Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2020/10/best-5-antivirus-software-of-2020.html

Best 5 Antivirus Software Of 2020 windows 10

সেরা ৬ টি অ্যান্টিভাইরাস ২০২০ (Best 6 Antivirus 2020)
আমরা অনেক এই কম্পিউটার চালায় কিন্ত ভাইরাস এর নাম বা অ্যান্টিভাইরাস এর নাম শুনি নাই এমন কেউ খুজে পাওয়া যাবে না। আমরা সাধারণত কম্পিউটারে অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করে থাকি কম্পিউটার এর সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য। তাই আমরা অনেক সময় অ্যান্টিভাইরাস ফ্রী এবং পেইড ভার্সন ব্যবহার করি। ফ্রী এবং পেইড অ্যান্টিভাইরাস এর কি কি সুবিধা এবং অসুবিধা আছে।

ফ্রী জিনিস অনেক সময় ভালো হয় ,আবার অনেক সময় ভালো হয়। এই কথা টি বেশি ব্যবহার করা হয় কম্পিউটার সফটওয়্যারে অ্যান্টিভাইরাস এর ক্ষেত্রে।অ্যান্টিভাইরাস নিয়ে যাদের মনে অনেক চিন্তা ভাবনা। তাহলে তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট টি। চলুন তাহলে দেখে নিয়া যাক সেরা ৫ টি অ্যান্টিভাইরাস গুলি ; 

যারা নিজেদের কম্পিউটার কে সুরক্ষা রাখতে চান তাহলে অবশ্যই অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করা উচিত। কম্পিউটার এর ভাইরাস, ম্যালওয়্যার ও স্পাইওয়্যার সহ সকল প্রকার ভাইরাস এর হাত থেকে কম্পিউটার কে ১০০% সুরক্ষা দেয়ার জন্য অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করা হয়। যদি আপনি অ্যান্টিভাইরাস প্রিমিয়াম ফিচার উপভোগ করতে চান তাহলে আপনি নিচের অ্যান্টিভাইরাস গুলা ব্যবহার করতে পারেন।

 তো এখন কথা হল ব্যবহার যখন করবেন সেরা টাই করেন। আবার অনেক এর মনে প্রশ্ন আসতে পারে যে ফ্রি অ্যান্টিভাইরাস এবং পেইড অ্যান্টিভাইরাস মাঝে পার্থক্য কি। তো আপনি ভাবুন একটি অ্যান্টিভাইরাস ফ্রি ডাউনলোড করতে পারবেন আর একটি ডাউনলোড করতে টাকা লাগবে। এখন পার্থক্য হল ফ্রি তে যে ফিচার গুলি থাকবে পেইড ভার্সন এ তার থেকে অনেক বেশি ফিচার থাকবে। 

তবে এখন কথা হচ্ছে আপনি যদি কোন অফিসিয়াল কাজ না করেন বা অফলাইন এ কাজ করেন তাহলে আপনাকে ফ্রি অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করলেই হবে। কিন্ত আপনি যদি অনলাইন এ কাজ করেন বা অফিসিয়াল কাজ করেন। সেখান এ কম্পিউটার এ নানা রকম তথ্য থাকে সেখান শুধু ভাইরাস থাকবে তা না এমন কি সেই কম্পিউটার থেকে অনেক রকম ডাটা চুরি হয়ে যেতে পারে। তাই জন্য আপনাকে কাজের ওপর ভিত্তি করে আপনাকে অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করা উচিত। 

আপনি ফ্রি অ্যান্টিভাইরাস এ যে সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকেন আর যদি টাকা দিয়ে কিনে অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করেন তাহলে ফ্রি এর থেকে অনেক বেশি ফিচার পেয়ে থাকবেন। পেইড অ্যান্টিভাইরাস আপনার কম্পিউটার কে ১০০% সুরক্ষা দিবে সেই সঙ্গে কম্পিউটার ভাইরাস প্রটেকশন, শক্তিশালী ফায়ারওয়াল,পাসওয়ার্ড ম্যানেজার, প্রিমিয়াম ভিপিএন সহ আর নানা রকম ফিচার থাকে পেইড অ্যান্টিভাইরাসে। 

এখন আপনার কম্পিউটার এর জন্য সেরা একটি অ্যান্টিভাইরাস করতে ইচ্ছুক। কিন্ত ভেবে পাচ্ছেন না যে কোন অ্যান্টিভাইরাস টি আপনার কম্পিউটার এর জন্য ভালো হয়। তো আমরা আপনাকে জানাব যে কোন অ্যান্টিভাইরাস আপনার পিসি এর জন্য সবচেয়ে ভালো। আমরা এখন আপনাকে যে অ্যান্টিভাইরাস দেখাব যে সব ব্যবহার করার ফলে শুধু ভাইরাস না ,হ্যাকার দের হাত থেকে আপনার কম্পিউটার কে সুরক্ষা দিবে। 

তো আপনি যদি কোন নিদিষ্ট কোন অ্যান্টিভাইরাস এর ব্যবহার বিষয় এ সিদ্ধান্ত নিতে না পারেন তাহলে আপনি আমাদের পোস্ট এর নিচের অংশ পরলে জানতে পারবেন বুঝতে পারবেন যে আপনি কোন অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করবেন। আর জানতে পারবেন ২০২০ সালের সেরা অ্যান্টিভাইরাস এর নাম সমূহ ;
Best Antivirus Bitdefender Antivirus
প্রিমিয়াম অ্যান্টিভাইরাস এর প্রথমে তালিকায় নাম আছে এর বিটডিফেনডার Bitdefender অ্যান্টিভাইরাস এর নাম। বিটডিফেনডার আর ও সুরক্ষা ও সাইবারসিকিউরিটি এর জন্য সব অ্যান্টিভাইরাস এর শীর্ষে রয়েছে ২০২০ সালে। অনেক বড় বড় কোম্পানি এই বিটডিফেনডার অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করে থাকেন। এই অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করার জন্য আপনাকে পেইড করতে হবে ৮৯.৯৯ ডলার। কিন্ত তা বর্তমান এ ৬০% ডিসকাউন্ট দেয়ায় এই অ্যান্টিভাইরাস এর মূল্য দারায় ৩৫.৯৯ ডলার। বাংলাদেশি টাকা দারায় ২৯০০টাকা সমান। 

 এই অ্যান্টিভাইরাস আপনার কম্পিউটার এর সকল প্রকার সুরক্ষা নিচ্চিত করবে। উইন্ডোজ (Windows) , ম্যাকওএস ( macOS) , এন্ড্রয়েড (Android ) , এবং আইওএস ( IOS) এর সম্পূর্ণ সুরক্ষা দেয়ার জন্য এবং নানা রকম ম্যালওয়ার বন্ধ করার জন্য এবং হ্যাকার দের হাত থেকে তথ্য সুরক্ষা রাখতে এমনকি ফাইল গুলকে সুরক্ষিত রাখবে এই অ্যান্টিভাইরাস টি। আপনার কম্পিউটার কে অনলাইন গোপন করতে আছে এই অ্যান্টিভাইরাস এ ভিপিএন সুবিধা। এই অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করে আপনি পাবেন কম্পিউটার এ দারুন পারফরম্যান্স।  তাই আপনার সুবিধার্থে এই বিটডিফেনডার Bitdefender অ্যান্টিভাইরাস কিনতে পারেন। 


NortonLifeLock Antivirus
 এই অ্যান্টিভাইরাস টি পেইড হলেও বাংলদেশ এ অনেক এই এটি ব্যবহার করছেন। এই অ্যান্টিভাইরাস টির ফুল স্কানিং একটু ধির গতির। তবে এই অ্যান্টিভাইরাস এর পেমেন্ট অপশন চার রকমের। আপনি আপনার বাজেটের ওপর ভিত্তি করে এই নরটন অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করতে পারেন। তবে এটির দাম একটু চড়া মুল্যের। আপনি চাইলে এটি ব্যবহার করতে পারেন। আর যদি আপনি আসুস এর মাদারবোড ব্যবহার করেন তাহলে সেখান ফ্রী তে নরটন অ্যান্টিভাইরাস দেয়া থাকবে। সেটি ব্যবহার করতে পারেন। 


#McAfee Antivirus

এই অ্যান্টিভাইরাস টি কম খরচ এ ভালো পারফরম্যান্স দিয়ে থাকে। আপনার বাসার উইন্ডোজ , এন্ড্রয়েড এবং আইওএস সুরক্ষা করতে চান কম খরচে তাহলে আমি বলব আপনি এই অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করেন। এটির দারা আপনি শুধু মাত্র একটি সিঙ্গেল সাবস্ক্রিপশন দারা বাড়ির সকল উইন্ডোজ , এন্ড্রয়েড এবং আইওএস ইত্যাদি ডিভাইস সমূহ কে সুরক্ষা রাখতে পারবেন। এর দারা আপনার ব্রাউজিং সেফ রাখতে পারবেন। 
McAfee Antivirus


BullGuard Antivirus
এই অ্যান্টিভাইরাস টি প্রায় ১৮ বছর ধরে নেতৃত্ব দিয়ে আসছে। এই অ্যান্টিভাইরাস আপনি কম দামে ব্যবহার করতে পারবেন। অনন্যা অ্যান্টিভাইরাস এর মতো এটা তে নানা রকম ফিচার রয়েছে। যা আপনার কম্পিউটার কে নানা রকম ভাইরাস ,ম্যালওয়ার , হ্যাকার দের হাত থেকে সুরক্ষা দিবে। এই ভাইরাস এর তিনটি ধাপ রয়েছে। যেমন Basic , Total , Pro। 

Basic :অ্যান্টিভাইরাস এটি বর্তমান এ ২০% ডিসকাউন্ট এ ২৩ ডলার দিয়ে কিনে ১ বছর এর জন্য একটি ডিভাইস এ ব্যবহার করতে পারবেন। 
Total : এটি হচ্ছে ইন্টারনেট সিকিউরিটি কাজ করে। এই সফটওয়্যারে টি আপনি এক বছর এর জন্য ৩ টি ডিভাইস এ ব্যবহার করতে পারবেন। তার জন্য আপনাকে খরচ করতে বর্তমান বাজারে ৫০ % ছাড়ে ২৯.৯৯ ডলার খরচ করে। 
Premium Protection :এই সফটওয়্যার টি আপনার কম্পিউটার এর জন্য বেস্ট প্রটেকশন। এই সফটওয়্যারে দিয়ে আপনি ৫ টি কাজ ভালো ভাবে করতে পারবেন।এটির বর্তমান মূল্য ৬০% ছাড়ে ৪০ ডলার। এটি দিয়ে আপনার কম্পিউটার ভালভাবে প্রটেক দিতে পারবে। আপনি চাইলে এটি নিতে পারেন। 

Kaspersky lab Antivirus 
 এই অ্যান্টিভাইরাস এর সকল ল্যাব এর পারফেক্ট সেক্টর এ আছে এই ক্যাস্পারেস্কি অ্যান্টিভাইরাস। এই অ্যান্টিভাইরাস টি অনন্যা সকল অ্যান্টিভাইরাস থেকে সেরা। বলতে হয় আপনার উইন্ডোজ পিসির জন্য এটি সেরা অ্যান্টিভাইরাস। এটি অ্যান্টিভাইরাস সকল ক্ষেত্রে phisnig protection ,malwere-blocking ইত্যাদি সহ বোনাস স্ক্যান সহ কাস্টমার সাপোর্ট সহ সকল সেক্টর থেকে অনন্যা অ্যান্টিভাইরাস থেকে এটি এগিয়ে আছে। অনন্যা পেইড অ্যান্টিভাইরাস এর থেকে এটি অনেক এগিয়ে। 

এই অ্যান্টিভাইরাস টি প্রথম স্থান এ আছে। এই অ্যান্টিভাইরাস টি তুলনামুলক দুর্বল কম্পিউটার এ বা কম শক্তিশালী পিসি তে একটু বোঝা হয়ে দারাবে। কেননা এই অ্যান্টিভাইরাস টি CPU সোর্স ব্যবহার করে থাকে। আর যদি কম্পিউটার এর র‍্যাম ৪ জিবি এর নিচে হয়ে থাকে তাহলে কম্পিউটার টিকে এই অ্যান্টিভাইরাস স্লও করে দিতে পারে। এটির দামের এর কারনে অনেক এই ব্যবহার করতে চান না। তবে আপনার হাই সিকিউরিটির জন্য আপনি এই ক্যাস্পারেস্কি অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করতে পারেন। 
Kaspersky Antivirus

TotalAV Antivirus
এই অ্যান্টিভাইরাস টি বর্তমান এ সবার প্রথমে আছে। totalav অ্যান্টিভাইরাস টি প্রায় ১০ মিলিয়ন লোক ব্যবহার করে থাকে। এই অ্যান্টিভাইরাস আপনার কম্পিউটার এ ভাইরাস গুলা ডিলিট করে কম্পিউটার কে রাখে সুরক্ষা। এছাড়া আপনাকে এবং আপনার অনলাইন থেকে লুকিয়ে রাখার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে ভিপিএন। এই অ্যান্টিভাইরাস আপনার সকল তথ্য কে ভালভাবে সিকিউরিটি দিয়ে থাকে। আপনি চাইলে এই অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করে দেখতে পারেন। 

এই অ্যান্টিভাইরাস আপনাকে প্রতিদিন ২৪ ঘন্টা সুরক্ষা রাখবে যা বছর এ ৩৬৫ দিন। অবাঞ্চিত এবং বিপদজনক ওয়েবসাইট থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখার জন্য মোট AV অনলাইন সুরক্ষা ব্যবহার করুন। আপনি এই টোটাল এভি totalav অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করে আপনার কম্পিউটার কে সুরক্ষা দিতে পারেন। 

তো আমার কাছে এই ছিল ২০২০সালের সেরা ৫ টি অ্যান্টিভাইরাস। আশা করি পোস্ট পরে আপনি কোন পেইড অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করবেন তা আপনি নিজেই নির্ধারণ করতে পারবেন। আর কোন অ্যান্টিভাইরাস আপনার কাছে ভালো লেগেছে তা কমেন্ট করে জানাবেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া