Technical Care BD https://www.technicalcarebd.com/2019/12/blog-post_2.html

মোবাইল ফোন ব্যবহার এর সুফল ও কুফল, ভালো /মন্দ

আধুনিক প্রযুক্তি বিদ্যার অন্যতম আবিস্কার হল ইন্টারনেট, ই-মেইল ও মোবাইল ফোন। বর্তমান সময়ে যোগাযোগের অন্যতম ও সবচেয়ে গুরুপ্তপূর্ণ মাধ্যম হচ্ছে মোবাইল ফোন। আজকের এই দিনে কোনো আত্মীয়স্বজন বা বন্ধু বা প্রিয়জনকে চিঠি লিখে তার উত্তরের আশায় ডাক পিয়নের প্রতীক্ষায় পথ চেয়ে বসে থাকতে হয় না। 
মোবাইল ফোন ব্যবহার এর সুফল ও কুফল ,ভালো /মন্দ
তার বিহিন এই ছোট মোবাইলটির মাধ্যমে দেশে বা বিদেশে মানুষের সাথে যোগাযোগ করতে পারি এবং নানা রকম খবর আদান প্রদান করতে পারি। মোবাইল ফোন ছাড়া আমাদের জীবনে যোগাযোগ মাধ্যমের পরিপূর্ণতা আছে না। তাই এই ছোট ক্ষুদ্র মোবাইল ফোন এর আমাদের জীবনে অনেক দরকার। মোবাইল ফোনের ব্যবহার। মোবাইল ফোনের ব্যবহার ও অপব্যবহার রচনা। 
মোবাইল ফোন ব্যবহার এর প্রসার 
মোবাইল ফোন দেশের সর্বস্তরে ব্যবহার করা হয়। এই ক্ষুদ্র জিনিসটি পৃথিবীর যেকেউ ব্যবহার করতে পারেন। সমাজের উচ্চবিত্ত, নিম্নবিত্ত সব পরিবারেই মোবাইল ফোন ব্যবহার ছড়িয়ে পড়েছে। এই মোবাইল ফোন গুলি আপনি আপনার সাদ্ধের মধ্যে কিনতে পারবেন। আবার এই মোবাইল ফোন আবার অনেক দামের ও রয়েছে। বিশেষ করে পরিসংখ্যান এ জানা যায় এই প্রজন্মের ছেলে মেয়েদের কাছে এর আকর্ষণ অপ্রত্যয়ীর হয়ে উঠছে। মোবাইল ফোনের ভালো মন্দ রচনা। 
মোবাইল ফোন জনপ্রিয়তার কারন ও সুফল

মোবাইল ফোন ব্যবহার এর জনপ্রিতার অনেকগুলো কারণ আছে। কারন গুলো নিম্নে দেয়া হলঃ

১. সবচেয়ে দ্রুত যোগাযোগ ব্যাবস্থার জন্য আজকের এই মোবাইল ফোন বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

২. মোবাইল ফোন আপনি আপনার সাথে নিয়ে যেকোন জায়গায় নিয়ে যাওয়া যায়, আর মোবাইল ফোন এর ব্যবহার একদম সিম্বল।

৩. আদি যুগে আপনি যদি কাউকে চিঠি পাঁঠায়তেন, তার বিপরীতে আপনাকে অনেক দিন পর সেইটার উত্তর পেতেন।আর আপনি এখন অল্প খরচ এর মাধ্যমে চিঠি আদানপ্রদান করতে পারবেন।

৪. আবার আপনি মোবাইল ফোন এর মাধ্যমে দেশ এর নানা রকম খবর, বিনোদন খুব অল্প সময় এর মধ্যই পরতে পারেন বা দেখতে পারেন। মোবাইলের ভালো দিক। 

৫. আমাদের দেশের প্রশাসন সহ বাহিরের দেশ এর প্রশাসন তাদের অপরাধ মুলক কর্মকান্ড দমনের এর জন্য মোবাইল ফোন ব্যবহার করে থাকেন। মোবাইল ফোনের সুফল ও কুফল রচনা। 

মোবাইল ফোন ব্যবহার এর ক্ষতিকর দিক বা কুফল
মোবাইল ফোন ব্যবহার এর সুবিধা এর পাশাপাশি সুফল এর চেয়ে কুফল বা মন্দ দিক ও কম নয়। অতিরিক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহার করা বা কথা বলা ঠিক না। মোবাইল ফোন এ অতিরিক্ত কথা বলা, এসএমএস করা বা গেম খেলা বা নানা রকম ধরনের পর্ণ ভিডিও দেখা ইত্যাদি সমাজ কে ধিরে ধিরে গ্রাস করে নিচ্ছে।

অনেকে আবার ফোনে কথা বলতে বলতে রাস্তা পারাপার হয় যার ফলে দেখা যায় নানা রকম মারাত্মক দুর্ঘটনার স্বীকার হতে হয়। আবার অনেক গবেষণায় জানা যায় অতিরিক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহার এর কারনে মস্তিস্কে কান্সার হতে পারে। যা আপনার পরিবার বা সমাজের জন্য হুমকি সরূপ। মোবাইল ফোনের সুফল ও কুফল সম্পর্কে প্রতিবেদন।

পরিশেষ এ বলতে চায়, মোবাইল ফোন আমাদের জীবন এ অনেক সচ্ছলতা যোগাযোগ এর সুবিধা আনলেও এর অসুবিধা রয়েছে অনেক। এখন এই প্রজন্মের ছেলে মেয়েরা এই মোবাইল ফোনের ওপর এতটা মগ্ন হয়েছে যে এর জন্য তাদের পরাশুনার বাধা হচ্ছে। তা পুরণের জন্য পরিবারের পিতা-মাতার উপর চাপ প্রয়োগ করছে, যার ফলে পরিবারে নেমে আসছে অশান্তি।

তাই আমাদের সবাইকে এর যথাযথ বাবহার করতে হবে। তাই এই আধুনিক যুগে বা তথ্য প্রযুক্তির যুগে দেশের জনগনের মুখে হাসি ফুটানো আমাদের জীবনের লক্ষ্য হওয়া  উচিত অন্ধভাবে মোবাইল ফোন নিয়ে বিলাসিলতায় মগ্ন থাকা উচিত নয়।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

2 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

  1. ধন্যবাদ এতো সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে বলার জন্য❤️

    ReplyDelete

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া