মেয়েদের ওজন কমানোর ব্যায়াম

অনেক মেয়ে আছে যারা ওজন বাড়ানোর উপায় জানেন কিন্তু ওজন কমানোর উপায় সম্পর্কে জানেন না। তাই গুগলে মেয়েদের ওজন কমানোর ব্যায়াম লিখে সার্চ করেন। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা সে সম্পর্কেই আলোচনা করব। আপনি যদি সম্পূর্ণ আর্টিকেল মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে মেয়েদের ওজন কমানোর পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

ওজন কমানোর ব্যায়াম নিয়ে কিছু কথা

অনেক মেয়েরা তাদের ওজন নিয়ে অনেক সমস্যার মধ্যে থাকে। তারা কিভাবে ওজন কমাবে এ সম্পর্কে তাদের কোনো ধারণা থাকে না। অনেকেই এই বিষয়টি নিয়ে ডিপ্রেশনে চলে যায়। তাই আজকের এই আর্টিকেলে আমরা মেয়েদের ওজন কমানোর ব্যায়াম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

আপনি যদি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকেন তাহলে আপনি মেয়েদের দ্রুত ওজন কমানোর সহজ উপায়, ঘরে বসে মেয়েদের ওজন কমানোর উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। তাহলে চলুন আমাদের মূল আলোচনা শুরু করা যাক।

মেয়েদের দ্রুত ওজন কমানোর সহজ উপায়

আপনি কি আপনার ওজন নিয়ে সমস্যার মধ্যে আছেন? যদি ওজন নিয়ে সমস্যার মধ্যে থাকেন তাহলে আজকেরে আর্টিকেলে আপনি সমস্যার সমাধান পেয়ে যাবেন। আমরা নিচে মেয়েদের দ্রুত ওজন কমানোর সহজ উপায় সম্পর্কে আলোচনা করব। আশা করি আপনি যদি উক্ত বিষয়গুলো মেনে চলতে পারেন তাহলে খুব তাড়াতাড়ি ওজন কমাতে পারবেন। ওজন কমাতে হলে প্রথমে আপনাকে খাওয়া-দাওয়ার দিকে নজর দিতে হবে।

প্রোটিন ও সবুজ শাকসবজি বেশি খেতে হবে

আপনি যদি আপনার ওজন কমাতে চান তাহলে আপনাকে দিনের প্রতিবার খাবারে প্রোটিন ফ্যাট ও অল্প কার্বোহাইড্রেট যুক্ত সবজি রাখতে হবে। উক্ত খাবারগুলো আপনার শরীরকে সুস্থ রাখবে এবং এর পাশাপাশি আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করবে। প্রোটিনযুক্ত খাবার যেমন মাছ, মাংস, ডিম, দুধ এগুলো খেতে পারেন। এছাড়া অল্প কার্বোহাইড্রেট যুক্ত সবজি গুলো যেমন পালং শাক, বাঁধাকপি, ফুলকপি, শসা গাজর ইত্যাদি। আপনি এই খাবারগুলো আপনার খাদ্য তালিকায় রাখতে পারেন।

মিষ্টি জাতীয় খাবার থেকে দূরে থাকতে হবে

আপনার শরীরের ওজন বেড়ে যাওয়ার অন্যতম একটি কারণ হলো মিষ্টি জাতীয় খাবার বেশি খাওয়া। আপনি যদি আপনার শরীরের ওজন কমাতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই মিষ্টিজাতীয় খাবার থেকে দূরে থাকতে হবে।

খাবার না খেয়ে থাকবেন না

আমরা অনেকেই আছি ওজন কমানোর দোহাই দিয়ে না খেয়ে থাকি। এ ধারণাটি সম্পূর্ণ ভুল। আপনি যদি সকল নিয়ম কানুন মেনে চলেন এবং সঠিকভাবে খাওয়া-দাওয়া করেন তাহলে আপনার ওজন এমনিতেই কমতে থাকবে। না খেয়ে থেকে আপনার শরীর আরো বেশি অসুস্থ হয়ে যাবে।

নিয়মিত ঘুম দিতে হবে

আমাদের শরীরের ওজন বেড়ে যাওয়ার অন্যতম আরেকটি কারণ নিয়মিত ঘুম না হওয়া। একজন প্রাপ্তবয়স্ক নারীর দিনে ৭-৮ ঘন্টা ঘুমানো উচিত। শরীর খারাপ হয় মন খারাপ হয় কোন কাজে মন বসে না এবং বিভিন্ন রকম চিন্তা মাথায় আসে। ঘুম না হওয়া শরীরের ওজন বেড়ে যাওয়া অন্যতম কারণ। তাই অবশ্যই আপনাকে নিয়ম অনুযায়ী ঘুম পারতে হবে।

মেয়েদের ওজন কমানোর ব্যায়াম

আপনি যদি শরীরের ওজন কমাতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা মেয়েদের ওজন কমানোর ব্যায়াম সম্পর্কে আলোচনা করছি। কিছু কিছু ব্যায়াম আছে যা অনেক জনপ্রিয়। কিন্তু কিছু হালকা ব্যায়াম রয়েছে যেগুলো করেও আপনি আপনার শরীরের ওজন কমাতে পারেন। নিচে সেগুলো উল্লেখ করা হলো।

হাঁটাচলা করা

আপনি স্বাভাবিকভাবে যেরকম হাঁটেন তার থেকে একটু দূরে হাঁটতে হবে তাহলেই একটি ব্যায়াম হয়ে যাবে। আপনি যেই স্পীডে স্বাভাবিক ভাবে হাটাহাটি করেন তাঁর থেকে ধীরে ধীরে গতি বাড়াতে হবে যাকে বলে হালকা জগিং। প্রথমে অল্প করে হাঁটুন এরপর ধীরে ধীরে সময় বাড়াতে থাকুন। যার ফলে আপনার ওজন কমবে এবং ফুসফুসের জোর বাড়বে।

দৌড় বা স্প্রিন্ট

হাঁটার অভ্যাস যখন হয়ে যাবে তখন আপনাকে দৌড় এর দিকে যেতে হবে। এর জন্য কোন খালি মাঠে আপনাকে নিয়মিত আধাঘন্টা দৌড়াতে হবে। দৌড়ানোর ফলে আপনার ওজন কমে যাবে এবং আপনার শরীর গরম থাকবে। আপনাকে মুহূর্তের মধ্যে চাঙ্গা করে তুলবে এই ব্যায়াম। যার ফলে আপনার পা এবং বডি শক্তিশালী হয়ে উঠবে।

ক্রাঞ্চেস

ক্রাঞ্চেস ব্যায়ামটি আপনার কোর মাসলকে বেশি শক্তিশালী করে তোলে। মাটিতে টানটান হয়ে শুয়ে পড়তে হবে এবং পা ভাঁজ করে ক্রাঞ্চেস করা যায়। পুরো পা ছড়িয়ে করতে পারেন। বিছানা বা অন্য কোন জায়গায় শুয়ে ক্রাঞ্চেস ব্যায়ামের অভ্যাস করা যায়।

পুশ আপ আর ডিপস

আপনি এই দুইটি ব্যায়াম এর জন্যই উপুড় হয়ে শুয়ে পড়তে হবে মাটিতে এরপরে ডিপসের ক্ষেত্রে কাঁধ বরাবর হাত রাখুন পা দুটো একটু ফাঁক করে রাখতে হবে। তারপর হাতের তালু আর পায়ের আঙ্গুল ভর করে শরীরটা ওঠানামা করুন। কিভাবে ব্যায়াম করলে আপনার শরীরের ওজন ধীরে ধীরে কমতে থাকবে।

ঘরে বসে মেয়েদের ওজন কমানোর উপায়

প্রিয় পাঠকগণ ইতিমধ্যে আমরা মেয়েদের দ্রুত ওজন কমানোর সহজ উপায় সম্পর্কে আলোচনা করেছি। এখন আমরা আলোচনা করবো ঘরে বসে মেয়েদের ওজন কমানোর উপায় সম্পর্কে। সুস্থ থাকতে হলে অবশ্যই আপনাকে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। তাই বর্তমানে অনেকেই ওজন কমানোর উপায় হিসেবে ডায়েট করে।

সকাল বেলায় করণীয় - সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে দাঁত ব্রাশ করে ফ্রেশ হওয়ার পরে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট হাঁটাহাঁটি করতে হবে। সকালবেলা আপনি যদি হাঁটাহাঁটি করেন তাহলে আপনার ওজন এবং পেটের মেদ দ্রুত কমে যাবে। হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূর হবে।

সকাল বেলার নাস্তা - সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে ফ্রেশ হওয়ার পরে হাঁটাহাঁটি করার পরে আপনাকে এক গ্লাস লেবু ও মধু পানি খেতে হবে। এক গ্লাস হালকা গরম পানিতে এক চামচ মধু এবং লেবুর অর্ধেক অংশ নিয়ে সঠিকভাবে মিশিয়ে তা খেতে হবে। আপনি যদি প্রতিদিন সকালে লেবু ও মধু পানি পান করতে পারেন তাহলে শরীরের অতিরিক্ত ওজন দ্রুত কমবে।

সকালের খাবার - সকালের নাস্তা করার পরে আপনি আপনার স্বাভাবিক খাবার সকালে খেতে পারেন যেমন রুটি সবুজের সাথে মিশিয়ে। প্রতিদিন সকালে একটা করে ডিম খেতে পারেন।

দুপুরের খাবার - দুপুরের খাবার হিসেবে আপনি আপনার নিয়মিত যে খাবার খাবেন সেগুলো খেতে পারেন। কিন্তু খাবার তালিকায় অবশ্যই শাকসবজি বেশি রাখবেন। এবং প্রোটিন জাতীয় খাবার বেশি খাওয়ার চেষ্টা করবেন। এতে করে আপনার ওজন দ্রুত কমতে থাকবে।

রাতের খাবার - রাতের খাবার হিসেবে আপনি রুটি খেতে পারেন। একটা মাঝারি সাইজের রুটি সবজি দিয়ে খেতে পারেন আপনি যদি এই নিয়মগুলো মেনে চলতে পারেন তাহলে খুব সহজে এবং অল্প সময়ের মধ্যে ওজন কমাতে পারবেন।

শেষ কথা

মেয়েদের ওজন কমানোর ব্যায়াম, ঘরে বসে মেয়েদের ওজন কমানোর উপায় এছাড়া আরো অনেকগুলো বিষয় আজকের এই আর্টিকেলে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি আপনি উক্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা পেয়েছেন। যদি আপনি ওজন কমাতে চান তাহলে অবশ্যই উক্ত নিয়মগুলো সম্পর্কে মেনে চলুন।

পোষ্ট ক্যাটাগরি:

এখানে আপনার মতামত দিন

0মন্তব্যসমূহ

আপনার মন্তব্য লিখুন (0)