Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/01/passport-number-diye-passport-check.html

পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট চেক

পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট চেক - পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম — নিজের দেশের নাগরিকত্বের পরিচয়ের মূল দলিল হিসেবে যেমন রয়েছে জাতীয় পরিচয়পত্র। ঠিক তেমনি ভাবে বহির্বিশ্বে নিজের পরিচয় প্রকাশের মাধ্যম হচ্ছে সেই দেশের পাসপোর্ট। বিভিন্ন দেশে ভ্রমণ অথবা নিজের দেশকে রিপ্রেজেন্ট করার জন্য বহির্বিশ্বে গমন, চিকিৎসা ক্ষেত্রে, ডক্টরেট বা পিএইচডি করার জন্য।

পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট চেক

অথবা উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য বিদেশ যাত্রা, ব্যবসার প্রসার ঘটানোর জন্য ভিন্ন দেশি পণ্য আনয়ন করতে হলে কখনো নিজেকে ই যাচাই বাছাই করে দেখে আনতে হয়, আরো অনেক বিশেষ কারণে দেশের বাহিরে অবস্থান করার জন্য পাসপোর্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। প্রতিটি নাগরিকের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে পাসপোর্ট। পৃথিবীর যেকোন দেশে বৈধভাবে ঢোকার জন্য অত্যন্ত জরুরী ভিত্তি হচ্ছে এটি এবং পাসপোর্টের কোন বিকল্প পদ্ধতি বা রাস্তা নেই।

পাসপোর্ট: একজন সচেতন নাগরিকের বৈধভাবে বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে যাওয়ার জন্য প্রথম যে জিনিসের প্রয়োজন হয় তা হচ্ছে পাসপোর্ট। ২০১৯ সাল পর্যন্ত হাতে লেখা পাসপোর্ট গ্রহণ করা হতো কারণ আগে হাতে লেখা পাসপোর্ট এর প্রচলন ছিল। তবে বর্তমানে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট ব্যবহৃত করা হচ্ছে। হাতে লেখা পাসপোর্ট নবায়ন করার মাধ্যমে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট-এর রূপান্তর করা হয়েছে। 

আরো পড়ুনঃ পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম ২০২১ | অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম

জলছাপের সাহায্যে ছবির নিচে লুকানো থাকে আবেদনকারীর ব্যক্তিগত তথ্য। মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট শুধুমাত্র মেশিন দিয়ে রিড করা সম্ভব এতে ব্যক্তিগত তথ্য নিরাপদ থাকে। তবে যুগের সাথে সেই মেশিন রিডেবল পাসপোর্টে ও সংস্করণের ছোঁয়া লেগেছে। ডিজিটালাইজেশনের যুগে চালু হয়েছে ই-পাসপোর্ট। আগে পাসপোর্ট আবেদন করা বা রিনিউ করা অনেক ঝামেলার বিষয় ছিল। 

বিশেষ করে দালালদের খপ্পরে পড়ে অনেক ঝামেলা পোহাতে হতো ভুলত্রুটি তো দেখা দিতই। সামান্য ভুলত্রুটির জন্য অনেক অসুবিধায় পড়তে হতো সাধারণ জনগণকে। সাধারণত সাত থেকে একুশ দিন সময় লাগে পাসপোর্ট আবেদন করার পর হাতে পেতে। এর মধ্যে একে পেরিয়ে আসতে হয় অনেক ধাপ এর মধ্য দিয়ে। 

পাসপোর্টের জন্য পুলিশ ভেরিফিকেশন কখন হবে, প্রিন্টিং হয়েছে কিনা, নাম ঠিকানা বা অন্যান্য তথ্য ঠিক হলো না ভুল, কখন পাওয়া যাবে তা নিয়ে অসামঞ্জস্যতায় ভুগতে হয়। কিন্তু ই-পাসপোর্ট পোর্টাল সিস্টেম চেকের মাধ্যমে এখন তা অনেক সহজ ও ঝামেলা মুক্ত। অনলাইনে ই-পাসপোর্ট ট্রাকিং সিস্টেম এর মাধ্যমে অনায়াসেই নিজের পাসপোর্ট সম্বলিত সব কিছুর ব্যাপারে খোঁজ নেয়া সম্ভব হয়।

বর্তমানে জাতীয় পরিচয়পত্রের সাথে মিল রেখে ই-পাসপোর্ট আবেদন করা হয়, তাই ই-পাসপোর্ট আবেদন করার আগে জাতীয় পরিচয়পত্রে কোন ভুলত্রুটি থাকলে তা সংশোধন করা অনেক জরুরী বিষয়। কারণ ই-পাসপোর্ট একবার তৈরি করা হয়ে গেলে তা সংশোধনের আর কোনো উপায় থাকছে না তাই আবেদনের আগে বা রিনিউ করার সময় সমস্ত তথ্য যাচাই করে ও নির্ভুল ভাবে দিতে হবে।

আরো পড়ুনঃ সার্টিফিকেট তোলার আবেদন | সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে করণীয়

পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট চেক — পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে চেক করার নিয়ম

মাত্র তিনটি ধাপ অনুসরণ করলে আপনি আপনার পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট এর বর্তমান অবস্থা চেক করতে পারবেন।

প্রথম ধাপ: অনলাইনের মাধ্যমে পাসপোর্ট চেক করার জন্য মোবাইল, ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ প্রয়োজন। এই ডিভাইসগুলো যেকোনো একটি ব্যবহার করে আপনি পাসপোর্টের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানতে পারবেন। প্রথমে ডিভাইসের ব্রাউজার অপশন চালু করতে হবে। এরপর ব্রাউজারে টাইপ করতে হবে www.passport.gov.bd এই লেখাটি অথবা সরাসরি উক্ত ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে এখানে ক্লিক করুন। এটি একটি পাসপোর্টের সরকারি ওয়েবসাইট। যা সম্পূর্ণ বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত যেখানে আপনার সমস্ত তথ্য ব্যক্তিগত থাকবে।

দ্বিতীয় ধাপঃ তারপর এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর আপনি অ্যাপ্লিকেশন স্ট্যাটাস (APPLICATION STATUS) চেক অপশনটি দেখতে পাবেন। এরপর এই অ্যাপ্লিকেশান স্ট্যাটাস (APPLICATION STATUS) অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।

তৃতীয় ধাপ: অ্যাপ্লিকেশান স্ট্যাটাস অপশনটিতে প্রবেশ করার পর আপনারা দেখতে পাবেন এখানে দুটি বক্স দেয়া আছে। একটি বক্স হচ্ছে অ্যাপ্লিকেশন আইডি অথবা অনলাইন রেজিস্ট্রেশন আইডির এবং অপর বক্সটি দেয়া হয়েছে জন্ম তারিখ দেয়ার জন্য। 

পাসপোর্টের জন্য আবেদন করার পরে পাসপোর্ট অফিস থেকে একটি স্লিপ দেওয়া হয়। সেই স্লিপের ঠিক উপরে পাসপোর্ট অ্যাপ্লিকেশন আইডির নাম্বার দেয়া থাকে। ওই অ্যাপ্লিকেশন আইডির নাম্বারটি অ্যাপ্লিকেশন আইডির জায়গায় দিতে হবে। জন্মতারিখ বসানোর পর ক্যাপচা কমপ্লিট করতে হবে। সঠিকভাবে সব পূরণ করার পর আপনার পাসপোর্ট সম্পর্কে আপনি অবহিত হবেন। এছাড়া আপনার পাসপোর্ট কতগুলো ধাপ পেরিয়েছে, পুলিশ ভেরিফিকেশন হয়েছে কিনা এসব কিছু জানতে পারবেন।

এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ওয়েবসাইট। যেখানে প্রতিনিয়তই কেউ না কেউ নিজের পাসপোর্ট সম্পর্কে জানার জন্য যুক্ত থাকে। তাই এটি সার্ভার ডাউন হলে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই, কিছু সময় পর আবার চেষ্টা করলেই আপনার পাসপোর্টর তথ্য আপনি জানতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ পাসপোর্ট ভুল সংশোধন করার নিয়ম ২০২২

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া