Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2022/01/choto-bacchader-jamar-design.html

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন — ছোট বাচ্চারা দেখতে যেমন সুন্দর হয় তাদের জামাগুলোও তেমন আকর্ষণীয় ও সুন্দর হয়ে থাকে। সুন্দর সুন্দর জামা পড়ানোর মাধ্যমে বাচ্চাদের আরো বেশি মায়াময়ী মনে হয়। তবে জামা শুধু আকর্ষণীয় হলে হবেনা আরামদায়ক হতে হবে। স্থান, কাল ও ঋতুভেদে বাচ্চাদের জামার তারতম্য ভিন্ন হয়ে থাকে। এছাড়া লিঙ্গ ভেদে বাচ্চাদের জামার ডিজাইন এ বিভিন্নতা থাকে। 

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন

বাচ্চাদের জামা সুন্দর, সাবলীল, আরামদায়ক ও ঢিলেঢালা হওয়া প্রয়োজন। এতে বাচ্চা স্বস্তি অনুভব করবে। অপরদিকে আটঁসাট, তীক্ষ্ণ কারু কাজ সম্পন্ন, গরমের সময় ভারী জামা ও শীতের সময় পাতলা জামা পরানো হলে বাচ্চা অস্বস্তি অনুভব করবে, এতে বাচ্চার মেজাজ খিটখিটে হয়ে যাবে, ফল স্বরুপ বাচ্চা কান্নাকাটি করবে অথবা অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে। তাই স্থান, কাল, পাত্রভেদে বাচ্চাদের জন্য সঠিক জামা নির্বাচন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। প্রিয় পাঠক চলুন তাহলে জেনে নেই ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন গুলোঃ

নবজাতকের জামার ডিজাইন

একজন নবজাতক যখন পৃথিবীতে আসে তখন সে সবচেয়ে অসহায় অবস্থায় থাকে। তার পরিপূর্ণ যত্ন এবং সব ধরনের প্রয়োজন পরিবারের সবাইকে ভালোমতো খেয়াল রেখে করতে হয়। নবজাতকের শরীর যেহেতু অনেক নরম হয়ে থাকে তাই তার জন্য প্রয়োজন শতভাগ সুতি কাপড়ের জামা। নতুন জামায় মাড় দেওয়ার কারণে একটু শক্ত ও খসখসে হয়ে থাকে তাই মাড় ধুয়ে ফেলে দিয়ে কাপড় নরম করে নবজাতকের গায়ে জড়ানো উচিত। 

নবজাতকের জন্য সুতির নিমা ব্যবহার প্রচলিত হয়ে আসছে অনেক আগের থেকে। যা পড়ানো খুব সহজ এবং নবজাতকের জন্য আরামদায়ক ও বটে। এছাড়া সুতি কাপড়ের তিন কোনা যুক্ত ন্যাপকিন ব্যবহার করা হয় নবজাতকের জন্য প্যান্ট এর বদলে। শীতে ব্যবহার করার জন্য নরম মোলায়েম মোটা কাপড় নবজাতকের জন্য ব্যবহার করতে হবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে যে যে ধরনের জামাই বাচ্চাদের পড়ানো হোক না কেন তা যেন তাদের জন্য আরামদায়ক হয়।

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন

আরো পড়ুনঃ ছোট ভাইয়ের জন্মদিনের শুভেচ্ছা

বাচ্চাদের গরমের জামা

গরমের সময় যেহেতু শরীরে বাতাস চলাচলের প্রয়োজন অনেক বেশি হয়ে থাকে তাই বাচ্চাদের জন্য সুতি জামার ব্যবহার সবার পছন্দে তালিকার শীর্ষে রয়েছে। গরমের জন্য ঘামের কারণে শরীরে ঘামাচি দেখা দেয় যা বাচ্চাদের জন্য অনেক অস্বস্তিকর। এছাড়া হালকা রঙের পোশাক শরীর ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে। 

হালকা হলুদ, হালকা গোলাপি, আকাশী, হালকা নীল ও সাদা এই ধরনের কাপড় গুলো বাচ্চাদের জন্য খুবই আরামদায়ক হয়ে থাকে। এছাড়া বাতাস চলাচলের জন্য জামাটি অবশ্যই কিছুটা ঢিলেঢালা হতে হবে। সুতি ফ্রক, ফতুয়া, সুতির প্যান্ট, এবং হাতাকাটা গেঞ্জি বাচ্চাদের জন্য অনেক আরামদায়ক পোশাক হিসেবে পরিচিত।

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন

বাচ্চাদের শীতের জামা

শীতকালীন সময় গুলোতে বাচ্চাদের প্রতি একটু আলাদাভাবে যত্ন নেয়া প্রয়োজন। ঠান্ডা আবহাওয়ার কারণে অনেক তাড়াতাড়ি তাদের ঠান্ডা লেগে যাওয়ার প্রবণতা বেশি থাকে। তাই তাদের মোটা কাপড় ব্যবহার করতে দেয়া হয়। উলের সোয়েটার, উলের পায়জামা, মাফলার, কানটুপি, মোজা ইত্যাদি শীতের জামা বাচ্চাদের পরিধান করানো হয়ে থাকে শীতের প্রকোপ থেকে রক্ষা করার জন্য। 

তুলনামূলকভাবে গরমের তুলনায় একটু ভারী কাপড় ব্যবহার করা হয়ে থাকে শীতের সময়। তবে অনেক বাচ্চারা আছে যারা শীতের ভারী কাপড় পড়ার পরও ঘেমে যায়। তাই তাদের প্রতি একটু বাড়তি সচেতনতা রাখা জরুরি যেন ঘাম থেকে আবার ঠান্ডা লেগে না যায়।

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন

আরো পড়ুনঃ লম্বা হওয়ার উপায় ও ব্যায়াম

ছেলে ও মেয়েদের জামা

ছেলে ও মেয়েদের জামার মধ্যে অনেক ধরনের ডিজাইনের ভিন্নতা রয়েছে বেশিরভাগ মেয়েদের জন্য গোলাপি এবং ছেলেদের জন্য নীল রঙের কাপড় অনেকে ব্যবহার করে থাকে। শর্ট প্যান্ট, ফুল প্যান্ট, শার্ট, ফতুয়া, গেঞ্জি ও পাঞ্জাবি রয়েছে ছেলেদের জামার জন্য। এগুলো অনেক বাহারি ডিজাইনে আজকাল পাওয়া যায় যা ছেলে বাচ্চাদের জন্য অনেক ফ্যাশনেবল ও আরামদায়ক। 

মেয়ে বাচ্চাদের জামার ভিতরে রয়েছে ফ্রক, প্যান্ট, সালোয়ার কামিজ, স্কার্ট, গেঞ্জি ইত্যাদি। বিভিন্ন রঙের বিভিন্ন ডিজাইনের বিভিন্ন কাপড়ের ওপর এই ধরনের জামাগুলো ব্যবহার করা হয় যা বাচ্চাদের জন্য আরামদায়ক ও গায়ে দেয়ার জন্য উপযোগী। 

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন
ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন

বাচ্চাদের অনুষ্ঠান এর ডিজাইনার জামা

বর্তমান সময়ে ফ্যাশন সচেতন বাবা-মায়েরা বিভিন্ন অনুষ্ঠানের সাথে সামঞ্জস্য রেখে তাদের বাচ্চাদের জামা নির্বাচন করে থাকেন। এতে বাচ্চাদের মন প্রফুল্ল ও আনন্দিত থাকে। বিবাহ জন্মদিন গায়ে হলুদ বা যে কোন অনুষ্ঠান ভেদে ভিন্ন ধরনের জামা বাচ্চাদের পড়াতে দেখা যায়। 

গাউন, পার্টি ড্রেস, রাউন্ড ফ্রক, লেহেঙ্গা, শাড়ি, টপ ও জিন্স ইত্যাদি আরো অনেক ধরনের জামা মেয়ে বাচ্চাদের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। অপরদিকে ছেলেদের জন্য ডিজাইনের পাঞ্জাবি, কোর্ট স্যুট, জিন্স প্যান্ট, কাবলি, কোটি ইত্যাদি জামা ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

ছোট বাচ্চাদের জামার ডিজাইন

বয়স অনুযায়ী বাচ্চাদের জামা নির্বাচন করা খুবই প্রয়োজনীয়। উপলক্ষ যাই হোক না কেন সেই সাথে সামঞ্জস্য রেখে পরিধান করা জামাটি অবশ্যই বাচ্চার জন্য আরামদায়ক ও স্বাস্থ্যকর হওয়া বাঞ্ছনীয়। এতে তাদের মন প্রফুল্ল থাকবে এবং সেই সুন্দর ডিজাইনার জামা টিপ পড়ে তারা উপভোগ করতে পারবে।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?