Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/11/computer-tips.html

কম্পিউটার টিপস

বর্তমান সময় হচ্ছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির যুগ। আমরা এই সময় হাতের কাছে চাইলে অনেক কিছুই পেতে পারি। আমাদের মাঝে অনেকেই আছে যারা কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ব্যবহার করেন। তাই সেই ক্ষেত্রে আমাদের সবার কম্পিউটার এই বিষয়ে অনেক কিছু জানা দরকার বা অনেক গোপন বা অজানা তথ্য আমাদের জানা দরকার। তাই বিশেষ করে যারা অফিস বা বাসায় কম্পিউটারের কাজ করেন তাদের অবশ্যই নিচের এই গুরুপ্তপূর্ণ বিষয় জানা উচিত। এগুলো আপনি বা আপনারা Windows 7, Windows 8, Windows 10 এ ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি বা আপনারা যদি নিম্নোক্ত বিষয়গুলো অনুসরণ করেন তাইলে আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপ অনেকাংশে ভালো চালাতে পারবেন।

কম্পিউটার হ্যাং আপনার যা করণীয় বা যা করবেন 

আমরা যখন বাসায় বা অফিসে কম্পিউটার চালায় তখন অনেক সময় কম্পিউটার হ্যাং বা স্লো হয়ে যায়। যার ফলে আমরা নতুন কোনো ফাইল ওপেন করতে পারিনা। তার জন্য আমরা নানা রকম কাজ করতে পারি না। যার ফলে অনেক পিছে থাকতে হয়।

কম্পিউটার হ্যাং হলে আমাদের যা করনীয়ঃ আপনাকে কম্পিউটারের কীবোর্ডের "Ctrl + Alt + Del" এক সাথে ক্লিক করতে হবে। তারপর আপনি মেনুবার (Task Manager) বা টাস্কবার দেখতে পারবেন। যেখানে দেখতে পারবেন আপনার যে ফাইল টা হ্যাং হইছে। টাস্কবার (Taskbar) থেকে সেই ফাইল টিকে রাইট বাটনে (Right Button) ক্লিক করতে হবে। তারপর আপনাকে অপশন দেখাবে সেখানে লিখা আসবে এন্ড টাস্ক অপশন সেই অপশন টিকে আপনাকে আপনার হ্যাং হয়ে থাকা অপশন টিকে ক্লোজ (Close) করতে হবে।

আপনার ফাইল বা ফোল্ডার আপনি যেভাবে সুরক্ষিত রাখবেন 

আমরা যখন কম্পিউটার ব্যবহার করি তখন কম্পিউটারে আমাদের নানা রকম ফাইল থাকে। যেসব আমাদের দরকারই ফাইল হতে পারে। অনেক সময় এই ফাইল গুলা অনেকজন তাদের পেনড্রাইভ বা অন্য কোনো ভাবে তারা তাদের মেমোরিতে নিতে পারে। এবং পরে তার অপব্যাবহার করতে পারে। আর আপনার এই ফাইল গুলো যেন অন্য কেউ ব্যবহার করতে না পারে এর জন্য আপনাকে encrypt content function ব্যবহার করতে পারেন। আপনি যখন Encrypt Content Function ব্যবহার করবেন সেইন সময় আপনার এই ফাইল গুলো কেউ নিতে পারবে না। কারন এই Encrypt content function ব্যবহার এর কারনে আপনার কম্পিউটারের ফাইল শুধু আপনার কম্পিউটার এই চালু হবে অন্য কম্পিউটার বা ল্যাপটপে চালু হবে না।

অতিরিক্ত বা অকারনে কম্পিউটার চালু

অতিরিক্ত বা অকারণে কম্পিউটার চালানো যাবে না। অকারণে কম্পিউটার চালালে কম্পিউটারের অনেক ক্ষতি হয়। যার কারনে আপনার কম্পিউটারে কোনো যন্ত্রাংশ নষ্ট হইলে আপনাকে অনেক ক্ষতির মুখে পরতে হবে। তাই অযথা কম্পিউটার চালানো উচিত নয়।

আশা করি পোস্টটি পরে আপনার ভালো লাগবে। ভালো লাগলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন এবং লাইক, শেয়ার করে অন্যজনকে দেখার সুযোগ করে দিন। 

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া