও রোগমুক্ত ও ফিট রাখতে জিংক বি ট্যাবলেট খেতে পারেন। অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী। কারণ ডাক্তার আপনাকে আপনার শারীরিক অবস্থা বুঝে কি মাত্রায় আপনার শরীর জিংক প্রয়োজন তাঁর সঠিক ডোজ নির্ধারণ করে দিতে পারবেন।

আরো পড়ুন: টেস্টোস্টেরন হরমোন বৃদ্ধির ট্যাবলেট

জিংক বি ট্যাবলেট এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

জিংক বি ট্যাবলেট টি সাধারণত সুসহনীয়। নির্দিষ্ট ভিটামিনের ক্ষেত্রে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া উল্লেখ করা থাকলেও সেগুলো সাধারণত: নির্দেশিত মাত্রা থেকে বেশী মাত্রায় ঘটে। তেমনি কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিম্নরুপঃ

  • বমি বমি ভাব
  • বমি
  • পেট খারাপ
  • ডায়রিয়া
  • মাথা ব্যাথা
  • পাকস্থলীর সমস্যা

জিংক বি ট্যাবলেট এর দাম কত

জিংক বি ট্যাবলেট এর প্রতি পিসের দাম ৩.৫০ টাকা। এবং সম্পূর্ণ পট এর দাম ১০৫ টাকা মাত্র। অনেক সময়য় এটি ৯৫ টাকাতে কিনতে পাওয়া যায়। এটি আপনার কাছের যেকোন ফার্মেসি থেকে কিনতে পারবেন। ঔষধ ক্রয় করার আগে এর উৎপাদন তারিখ এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ তারিখ দেখে নিবেন। এই ট্যাবলেট আলো থেকে দূরে ঠান্ডা ও শুষ্ক স্থানে রাখুন। সকল প্রকার ঔষধ শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

জিংক বি ট্যাবলেট সম্পর্কে আজকে ছিল এই পর্যন্তই। এর সম্পর্কে আপনার যদি আরো কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আমাকে কমেন্টস করে জানাতে পারেন। আমি আপনার প্রশ্নের উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো। আর আমাদের আজকের এই জিংক বি ট্যাবলেট খেলে কি মোটা হয় লেখাটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করতে ভুলবেন না। আজ এই পর্যন্তই দেখা হবে পরবর্তী কোন লেখায় সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ

ব্লগ ক্যাটাগরি:

এখানে আপনার মতামত জানান

0মন্তব্যসমূহ

আপনার মন্তব্য লিখুন (0)

#buttons=(ঠিক আছে, ধন্যবাদ) #days=(20)

টেকনিক্যাল কেয়ার বিডি তে আপনাকে স্বাগতম. ❤️
Ok, Go it!