Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2021/08/ways-to-survive-lightning-strikes.html

বজ্রপাত থেকে বাঁচার উপায় | বজ্রপাত থেকে বাঁচতে করণীয়

বজ্রপাত থেকে বাঁচার উপায় | বজ্রপাত থেকে বাঁচতে করণীয় — সম্প্রতি সময়ে দেখা যাচ্ছে বজ্রপাতের কারণে অনেক বেশি প্রাণহানির মতো ঘটনা ঘটছে। তাই বজ্রপাত থেকে বাঁচতে আমাদের সকলের সচেতনতা অবলম্বন করার কোনো বিকল্প নাই। যদিওবা আমাদের মৃত্যু কখন কিভাবে হবে তা একমাত্র মহান আল্লাহ তায়ালা নির্ধারণ করে। আমরা শুধুমাত্র সচেতন থাকার চেষ্টা করবো তাহলে হয়তোবা আমরা এই ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেতে পারবো। চলুন জেনে নেই বজ্রপাত থেকে বাঁচতে আমাদের করণীয় গুলো কি কি—

বজ্রপাত থেকে বাঁচার উপায় | বজ্রপাত থেকে বাঁচতে করণীয়

১। আকাশে ঘনকালো মেঘের সৃষ্টি হলে বজ্রপাত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়। ৩৫ থেকে ৫০ মিনিট পর্যন্ত বজ্রপাত স্থায়ী হয়ে থাকে, এই সময়ে আমাদের সবাইকে ঘরের মধ্যে অবস্থান করাটাই শ্রেয়।

২। আকাশে ঘনকালো মেঘের দেখা দিলে জরুরি প্রয়োজন হলে রাবারের জুতো পায়ে দিয়ে বাইরে বাহির হওয়া যেতে পারে।

৩। বজ্রপাতের সময়ে খোলা স্থান, খোলা মাঠ অথবা উঁচু জায়গায় অবস্থান করবেন না।

৪। আকাশে ঘনকালো মেঘে দেখা দিলে এবং বজ্রপাতের সময়ে ধানক্ষেত অথবা খোলা মাঠে অবস্থান করলে দ্রুত হাঁটু গেড়ে বসে পড়ুন ও কানে মধ্যে আঙুল দিয়ে এবং মাথা নিচু করে বসে থাকুন।

৫। যত তারাতারি সম্ভব বিল্ডিং অর্থাৎ কংক্রিটের ছাউনির নিচে আশ্রয় নিন। টিনের ঘর থেকে যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন।

৬। বৈদ্যুতিক তার অথবা ধাতব খুঁটি, উঁচু গাছপালা, মোবাইল টাওয়ারের কাছে থেকে দূরে থাকুন

৭। বজ্রপাতের সময়ে যদি আপনি গাড়ির মাঝে অবস্থান করেন তবে গাড়ির ধাতব অংশের সাথে শরীরের কোনো অংশ সংযোগ ঘটাবেন না। সম্ভবপর হলে গাড়িটিকে নিয়ে কোনো বিল্ডিং অথবা  কংক্রিটের ছাউনিতে আশ্রয় নিন

৮। বাড়িতে অবস্থান করলে বারান্দাতে এবং জানালার কাছাকাছি জায়গায় অবস্থান করবেন না।

৯। বাড়ির দরজা-জানালা বন্ধ করুন এবং ঘরের মধ্যে বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম গুলো বন্ধ রাখুন এবং এই বৈদ্যুতিক সরঞ্জামগুলো থেকে দূরে থাকুন।

১০। স্মার্টফোন, ল্যান্ডফোন, টিভি, ল্যাপটপ, কম্পিউটার, ফ্রিজসহ সকল বৈদ্যুতিক সরঞ্জামগুলো ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন আর এই সকল সরঞ্জাম গুলো বন্ধ রাখুন।

১১। বজ্রপাতের সময় ধাতব হাতলযুক্ত ছাতাগুলোকে ব্যবহার না করাটাই উত্তম। প্রয়োজনে প্লাস্টিকের হাতলযুক্ত কিংবা কাঠের হাতলযুক্ত ছাতাগুলোকে ব্যবহার করুন।

১২। আকাশে ঘন কালো মেঘের সময় বা বজ্রপাতের আশংকা আছে এই রকম সময়ে খোলা জায়গায় বা খোলা মাঠে খেলাধুলা করা থেকে বিরত থাকুন।

১৩। বজ্রপাতের সময়ে ছাউনিবিহীন নৌকা করে মাছ ধরতে যাবেন না, তবে হ্যাঁ এই সময় নদীতে অবস্থান করলে নৌকার ছাউনির নিচে অবস্থান করুন।

১৪। বজ্রপাত এবং ঝড়ের সময়কালীন বাড়িতে থাকা ধাতব বস্তু যেমন- টিউবওয়েল, পাইপ, সিঁড়ির রেলিং ইত্যাদি সহ অনন্যা ধাতব বস্তুগুলোকে সংস্পর্শ করবেন না।

১৫। প্রত্যেকটি ভবন বাসা-বাড়ি গুলোতে বজ্র নিরোধক দণ্ড প্রতিস্থাপন করুন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া