আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা

আপেল সিডার ভিনেগার একটি জনপ্রিয় ঘরোয়া প্রতিকার। এটি বহু শতাব্দী ধরে রান্না এবং ওষুধে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আপেল সিডার ভিনেগার এর উপকারিতা রয়েছে অনেক এবং যা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। এর মধ্যে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এর বৈশিষ্ট্য রয়েছে। শুধু তাই নয়, আপেল সিডার ভিনেগার ওজন কমাতে, কোলেস্টেরল কমাতে, রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতে এবং ডায়াবেটিস কমাতে খুবই উপকারী ভূমিকা পালন করে।

স্লিমিংয়ের জন্য ডায়েটে আপেল সিডার ভিনেগার খুবই উপকারী। আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার চর্বি কমানোর জন্য উপযুক্ত। গরম পানিতে এক চামচ আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার মিশিয়ে পান করলে যে উপকার পাওয়া যায়। অনেক ডায়েট খাবারেও সেই উপকার নেই। আজকের পোস্টে আমরা আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। চলুন দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা।

(toc) #title=(সুচিপত্র)

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা

ওজন কমাতে এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা বলে শেষ করা যাবে না। চলুন আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেই।

  • ওজন কমিয়ে BMR বা বেসাল মেটাবলিক রেট বাড়ায়। ফলে দ্রুত শরীরের এক্সট্রা ওজন কমে যায়।
  • পেটের চর্বি কমাতে সাহায্য করে।
  • এটি ত্বককে সুন্দর করতে এবং ব্রণ কমাতে কাজ করে।
  • এটি কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।
  • এটিতে অ্যান্টি এজিং (বার্ধক্য রোধকারী) বৈশিষ্ট্য রয়েছে।
  • চুল মজবুত করে এবং চুল পড়া বন্ধ করে। চুল ঝলমলে করে।
  • পাকস্থলীর এসিডিটির সমস্যা সমাধান করতে সাহায্য করে।
  • খালি চোখে দেখা যায় না এমন খাবারের জীবাণু ধ্বংস করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
  • মাদার সাধারণত উপকারী ব্যাকটেরিয়া এবং এনজাইমগুলি সংগ্রহ করে, যেমন প্রোবায়োটিক, যা আমাদের খাদ্য কণাগুলিকে ভেঙে দিতে সাহায্য করে।
  • আপেল সিডার ভিনেগার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, বিশেষ করে টাইপ-২ ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে ইনসুলিন এর মাত্রা বাড়ায়, ফলে স্বাভাবিকভাবেই রক্তে শর্করার মাত্রা কমে যায়।

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার খাওয়ার নিয়ম

আপেল সিডার ভিনেগার আমাদের শরীর স্বাস্থ্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ডায়েটের জন্য সবচেয়ে বেশি উপকারী হল এই ভিনেগার। তবে অনেকেই এই ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম জানেন না। এই ভিনেগার খাওয়ার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো রান্নায় আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার ব্যবহার করা।

এছাড়া বাড়িতে মেয়োনিজ (মেয়োনিজ হলো ডিমের কুসুম, তেল এবং ভিনেগার বা লেবুর রসের একটি মিশ্রণ, যাতে অতিরিক্ত স্বাদের জন্য বিভিন্ন ফ্লেভারও যুক্ত করা হয়। এটির রং সাধারণত সাদা কিংবা ফ্যাকাশে হলুদ হয়ে থাকে এবং এর গঠন হালকা ক্রিম থেকে ঘন জেল পর্যন্ত হয়ে থাকে) তৈরি করার সময় এই ভিনেগার ব্যবহার করা যেতে পারে।

খালি পেটে আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার খাওয়ার নিয়মঃ এক গ্লাস উষ্ণ গরম পানিতে এক চামচ আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার মিশিয়ে খালি পেটে খেয়ে নিন। অথবা সালাদের সাথে এক চামচ আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার মিশিয়ে খালি পেটে সালাত খেয়ে নিন।

আরো পড়ুনঃ কাতিলা গাম ও তালমাখনা খাওয়ার নিয়ম

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর দাম কত

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর অসাধারণ স্বাস্থ্য উপকারিতার জন্য সকল শ্রেণীর মানুষের জীবনে জায়গা করে নিয়েছে। একটি বর্তমান সময়ে চর্বি, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, গ্যাস্ট্রিক ইত্যাদি নানা রোগের ওষুধ। আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর দাম

  • অর্গানিক আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার ৪৭৩ মিলি ৯৫০ টাকা
  • অর্গানিক আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার ৯৪৬ মিলি ১,৫৫০ টাকা

আপেল সিডার ভিনেগার কোনটা ভালো

বাজারে বিভিন্ন ধরনের আপেল সিডার ভিনেগার পাওয়া যায় যেমন আনপাস্তুরাইজড, কোল্ড কমপ্রেসড, অপরিশোধিত, স্বাদযুক্ত ইত্যাদি।

আনপাস্টুরাইজড আপেল সিডার ভিনেগার - নাম অনুসারে এই ভিনেগার সঠিকভাবে প্রস্তুত করা হয় না। অর্থাৎ এই ভিনেগারের মধ্যে ব্যাকটেরিয়া এবং অন্যান্য জীবাণু থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

কোল্ড কমপ্রেসড ভিনেগার - ঠান্ডা আপেলের রস দিয়ে এই ভিনেগার তৈরি। এতে ফলের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয় না। এটি অন্যান্য ভিনেগার এর তুলনায় অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর।

আনফিল্টারড আপেল সিডার ভিনেগার - এটি আপেল সিডার ভিনেগারের আসল রূপ কারণ এটি একটি প্রাকৃতিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তৈরি করা হয়। ফিল্টার না করা আপেল সিডার ভিনেগার কেনাই ভালো। এটি গাঢ় রঙের। এটিকে স্বাস্থ্যের জন্য খুব ভালো বলে বলে মনে করা হয়।

আরো পড়ুনঃ কাজু বাদাম খাওয়ার নিয়ম ও উপকারিতা

আপেল সিডার ভিনেগার কেনার ক্ষেত্রে কোন জিনিস লক্ষ্য করতে হবে

১। রংঃ আপেল সিডার ভিনেগার হলুদ থেকে কমলা রঙের হতে পারে। ভিনেগারের রঙ আপেলের খোসার রঙের উপর নির্ভর করে। আপেলের রং ফ্যাকাশে গোলাপি হলে ভিনেগার হলুদ হবে, গাঢ় লাল আপেল থেকে ভিনেগার তৈরি করলে ভিনেগার গাঢ় হবে। কিছু ব্র্যান্ড ব্লিচ করা আপেল সিডার ভিনেগার বিক্রি করে যা বর্ণহীন বা সাদা রঙের।

২। এসিডিটিঃ আপেল সিডার ভিনেগার কেনার আগে বোতলের গায়ের লেবেলটি পড়ুন। লেবেলটি এসিডিটি স্তরের বর্ণনা করবে। ৫% এসিডযুক্ত ভিনেগার সবচেয়ে ভাল কাজ করে। বোতলের গায়ের লেবেলের নির্দেশাবলী অনুসরণ করুন এবং সেই অনুযায়ী সংরক্ষণ করুন।

আপেল সিডার ভিনেগার এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

আপেল সিডার ভিনেগারের দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহার শরীরে পটাসিয়ামের ঘাটতি, হাড় ক্ষয়, অস্টিওপরোসিসের ঝুঁকি, দাঁতের এনামেল ক্ষয় সহ অভ্যন্তরীণ ক্ষতির কারণ হতে পারে। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কখনই এটি ব্যবহার করা উচিত নয়। এটা সত্য যে আপেল সিডার ভিনেগার হজমশক্তির উন্নতি ঘটায়। কিন্তু যাদের আলসার বা এসিডির সমস্যা আছে তাদের এটি এড়িয়ে চলা উচিত।

অনেকেই মনে করেন শুধুমাত্র অ্যাপেল সিডার ভিনেগার পান করলেই ওজন কমানো সম্ভব। হ্যাঁ, আপেল সিডার ভিনেগার শরীরের চর্বি কমিয়ে অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে, কিন্তু আপনাকে পর্যাপ্ত শারীরিক ব্যায়াম করতে হবে এবং একটি সুষম খাদ্যের তালিকা অনুসরণ করতে হবে। ত্বকের সংক্রমণ প্রতিরোধে অনেকেই এই ভিনেগার ব্যবহার করেন, এক্ষেত্রেও সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত, যাতে ত্বকে জ্বালাপোড়া না হয়।

আরো পড়ুনঃ কাতিলা গামের উপকারিতা - কাতিলা গাম এর উপকারিতা

বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্নের উত্তর

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার কি?

যখন আপেল সিডার ভিনেগার প্রস্তুত করা হয় তখন প্রস্তুতির ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়া বাড়ানো হয়। তখন বেশ কিছু উপকারী এনজাইম, ইস্ট, অ্যাসিটিক অ্যাসিড, ব্যাকটেরিয়া থেকে যায়। এই উপকারী উপাদান গুলোকে সম্মিলিতভাবে "মাদার" বলা হয়। আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার তুলনামূলক ভাবে ঘন দেখায়।

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা

এই ভিনেগার ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার লিভারের সমস্যা প্রতিরোধেও কাজ করে। এছাড়াও এটি ডায়াবেটিস, ক্যান্সার, হার্টের সমস্যা, ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা নিয়ে সর্বশেষ

আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার একটি প্রাকৃতিক অ্যাসিড। এটি খেলে আপনি আপনার অ্যাসিডিটি, গ্যাস, গ্যাস্ট্রিক, পেট ফাঁপা ইত্যাদি সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন এবং অ্যান্টাসিড জাতীয় ওষুধও আপনাকে খেতে হবে না। এটি খাওয়ার কিছু নিয়ম রয়েছে। অবশ্যই এই নিয়ম মেনে চলতে হবে এবং অতিরিক্ত খাওয়া যাবে না।

স্বাস্থ্য রক্ষায় আপেল সিডার ভিনেগার এর গুনাগুন বলে শেষ করা যাবে না। এটি সামান্য গ্যাস্ট্রিকের সমস্যার সমাধান থেকে শুরু করে মরণব্যাধি ক্যান্সার এর ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে। আমরা আমাদের আজকের পোস্টে আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার এর উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করেছি। আশা করি আমাদের পোস্টটি আপনাদের ভালো লাগবে। এরকম আরো নতুন নতুন বিষয় জানতে আমাদের ওয়েবসাইটের চোখ রাখুন।

পোষ্ট ক্যাটাগরি: