Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/06/10-Easy-Ways-to-Speed-up-Your-Internet.html

ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায় | কিভাবে মোবাইলের ইন্টারনেট স্পীড বাড়াবো

ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায় — আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করবো মোবাইলে ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়, আপনি যদি আপনার মোবাইলে ইন্টারনেটের স্লো স্পিড নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন তাহলে এই আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কারণ এখানে আমি আপনাকে বলবো যে, কিভাবে মোবাইলের ইন্টারনেট স্পীড বৃদ্ধি করবেন। তো চলুন জেনে নেই-  ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়।

বর্তমান সময়ে অনেক লোক ভালো দামী মোবাইল ফোন চালাচ্ছেন, তবুও খুব মানুষই আছেন যারা ইন্টারনেট চালানোর সময়ে ভালো গতি পেতে পারে। যাহোক, আমাদের মোবাইল ফোনে 4G (4জি) ইন্টারনেট একটি ভালো গতিতে চলার অনেকগুলো কারণ আছে। 

ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়

ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায় | মোবাইলে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধির উপায়

কখনো কখনো এটি ক্ষেত্রে দেখা যায় যে, দুটি অনুরূপ মোবাইল ফোনে একই সংস্থার সিম তবুও উভয়ের ইন্টারনেট গতির মাঝে পার্থক্য আছে। তার পিছনে অনেক গুলো কারণ থাকে যার কারণে ইন্টারনেট স্পিডের মধ্যে এই রকম পার্থক্য দেখা যায়। বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট সংযোগ অনেকগুলো মোবাইল ফোনে পাওয়া যায়। তবে হ্যাঁ উচ্চ গতির মোবাইল ইন্টারনেট সংযোগ এখনো লোকদের জন্যে একটি বড় সমস্যা। তারই কারণে আজ এই আর্টিকেলে আলোচনা করবো কিভাবে মোবাইলের ইন্টারনেট স্পীড বাড়াবো।

আজ মানুষ একই সমস্যায় জড়িয়ে পড়েছে যে তারা কীভাবে তাদের মোবাইলের ইন্টারনেট স্পিড ফাস্ট বা দ্রুত গতির করতে পারে এবং আমাদের পছন্দের মিউজিক, ভিডিও এবং চলচ্চিত্রগুলো আমাদের মোবাইল ফোনে দ্রুত ডাউনলোড করতে পারি। যদি আপনি নিজের মোবাইলে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি করতে এবং কোনো চিত্র, ভিডিও বা ফিল্ম দ্রুততার সঙ্গে ডাউনলোড করতে চান তাহলে এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আজ আমরা আপনাকে বলবো কীভাবে আপনি মোবাইলে ইন্টারনেট স্পিড বাড়াতে পারবেন।

কিভাবে মোবাইলের ইন্টারনেট স্পীড বাড়াবো

নিম্নে আপনি কিভাবে মোবাইলের ইন্টারনেট স্পিড বাড়িয়ে নিবেন এবং কি কি কাজ করার ফলে আপনার মোবাইলের ইন্টারনেটের গতি বাড়বে তার বিভিন্ন পদ্ধতি বিস্তারিত বলেছি। এই পদ্ধতিগুলো আপনি অনুসরণ করে আপনি মোবাইলের ইন্টারনেট গতি বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

ক্যাশে পরিষ্কার করুন | মোবাইলের গতি বৃদ্ধির উপায়

যখন আপনি মোবাইলের ব্রাউজারে কোনো কিছুর সার্চ করেন, তখনি সেই ওয়েবসাইট বা পেজের ঠিকানা মোবাইল ফোনের ক্যাশে মেমোরিতে জমা হতে থাকে। আর যখন এই ডেটার পরিমাণ আরো বেশি হয়ে যায় তখন এই ক্যাশ ডেটা আপনার মোবাইলের ইন্টারনেট গতির উপরে প্রভাব ফেলে এবং ধীরে-ধীরে আপনার মোবাইল ইন্টারনেটের গতি কমে যায়। তাই আপনার মোবাইল ফোন থেকে কিছু সময় পর পর ক্যাশে মেমোরি ডিলিট করুন। এটা একটি মোবাইলের ইন্টারনেট স্পিড বাড়ানোর অন্যতম উপায়।

অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস ডিলিট করুন |  ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়

অনেকেই আছেন যারা তাদের মোবাইল ফোনে এমন সকল অ্যাপ ডাউনলোড করে রাখে যেগুলোর ব্যবহার খুব কম হয় অথবা তাদের খুব কম সময়ের জন্য ব্যবহার হয়। আপনার মোবাইল ফোনে যদি অনুরূপ অ্যাপ্লিকেশান থাকে যে অ্যাপ আপনি বর্তমানে ব্যাবহার করার প্রয়োজন হয় না অথবা সেই অ্যাপ ব্যাবহার করেন না তবে সেই সকল অ্যাপ গুলো ডিলিট বা uninstall করে দিন।

এই সকল অ্যাপ আপনি সঙ্গে সঙ্গে ডিলিট করুন অর্থাৎ আনইনস্টল করে দিন। এই কাজটি করার ফলে আপনার মোবাইল এর মেমোরিতে যায়গা বাড়বে এবং কাজ না করা আপনার মোবাইলের কুকিজ মেমোরি ক্লিয়ার হবে যা ফলে মোবাইলে ইন্টারনেট স্পিড বাড়বে।

ব্যাকগ্রাউন্ড অ্যাপ্লিকেশন বন্ধ করুন | মোবাইলে ইন্টারনেট স্পীড বেশি করার নিয়ম

আপনার মোবাইলের মধ্যে এমন কিছু অ্যাপ আছে যা আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকে। এই অ্যাপটি ইন্টারনেট ব্যবহার করে, যার ফলে ইন্টারনেটের স্পীড কমতে থাকে। ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকা অ্যাপগুলো চাইলে আপনি জানতে পারবেন যে অ্যাপগুলি সেই সময়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। অত;এব, আপনার মোবাইলের সেটিংসে গিয়ে এই জাতীয় অ্যাপগুলো বন্ধ করা উচিত, যাতে করে আপনি ইন্টারনেটের ভালো গতি পাবেন আর আপনার ডেটাও খুব কম খরচ হবে।

ডেটা ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করুন | ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়

আমরা আমাদের প্রতিদিনের কাজগুলোতে যেমন প্রয়োজন মতো করে পরিচালনা করে থাকি। ঠিক তেমনিভাবে আমরা আমাদের মোবাইল ফোনের অ্যাপ্লিকেশনগুলাের জন্যে ইন্টারনেট ডেটা পরিচালনা করতে পারি। বর্তমান সময়ে এমন অনেক অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে যেগুলো ব্যাবহার করে ডাটা ম্যানেজ করা যায়।

যে অ্যাপের সাহায্যে আপনি শনাক্ত করতে পারবেন যে মোবাইলের কোন অ্যাপগুলি আপনার ইন্টারনেট ডেটা ব্যবহার করছে। যদি কোনো অ্যাপ্লিকেশন অনেক বেশি ডেটা ব্যবহার করে তাহলে আপনি তার ডেটার ব্যবহার সীমাবদ্ধ করতে পারবেন অর্থাৎ তার ডেটা ব্যাবহার করা বন্ধ করতে পারেন। আর আপনি তাদের ইন্টারনেট ডেটা ব্যবহার বন্ধ করে দিতে পারেন।

ইন্টারনেট ব্রাউজার আপডেট করুন | ইন্টারনেটের গতি বাড়িয়ে নিন

আপনার মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট ব্যবহার করা জন্যে আপনি যেকোনো ইন্টারনেট ব্রাউজার ব্যবহার করতে পাড়েন। যদি আপনি সেই ব্রাউজারের নতুন আপডেট পেয়ে যান তাহলে সেটি দেরি না করে আপডেট করুন। কেননা আপডেট করার মাধ্যমে আপনি ব্রাউজারে নতুন সিকিউরিটি বৈশিষ্ট্যযুক্ত এমন বৈশিষ্ট্যগুলোও পাবেন যা দ্রুত ওয়েব পেজকে লোড করবে ও আপনি মোবাইলের ইন্টারনেট স্পীড বৃদ্ধি পেয়েছে তা দেখতে পাবেন।

র‌্যাম এবং ইন্টারনাল মেমরি ফ্রি করুন

মোবাইল ফোনের র‌্যাম ও অভ্যন্তরীণ মেমোরি যথাসম্ভব ফাঁকা রাখার চেষ্টা করুন। যখন কোনো মোবাইলের র‌্যাম ও অভ্যন্তরীণ মেমোরি বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে, তখন মোবাইল ফোনের গতি ও ইন্টারনেট স্পীড কমে যায়। আর যদি আপনার মোবাইল ফোন ধীরে ধীরে কাজ করে তাহলে মোবাইলে ইন্টারনেটের স্পীডও ধীরে-ধীরে কাজ করবে। তাই যথাসম্ভব আপনার মোবাইলের র‌্যাম ও ইন্টারনাল মেমোরি দুটোই ফাঁকা রাখার চেষ্টা করুন। যাতে করে আপনার মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট দুটোই ভালোভাবে চলতে পারে। ফোনে ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়

অ্যাড-ব্লকার (Ad-Block) ব্যবহার করুন | মোবাইলে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধির উপায়

মোবাইল ফোনের মধ্যে ইন্টারনেট স্পিড বাড়ানোর জন্য অন্যতম উপায় হচ্ছে অ্যাড-ব্লকার ইউজ করা। আপনি প্রায়শই লক্ষ্য করে দেখে থাকবেন যে আপনি যখনি ইন্টারনেটে কোন কিছু অনুসন্ধান করবেন, তখন সেখানে আপনাকে কিছু ছবি বা ভিডিও আকারে কোনো কিছুর অ্যাড বা বিজ্ঞাপন দেখতে পারবেন। এই জাতীয় বিজ্ঞাপনগুলো আপনার মোবাইলের ইন্টারনেট ডেটাকে ব্যবহার করে, যা লোড হওয়ার কারণে ইন্টারনেটের গতিতে কিছুটা প্রভাব পড়ে। ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়

যদি আপনি আপনার মোবাইল ফোনে অ্যাড-ব্লকার ইউজ করেন তাহলে ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় আপনি আপনার মোবাইলে কোন বিজ্ঞাপন দেখতে পারবেন না আর আপনি একটি পরিষ্কার ও দ্রুত ইন্টারনেট স্পীড চালানোর অভিজ্ঞতা পাবেন।

মোবাইলে দ্রুত ব্রাউজার ব্যবহার করুন

কিছু কিছু ওয়েব পেজ আছে যেগুলো খুবই উচ্চ আকারের অর্থাৎ বেশি এমবি (মেগাবাইট) যুক্ত। আর তাই সেই ওয়েব পেজ গুলো লোড হতে অনেকবেশি সময় নেয়। এমন পরিস্থিতিতে আপনি সেই সকল ওয়েব ব্রাউজারগুলো ব্যবহার করতে পারেন যেগুলো ওয়েব পেজ লোড হওয়ার জন্যে ফাস্ট কাজ করে, যে সকল ব্রাউজার কেবল মাত্র আপনার ইন্টারনেট ডেটা সংরক্ষণ করেনা, পাশাপাশি ওয়েব পেজ তারাতারি লোড হওয়ার ফলে গতিও ভালো প্রদান করে। বর্তমানে এই রকম ওয়েব ব্রাউজারগুলো পাওয়া যায় যেগুলো ওয়েব পেজের সংকোচনের মাধ্যমে আপনার ইন্টারনেটের স্পিডকে দ্রুততর করতে সাহায্য করে।

নেটওয়ার্ক ভালোভাবে সিলেক্ট করুন |  ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানোর উপায়

যদি আমরা শহরের বাইরে কোথাও যখন ভ্রমণ করে থাকি, তখন আমাদের মোবাইল ফোনে নেটওয়ার্ক সিগন্যাল ৪জি থেকে ৩জি ও ৩জি থেকে ২জি পর্যন্ত পরিবর্তিত হয়ে থাকে। নেটওয়ার্ক সিগন্যাল চেঞ্জ করা ইন্টারনেটের স্পীডকে প্রভাবিত করে। সুতরাং আপনি যখন যে জায়গাতে শক্তিশালী সিগন্যাল পাচ্ছেন, আপনি তখন সেটি নির্বাচন করুন। এইভাবে, আপনার মোবাইল ফোন অন্য কোনো সিগন্যাল সার্চ করবে না এবং আপনার মোবাইলে ইন্টারনেট স্পীড একই চলবে।

শেষ কথা

তোহ বন্ধুরা আঁশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে, এই পোস্ট আমরা আপনাকে জানিয়েছি যে, কিভাবে মোবাইলের ইন্টারনেট স্পীড বাড়ানো যায় এবং সেটি কোনো সমস্যা ছাড়াই দ্রুত গতির ইন্টারনেট স্পীড উপভোগ করা যায়। কোনো ঝামেলা ছাড়াই কীভাবে আপনার মোবাইলের হাই স্পিড ইন্টারনেট উপভোগ করা যায়, আমরা আজকের আর্টিকেলে শিখেছি। আঁশ করি বিষয়টি আপনি বুঝতেও পেরেছেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া